সোম (পানীয়)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

বৈদিক ঐতিহ্যে, সোম (সংস্কৃত: सोम) হল একটি প্রথাগত লৌকিক পানীয়[১] যা প্রাচীন বৈদিক ইন্দো-আর্যদের নিকট গুরুত্বপূর্ণ ছিল।[২] ঋগ্বেদে এর উল্লেখ রয়েছে, বিশেষ করে সোমমণ্ডল নামক নবম মণ্ডলে। গীতাতে নবম অধ্যায়ে পানীয়টির উল্লেখ রয়েছে।[৩] এটি ইরানী হোমের সমতুল্য।[৪][৫]

উক্ত লিপিসমূহে একটি গাছ থেকে রস সংগ্রহের মাধ্যমে সোম তৈরির বর্ণনা দেওয়া হয়েছে, যে গাছের পরিচয় এখনো অজানা এবং তা পণ্ডিতদের নিকট একটি বিতর্কের বিষয়। প্রাচীন ঐতিহাসিক বৈদিক ধর্মজরাথুস্ট্রবাদ, উভয় ধর্মেই পানীয় ও গাছটির নাম অভিন্ন।[৬]

এই উদ্ভিদটি আসলে কোন উদ্ভিদ, তার পরিচয় নিয়ে অনেক জল্পনা রয়েছে। প্রথাগত ভারতীয় বর্ণনামতে, যেমন ভারতীয় আয়ুর্বেদ, সিদ্ধ চিকিৎসা, সোমযজ্ঞ চর্চাকারীগণ সোমলতা উদ্ভিদকে(সার্কোস্টেমা এসিডাম) এই গাছ হিসেবে চিহ্নিত করেন।[৭] অভারতীয় গবেষকগণ ফ্লাই এগারিক, এমানিটা মাস্কারিয়া, সিলোসাইব কিউবেন্সিস, বুনো বা সিরীয় রু উদ্ভিদ, পেগানাম হারমালা ও মা হুয়াং, এফেড্রা সিনিকা উদ্ভিদকে এই গাছ হিসেবে প্রস্তাব করেছেন।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. soma. CollinsDictionary.com. Collins English Dictionary - Complete & Unabridged 11th Edition. Retrieved 2 December 2012.
  2. Flood (1996), An Introduction to Hinduism, p.43
  3. Mukundananda, Swami। "Chapter 9, Verse 20 – Bhagavad Gita, The Song of God – Swami Mukundananda"www.holy-bhagavad-gita.org 
  4. Toorn, Karel van der; Becking, Bob; Horst, Pieter Willem van der (১৯৯৯)। Dictionary of Deities and Demons in the Bible (ইংরেজি ভাষায়)। Wm. B. Eerdmans Publishing। পৃষ্ঠা 384। আইএসবিএন 978-0-8028-2491-2। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 
  5. Guénon, René (২০০৪)। Symbols of Sacred Science (ইংরেজি ভাষায়)। Sophia Perennis। পৃষ্ঠা 320। আইএসবিএন 978-0-900588-77-8। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 
  6. Victor Sarianidi, Viktor Sarianidi in The PBS Documentary The Story of India
  7. Singh, N. P. (১৯৮৮)। Flora of Eastern Karnataka, Volume 1। Mittal Publications। পৃষ্ঠা 416। আইএসবিএন 9788170990673 

উৎস[সম্পাদনা]