সৈয়দ সরদার আহমেদ পীরজাদা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সৈয়দ সরদার আহমেদ পীরজাদা
سید سردار احمد پیرزادہ
Syed Sardar Ahmed Pirzada Portrait.jpg
জন্ম (1961-03-27) ২৭ মার্চ ১৯৬১ (বয়স ৬০)
জৌহরাবাদ, পাঞ্জাব, পাকিস্তান
জাতীয়তাপাকিস্তানি
শিক্ষাপাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয় হতে সাংবাদিকতায় মাস্টার্স
পেশাসাংবাদিক
উল্লেখযোগ্য কর্ম
এপিএনএস সেরা উর্দু কলাম পুরস্কার ধারক। পিডব্লিউডিগুলিতে স্বেচ্ছাসেবীর কাজ
উপাধিপাকিস্তান এর প্রথম ব্লাইন্ড জার্নালিস্ট, কলামিস্ট নওয়াইওয়াকত, চিফ এডিটর আখবারে উর্দু
সন্তান২ ছেলে

সৈয়দ সরদার আহমেদ পীরজাদা (উর্দু: سید سردار احمد پیرزادہ‎‎; জন্ম ২৭ শে মার্চ ১৯৬১) একজন পাকিস্তানি সাংবাদিক, রেডিও অ্যাঙ্কর এবং আর্থ-রাজনৈতিক বিশ্লেষক যিনি সর্বাধিকভাবে পাকিস্তানের প্রথম অন্ধ সাংবাদিক হিসাবে পরিচিত। [১][২][৩][৪][৫][৬] তিনি বর্তমানে মাসিক আখবর-ই-উর্দুর [৭] প্রধান সম্পাদক এবং তিনি দৈনিক নওয়াইওয়াক্ট সহ উর্দু সংবাদপত্রের জন্য কলামও লিখেছেন। [৮] তিনি পাকিস্তানের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জনাব আসিফ আলী জারদারিসহ এমন অনেক এনজিও এবং পাকিস্তানের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ দ্বারা স্বীকৃত ও সম্মানিত হয়েছেন। তিনি সেই কয়েকজন পাকিস্তানি সাংবাদিকের একজন, যাদের উইকিলিক্সের ফাঁস হওয়া ইমেলগুলিতে গ্লোবাল ইন্টেলিজেন্স সংস্থা স্ট্রাটফোর্ডের নিবন্ধ এবং বিশ্লেষণ পর্যবেক্ষণ করা হয়েছিল। [৯]

ব্যক্তিগত ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

সৈয়দ সরদার আহমেদ পীরজাদা ১৯৬১ সালের মার্চ মাসে পাকিস্তানের জৌহরাবাদ জেলার খুশাব শহরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তিনি জন্মের সময় আংশিক দৃষ্টিভঙ্গি করেছিলেন তবে গ্লুকোমার অগ্রগতির কারণে শীঘ্রই দৃষ্টিশক্তিহীন হয়ে পড়েছিল। তাঁর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের থাকার জন্য কোনও বিশেষ সুবিধা ছিল না। তিনি ১৯৮৫ সালে পাঞ্জাববিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাংবাদিকতায় মাস্টার্স করেছিলেন। সরদার পীরজাদা তার দুর্বলতার কারণে প্রচুর নিপীড়ন ও পক্ষপাতিত্বের মুখোমুখি হয়েছিলেন এবং তাঁর কর্মক্ষেত্রের লোকেরা কেবল যোগ্যতার ভিত্তিতেই তার বিচার করতে অস্বীকার করেছিলেন (তাঁর নিজের অ্যাকাউন্টে)।

