সুলেইমান শাহের সমাধি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Tomb of Suleyman Shah
Süleyman Şah Türbesi
সুলেইমান শাহের সমাধিটির ভবন কমপ্লেটটি (তার দ্বিতীয় সমাধিস্থল, ১৯৭৩ - ফেব্রুয়ারি ২০১৫), ফোরাত নদী থেকে দৃশ্যমান
সুলেইমান শাহের সমাধিটির ভবন কমপ্লেটটি (তার দ্বিতীয় সমাধিস্থল, ১৯৭৩ - ফেব্রুয়ারি ২০১৫), ফোরাত নদী থেকে দৃশ্যমান
Tomb of Suleyman Shah সিরিয়া-এ অবস্থিত
Tomb of Suleyman Shah
Tomb of Suleyman Shah
স্থানাঙ্ক: ৩৬°৫২′৪৫″ উত্তর ৩৮°৬′২০″ পূর্ব / ৩৬.৮৭৯১৭° উত্তর ৩৮.১০৫৫৬° পূর্ব / 36.87917; 38.10556
দেশ সিরিয়া (ভৌগোলিকভাবে অবস্থিত) এবং  তুরস্ক (মালিকানা)
গভর্নোরেটআলেপ্পো গভর্নোরেট
উচ্চতা৪৭৫ মিটার (১,৫৫৮ ফুট)
সময় অঞ্চলEET (ইউটিসি+2)

সুলেইমান শাহের সমাধি (তুর্কী: Süleyman Şah Türbesi) অটোমান ঐতিহ্য অনুযায়ী, কবরস্থান (সমাধি, সমাধিস্তম্ভ)সুলেইমান শাহের অবকাশ (১১৭৮-১২৩৬), উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা প্রথম উসমান (১৩২৩/৪) এর পিতামহ । কিংবদন্তি এই সমাধিস্থলটি ১২৩৬ থেকে তিনটি জায়গায় অবস্থান করছে। বর্তমান সময়ে সবগুলি সিরিয়ায় অবস্থান করছে। ১২৩৬ থেকে ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত, সমাধিটির প্রথম জায়গাটি বর্তমানে সিরিয়ায় রাক্কা গভর্নোরেট অবস্থিত প্রাসাদ কালেত জাবারের কাছে অবস্থিত।

লাউসেন চুক্তির (১৯২৩) মাধ্যমে তুর্কি, সিরিয়া ও অন্যান্য রাজ্যে উসমানীয় সাম্রাজ্যকে ভেঙ্গে ফেলা হলে ক্যাসল কালাত জবারের অবস্থিত কবরটি তুরস্কের সম্পত্তি হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

১৯৭৩ সালে যখন ক্যাসল কালাত জাবার আশেপাশের এলাকায় আসাদ লেক বন্যার কারণে প্লাবিত হয় তখন তুরস্ক ও সিরিয়ার মধ্যকার চুক্তির মাধ্যমে কবরটি ৮৫ কিলোমিটার উত্তর দিকে সরিয়ে আনা হয়, কিন্তু ইউফ্রেটিস নদীর উপর এবং সিরিয়ায় তুরস্ক সীমান্ত থেকে ২৭ কিলোমিটার দূরে চলে যায়।

২০১৫ সালের শুরুর দিকে সিরিয়ার গৃহযুদ্ধের সময় তুরস্ক একতরফাভাবে সিরিয়ার একটি নতুন স্থানে কবরটি স্থানান্তরিত করে, যার ফলে তুরস্কের সীমান্ত থেকে প্রায় ১৮০ মিটার দূরে, ২২ কিমি (১৪ মা) পশ্চিমে কোবানী এবং সিরিয়ার আশেপাশের গ্রামের উত্তর দিকে,[১] কবর পাহারার জন্য প্রায় ৪০ জন তুর্কি সৈন্যকে মোতায়েন করা হয়েছে।[২] তুর্কি সরকার ভাষ্য অনুযায়ী, সমাধিটী অস্থায়ী ভিত্তিতে কয়েকবার স্থানান্তরিত করা হলেও এটির স্থিতির কোনরুপ পরিবর্তন করা হয়নি।

সুলেইমান শাহের মৃত্যু[সম্পাদনা]

সুলেইমান শাহ (খ্রী: ১১৭৮–১২৩৬) উসমানীয় সাম্রাজ্যের ঐতিহ্য অনুযায়ী, উসমানীয় সাম্রাজ্যের প্রথম সুলতান এবং প্রতিষ্ঠাতা ওসমানের পিতামহ (১৩২৩/৪)।[৩] ধারণা করা হয় যে, সুলেইমান শাহ বর্তমানে সিরিয়ায় অবস্থিত রাকা গভর্নোরেটে অবস্থিত দুর্গ কালাত জাবার এর কাছাকাছি ফোরাত নদীতে ডুবে মারা যান এবং একজন কিংবদন্তির সমাধি অনুযায়ী এটি দুর্গের কাছাকাছি কবর দেওয়া হয়।[৪]

সমাধিটির আইনি প্রক্রিয়া[সম্পাদনা]

১৯২১ সালে ফ্রান্স ও তুরস্ক কর্তৃক স্বাক্ষরিত অঙ্কার চুক্তির ৯ নং অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে যে, সুলেইমান শাহের মাজার (তার প্রথম স্থানে) "ভবিষ্যতে তুরস্কের সম্পত্তি হিসেবে অন্তর্ভুক্ত থাকবে এর জন্য অভিভাবক হিসেবে নিয়োগ করতে পারে এবং পাশাপাশি তুর্কি পতাকা উড়াতে পারবে"।[৫]

বিবিসির ভাষ্য মতে, এই চুক্তির মাধ্যমে সমাধিস্থলের স্থানটিও তুর্কি অঞ্চল হিসেবে বিবেচিত হবে কিন্তু এটি চুক্তির মাধ্যমে লিখিত হয় নি। অবশেষে ১৯২৩ সালে এই স্থিতাবস্থা লাউসেন চুক্তির ৩নং অনুচ্ছেদে এর মাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়েছিল।[৬] প্রাথমিকভাবে তুর্কি সৈন্যদের ১১-জন প্রত্নতাত্ত্বিক সৈন্যবাহিনীর একটি দল কবর রক্ষায় নিয়োজিত ছিল।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Minister invites Turks to visit planned tomb site in Syria"। Hürriyet Daily News। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৫ 
  2. "Turkish military enters Syria to evacuate soldiers, relocate tomb"। Reuters। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 
  3. İnalcık, Halil (২০০৭)। "Osmanlı Beyliği'nin Kurucusu Osman Beg"। Belletin7: 484–90। 
  4. Sourdel, D. (২০০৯)। "ḎJabar or Ḳalat ḎJabar"। P. Bearman; Th. Bianquis; C.E. Bosworth; ও অন্যান্য। Encyclopaedia of Islam (2nd সংস্করণ)। Brill online। 
  5. "Franco-Turkish agreement of Ankara" (PDF) (French and English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৪ 
  6. Treaty of Lausanne. Signed 24 July 1923. Retrieved 11 September 2015.