সৈয়দ আবদুস সামাদ (অর্থনীতিবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ড. সৈয়দ আবদুস সামাদ
Dr. Syed Abdus Samad.jpg
ড. সৈয়দ আবদুস সামাদ ২০১৭
জন্ম১৯৪৩[১]
বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু২৮ জুলাই ২০২১(2021-07-28) (বয়স ৭৭–৭৮)[২]
বারিধারা, ঢাকা, বাংলাদেশ
নাগরিকত্ব পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
 বাংলাদেশ
পেশাবাংলাদেশের বিনিয়োগ বোর্ডের চেয়ারম্যান
কর্মজীবন১৯৬৫–বর্তমান

ড. সৈয়দ আবদুস সামাদ (১৯৪৩ – ২০২১) অর্থনীতির শিক্ষক। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বোস্টন স্টেট কলেজ, বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়, দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং দক্ষিণ কোরিয়ার হানকুক ইউনিভার্সিটি অব ফরেন স্টাডিজের অনুষদ সদস্য ছিলেন। সামাদ একটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বেসামরিক কর্মচারী, অর্থনীতিবিদ এবং মানবাধিকারকর্মী হিসাবে কাজ করেছেন। বাংলাদেশে তিনি জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রকের স্থায়ী সচিব এবং প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব ছিলেন। সামাদ বাংলাদেশ বিনিয়োগ বোর্ডের নির্বাহী চেয়ারম্যান।

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

সামাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ইউসিএলএতে স্নাতকোত্তর পড়াশোনা করেন। ১৯৭৭ সালে সামাদ অর্থনীতি ও রাজনৈতিক অর্থনীতিতে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন এবং ১৯৭৯ বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএচইডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৮০ থেকে ১৯৮২ সাল পর্যন্ত সামাদ বাংলাদেশ প্রশাসনিক স্টাফ কলেজের শিক্ষকতা ও পরিচালনা কর্মীদের সদস্য ছিলেন। ১৯৮২ থেকে ১৯৮৫ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ছিলেন। [৩] তারপরে ১৯৮৫ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি জনপ্রশাসন ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন প্রশিক্ষণ একাডেমিতে অর্থনীতির শিক্ষার্থীদের পড়ান।

১৯৯০ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত সামাদ জাতিসংঘের এশীয় ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় উন্নয়ন কেন্দ্রের অর্থনীতি ও তথ্য প্রযুক্তি প্রোগ্রামের পরিচালক ছিলেন [৪] এবং ১৯৯২ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত তিনি এসোসিয়েশন অফ ডেভেলপমেন্ট রিসার্চ এবং এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট-এর মালয়েশিয়ার অধ্যায়ের নির্বাহী সচিব ছিলেন । [৫][৬]

১৯৯৫ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত সামাদ বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন[৭] এবং ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রীর স্থায়ী সচিব ছিলেন। ১৯৯৭ থেকে ২০০১ পর্যন্ত সামাদ বাংলাদেশ সরকারের মূখ্য সচিব ছিলেন। [৮]

২০০৬ এবং২০০৯ সালের মধ্যে, সামাদ করেন দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং কোরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় এবংহানকুক ইউনিভার্সিটি অব ফরেন স্টাডিজের মধ্যে কোরিয়া

সামাদ বহু আন্ত-আঞ্চলিক এজেন্সি, জাতিসংঘের অর্থায়িত কর্মসূচি এবং প্রকল্পগুলির মূল্যায়ন করেছে। তিনি প্যারিসের আন্তর্জাতিক সামাজিক বিজ্ঞান কাউন্সিল (আইএসএসসি) দ্বারা অর্থায়িত তুলনামূলক দারিদ্র্য গবেষণা সম্পর্কিত গ্লোবাল প্রোগ্রামের প্রযুক্তিগত কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি 1996 সালে ইউনেস্কো এবং স্ক্যান্ডিনেভিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রেস দ্বারা প্রকাশিত দারিদ্র্য সম্পর্কিত বিশ্বব্যাপী গবেষণা বইয়ের অন্যতম লেখক ছিলেন।

নির্বাচিত কাজ[সম্পাদনা]