সাংবাদিকতায় তাঁর স্নাতকোত্তর হওয়ার পরে, পীরজাদা মূলধারার গণমাধ্যমে প্রবেশ করেছিলেন এবং জাতীয় দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকাগুলির জন্য প্রতিবেদক এবং উপ সম্পাদক হিসাবে দৈনিক জাং, দৈনিক জসরাত, দৈনিক মাশরিক এবং সাপ্তাহিক ইস্তাকালালে কাজ শুরু করেন । তিনি পাকিস্তানের কূটনীতিক সম্প্রদায়ের জন্য নকশাকৃত প্রকাশনা দ্য ডিপ্লোম্যাট নামে ইংরেজি মাসিকের সম্পাদক হিসাবেও কাজ করেছেন। ১৯৮৮ সালে সরদার আহমেদ পীরজাদা সরকারী সংস্থা ন্যাশনাল ল্যাঙ্গুয়েজ অথরিটি অফ পাকিস্তান (বর্তমানে এনএলপিডি, তথ্য, সম্প্রচার ও পাকিস্তান সরকারের জাতীয় ঐতিহ্য) জনসংযোগ কর্মকর্তা হিসাবে যোগদান করেন। তিনি ২০০৩ সালে মাসিক আখবর-এ-উর্দুর সম্পাদক হন এবং ২০১১ সালে সম্পাদকীয়-ইন-চিফ হন। এই সময়ে পাকিস্তান মেইন উর্দু (পাকিস্তানে উর্দু) শীর্ষক পাঁচ খণ্ডের বইয়ের সিরিজ প্রকাশ করেছে

পাকিস্তানের প্রথম ব্লাইন্ড জার্নালিস্টের ম্যান্টল অবলম্বন[সম্পাদনা]

পীরজাদা স্নাতক হওয়ার আগে মূলধারার সাংবাদিকতায় সক্রিয় ছিলেন, তাঁর প্রথম কাজ ১৯৮৫ সালের দিকের। তিনি পাকিস্তানি সাংবাদিক ও কলামিস্ট জাভেদ চৌধুরীর পরামর্শদাতা। [১০] কর্মজীবনের প্রথমদিকে তিনি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হওয়ার কারণে মূলধারার সাংবাদিকতায় নিপীড়ন এবং গ্রহণযোগ্যতার অভাবের মুখোমুখি হয়েছিলেন। তিনি ২০০৭ সালের একসময় পাকিস্তানের প্রথম ব্লাইন্ড জার্নালিস্ট (টিএফবিজেপি) এর ম্যান্টেল গ্রহণ করেছিলেন। তার নিজের বিবরণ অনুসারে, তিনি "পাকিস্তানের প্রথম ব্লাইন্ড জার্নালিস্ট" উপাধি গ্রহণ করার কারণ হল তার একমাত্র দুর্বলতা (অন্ধ হওয়ার কলঙ্ক) তার শক্তিতে পরিণত করা। তিনি ২০০৭ সালের মে মাসে পাকিস্তানের জাতীয় উর্দু দৈনিক নবাইওয়াত- এ যোগ দিয়েছিলেন এবং বর্তমানে তিনি কলামিস্ট হিসাবে লেখেন। আরও অনেক তরুণ দৃষ্টি প্রতিবন্ধী সাংবাদিকরা মূলধারার সাংবাদিকতায় তাঁর রোল মডেলকে অনুসরণ করেছেন। তার ভূমিকাকে অনুসরণ করে তিনি আগস্ট ২০১০ সালে সানরাইজ এফএম ৯৭-তে "সানরাইজ কী মেহমান" নামে একটি সামাজিক-রাজনৈতিক টক শোতে রেডিও অ্যাঙ্কর হিসাবে কাজ শুরু করেছিলেন। তিনি জুলাই ২০১৩ এর কিছু সময় রেডিও স্টেশন ছিলেন।

সক্ষম হন এবং পীরজাদাসহ টেলিভিশনে বিভিন্ন রাজনৈতিক টক শোতে হাজির করেছে সহ ক্যাপিটাল টক[১১] তাঁর নিবন্ধগুলি গত কয়েক বছরে স্বীকৃতি এবং বিশিষ্টতা অর্জন করেছে এবং সামাজিক ইস্যুতে পাকিস্তানের আদালত কর্তৃক সু মোটো নোটিশের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। [১২] পাকিস্তানের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে তাঁর প্রকাশিত বিশ্লেষণ পর্যবেক্ষণ করা, অনুবাদ করা এবং স্ট্র্যাটফোরে উইকিলিক্সের ইমেইল প্রকাশিত নজরদারিটিতে অন্তর্ভুক্ত ছিল । [৯]

