সুরমা এক্সপ্রেস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সুরমা এক্সপ্রেস
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
পরিষেবা ধরনমেইল ট্রেন
বর্তমান পরিচালকবাংলাদেশ রেলওয়ে
যাত্রাপথ
শুরুকমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন
শেষসিলেট রেলওয়ে স্টেশন
যাত্রার গড় সময়১৩ ঘণ্টা
পরিষেবার হারদৈনিক
রেল নং০৯/১০
যাত্রাপথের সেবা
শ্রেণীআছে
আসন বিন্যাসআছে
ঘুমানোর ব্যবস্থানাই
অটোরেক ব্যবস্থানাই
খাদ্য সুবিধানাই
পর্যবেক্ষণ সুবিধাআছে
বিনোদন সুবিধাআছে
মালপত্রের সুবিধাআছে
কারিগরি
ট্র্যাক গেজ১,০০০ মিলিমিটার (৩ ফুট   ইঞ্চি)

সুরমা মেইল (ট্রেন নাম্বার-০৯/১০( বাংলাদেশ রেলওয়ে পরিচালিত একটি যাত্রীবাহী ট্রেন। ট্রেনটি কমলাপুর থেকে সিলেট যাত্রাপথে গাজীপুর জেলা, নরসিংদী জেলা, কিশোরগঞ্জ জেলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা হবিগঞ্জ জেলামৌলভীবাজার জেলাকে সংযুক্ত করে।[১][২]

যাত্রাপথ

সুরমা এক্সপ্রেস, কমলাপুর> টঙ্গী> নরসিংদী> ভৈরব> আাখাউড়া> কুলাউড়া> সিলেট মিটারগেজ রেলপথে চলাচল করে এবং যাত্রাপথে প্রায় সকল স্টেশনে যাত্রাবিরতি দেয়।

স্টেশন তালিকা

সুরমা এক্সপ্রেস যেসকল রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে চলাচল করে নিম্নে উল্লেখ করা হলো:

সময়সূচি

  • ঢাকা থেকে ছাড়ে রাত ১০টা ৫০ মিনিটে, সিলেট পৌঁছায় সকাল ১২টা ১০ মিনিটে।
  • সিলেট থেকে ছাড়ে সন্ধ্যা ৬টা ৪৫ মিনিটে, ঢাকা পৌঁছায় সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে।[৩]

তথ্যসূত্র

  1. "ভৈরবে সুরমা মেইল থেকে মাদকসহ ট্রেন পরিচালক আটক"Bangladesh Today। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ 
  2. প্রতিনিধি, উপজেলা। "মাধবপুরে রেলক্রসিংয়ে ট্রেন-ট্রাক সংঘর্ষে আহত ১"আজকের পত্রিকা - Ajker Patrika। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "ঢাকা টু সিলেট ট্রেনের সময়সূচী ও ভাড়ার তালিকা - ২০২০"আমার ট্রেন। ২০২০-০১-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-১১