  • শ্রম উদ্বৃত্ত অর্থনীতির আসল মজুরি (১৯৮১) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, .ঢাকা[৯]
  • পরিকল্পনা (১৯৮৪) বাংলা একাডেমী, ঢাকা।
  • সার্ক লিঙ্ক: একটি অর্থনীতি সংক্রান্ত পদ্ধতি (১৯৯২) এপডিসি / ইউএনডিপি, মালয়েশিয়া। [১০]
  • বাহ্যিক অর্থনৈতিক সহায়তা (১৯৯৩) তথ্য ডকুমেন্টেশন রিসোর্স সেন্টার, জেনেভা এবং কলম্বো।
  • পিপলস ইনিশিয়েটিভস (১৯৯৩) এপিডিসি, ইউএন, নেপাল, মালয়েশিয়া এবং থাইল্যান্ডের উপর টেকসই বিকাশের অপারেশনাল কৌশলসমূহ[১১]
  • এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে বেসরকারীকরণ (১৯৯৫) এপডিসি, কমনওয়েলথ সচিবালয়, কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া। [১২]
  • এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে অর্থনৈতিক রূপান্তর । ১৯৯৫। এশিয়া এবং প্যাসিফিকের উন্নয়ন গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটগুলির সংস্থা (এডিআইপিএ) / ইউএন। মালয়েশিয়া / শ্রীলঙ্কা। [১৩]
  • টেকসই বিকাশ .১৯৯৫। এপিডিসি / ইউএনডিপি। কুয়ালালামপুর, মালয়েশিয়া এবং কাঠমান্ডু, নেপাল।
  • তথ্য প্রযুক্তির প্রয়োগ (১৯৯৬) এপডিসি, কমনওয়েলথ সচিবালয়।
  • দারিদ্র্য, একটি গ্লোবাল রিভিউ (১৯৯৬) ইউনেস্কো, স্ক্যান্ডিনেভিয়ান ইউনিভার্সিটি প্রেস, অসলো, নিউ ইয়র্ক।
  • দারিদ্র্য গবেষণা, একটি এশিয়ান পর্যালোচনা (১৯৯৬), এডিআইপিএ, এপিডিসি, মালয়েশিয়া।
  • এশিয়া এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে তুলনামূলক সুবিধা পরিবর্তন (১৯৯৭) এপডিসি, ইস্ক্যাপ, ইউএনডিপি, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড।
  • কোবल्ड পাণ্ডুলিপি, কনভেনশনাল ইকোনমিক্সের কালিডোস্কোপ পরিবর্তন (২০০৫) অঙ্কুর প্রকাশানী, ঢাকা, বাংলাদেশ।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০২১ সালের ২৮ জুলাই বুধবার আবদুস সামাদ বারিধারায় নিজ বাসভবনে ৭৮ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।[১৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সাবেক মুখ্য সচিব ড. সামাদ মারা গেছেন, প্রধানমন্ত্রীর শোক"বিডি জার্নাল। ২৮ জুলাই ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০২১ 
  2. "ড. সৈয়দ আব্দুস সামাদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক"বাংলা ট্রিবিউন। ২৮ জুলাই ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০২১ 
  3. Dr. Syed Abdus Samad ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ তারিখে Government of Bangladesh.
  4. Asian Pacific - supporting refugees and immigrants in the metro Denver area APDC organisation website.
  5. Asian regional conference on the Management of Social Transformations (MOST) UNESCO
  6. Asia peace research and related institutions ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৩ জুলাই ২০১৫ তারিখে Terracuranda organisation
  7. BASA, Leader of the Leaders Bangladesh Civil Service Association website Accessed 12 July 2015.
  8. Power Division, Government of the People's Republic of Bangladesh - বিদ্যুৎ বিভাগ-গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার| Government of Bangladesh
  9. Real wages in labour surplus economies Open Library organisation website.
  10. SAARC Link CMI Library.
  11. Operational strategies of sustainable development upon people's initiatives APDC.
  12. "Privatisation in Asia and the Pacific"google.com 
  13. "Google Books"google.com 
  14. "বঙ্গবন্ধুর একান্ত সচিবের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক"বিডি নিউজ২৪.কম। ২৮ জুলাই ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০২১