বিতর্ক এবং নিষেধাজ্ঞা[সম্পাদনা]

২০১০ সালের জুলাইয়ে পাকিস্তানের জাতীয় ভাষা কর্তৃপক্ষ সরদার পীরজাদার উপর কোনও সাংবাদিকতামূলক কর্মকাণ্ডে অংশ না নেওয়ার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এই নিষেধাজ্ঞার পক্ষে পাকিস্তানের মিডিয়া সম্প্রদায়ের ব্যাপক সমালোচনা হয়েছিল এবং তার পক্ষে প্রচুর বিশিষ্ট লবি তার সাথে কথা বলছিলেন। [১০] এর মধ্যে পাকিস্তান ফেডারেল ইউনিয়ন অব জার্নালিস্টস (পিএফইউজে) অন্তর্ভুক্ত ছিল যারা গণমাধ্যমকে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা জানিয়েছিল এবং পাকিস্তানের সংবিধানের ১৯ অনুচ্ছেদে পীরজাদার অধিকার লঙ্ঘন করে। [৪] মিডিয়াটির চাপের মধ্যে দিয়ে এই নিষেধাজ্ঞার চূড়ান্ত রূপান্তরিত হয়েছিল।

উল্লেখযোগ্য অর্জন এবং কাজ[সম্পাদনা]

পীরজাদা তাঁর লেখালেখি, বিশ্লেষণ ও সাংবাদিকতায় কাজ করার জন্য অসংখ্য পুরস্কার ও প্রশংসিত প্রশংসা পেয়েছেন।

এপিএনএস সেরা কলাম পুরস্কার (উর্দু) ২০১২[সম্পাদনা]

পীরজাদাকে ২০১২ সালের জন্য সম্মানজনক অল পাকিস্তান নিউজপেপার সোসাইটির সেরা উর্দু কলাম পুরস্কার দেওয়া হয়েছিল। এই পুরস্কার তাকে পাকিস্তানের বর্তমান রাষ্ট্রপতি আসিফ আলী জারদারি পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি পদে ২২ তম সাংবাদিকতা পুরস্কার অনুষ্ঠানে ভূষিত করেছিলেন। [১৩][১৪]

অন্যান্য পুরস্কার[সম্পাদনা]

  • সাংবাদিকতায় পরিষেবাগুলির জন্য এনপিসি স্বর্ণপদক পুরস্কার। ২৭ শে মার্চ ২০১৩-এ নাজরিয়া পাকিস্তান কাউন্সিলের পক্ষে ড. আবদুুল কাাাাদেরদেদ[১৫]
  • মিডিয়াতে পরিষেবাগুলির জন্য চোলিস্তান অ্যাওয়ার্ড ২০১২। চোলিস্তান উন্নয়ন কাউন্সিল ১৪ ই এপ্রিল ২০১২ এ সম্মেলন করেছে।
  • প্রেস ক্লাব পাকিস্তান লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড এবং সম্মানসূচক লাইফটাইম সদস্যপদ। এনপিসি সভাপতি ফারুক ফয়সাল ১২ ডিসেম্বর ২০১৩-তে বার্ষিক সাধারণ বডি সভায় সম্মেলন করেছেন।

পিডব্লিউডি এবং প্রতিবন্ধীতা আন্দোলনে কাজ[সম্পাদনা]

সরদার বেশ কয়েক বছর ধরে সম্পূর্ণ স্বেচ্ছাসেবীর ভিত্তিতে পিডব্লিউডির কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি সংসদে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের প্রতিনিধিত্বের জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এবং এর দিকে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছেন। তিনি সংসদে উপস্থিত ছিলেন যখন তাঁর কাজের ভিত্তিতে প্রস্তাব আনা হয়েছিল [২][১৬] তিনি পাকিস্তানে অনুপ্রেরণামূলক কর্মসূচিতেও সহায়তা করেছেন (প্রতিবন্ধীদের জন্য) এবং বহু এনজিওর পাশাপাশি পিডাব্লুডি পুনর্বাসনের জন্য এবং একই সচেতনতা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্যও কাজ করেছেন । [১৭] তিনি পিডব্লিউডি সম্পর্কিত তত্ত্বগুলিও খসড়া করেছেন এবং সেগুলি একাধিক অনুষ্ঠানে উপস্থাপন করেছেন। এর মধ্যে আরও উল্লেখযোগ্য হ'ল "সংমিশ্রণ দ্বারা অক্ষম তত্ত্ব"। [১৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Seminar on International Day of Persons with Disabilities 2012"United Nations Educational, Scientific and Cultural Organization। UNESCO Islamabad। ১ জুলাই ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  2. "November 2013 - January 2014" (PDF)। জানু ২০১৪: 9। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  3. "It is an honor to have Syed Sardar Ahmed Pirzada; The First Blind Journalist of Pakistan cover our Pre-departure Orientation."United States Educational Foundation in Pakistan। USEFP, Facebook। ২১ জুলাই ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  4. Shamsul Islam, Naz (১৮ জুলাই ২০১০)। "PFUJ flays NLA Ban on first blind Journalists and Columnist of Pakistan"Press Pakistan। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  5. Sardar Ayaz, Sadiq (ডিসেম্বর ১৭, ২০১৩)। "Sense of Worth and Self Respect for All of Us: Says NA Speaker"National Assembly of Pakistan Press। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  6. "Govt committed to provide opportunities for special people: Speaker"Associated Press of Pakistan। ডিসেম্বর ১৭, ২০১৪। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  7. "Editorial Board of Akhbar-e-Urdu"। অক্টোবর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  8. "Saaf Saaf - Telling the Truth"Daily Nawaiwaqt। ২৯ জুলাই ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  9. "US/PAKISTAN - Pakistan commentary says US attacked army post to avenge ex-envoy's resignation"The Global Intelligence Files। WikiLeaks.org। ১১ মার্চ ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১ আগস্ট ২০১৪ 
  10. "Blind Man Searching for Justice in a Blind Community"Daily Express News। Javed Chaudhry। ১৭ জুলাই ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  11. "Capital Talk on Thursday, August 11, 2011"Pakistan Herald। Gibralter Information Technologies। সংগ্রহের তারিখ ১৬ আগস্ট ২০১৪ 
  12. "Supreme Court Takes Suo Motto Notice on the Column of Sardar Pirzada (Translation)"Nawaiwaqt। জুলাই ২৩, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  13. Staff Reporter (এপ্রিল ১৬, ২০১২)। "Journalists, advertisers given awards: APNS urged to look into salary issue"Dawn। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  14. "22nd APNS Awards ceremony to be held on 16th"The News International। এপ্রিল ১১, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  15. Ansari, Ashraf (মার্চ ২৮, ২০১৩)। "NPC Gold Medal Awards - Dr A Q Khan urges youth to work for Pakistan's progress"Pakistan Observer। ১৩ আগস্ট ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৩ 
  16. APP (১৮ ডিসেম্বর ২০১৩)। "Opportunities for special people"Pakistan Observer। ১৩ আগস্ট ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  17. "Revolving 5th Vasakh Film Festival Sindh – Day 2"Maati.TV। MAATI TV। ২০১২-০৫-১৪। ২৫ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  18. "Vdieo Message Syed Sardar Ahmed Pirzada, Columnist Daily Nawa-i-Waqt"National Conference on Comprehensive Rehabilitation & Empowerment of Persons with Disabilities.। Rehab Now। ২০ নভেম্বর ২০১২। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