সিলভিয়া চান্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সিলভিয়া চান্ট
জাতীয়তাব্রিটিশ
কর্মক্ষেত্রমানব ভূগোল, লিঙ্গ ও উন্নয়ন
প্রাক্তন ছাত্রকিংস কলেজ, কেমব্রিজ
ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন

সিলভিয়া চান্ট (২৪ ডিসেম্বর ১৯৫৮ - ১৮ ডিসেম্বর ২০১৯) [১] ছিলেন একজন ব্রিটিশ একাডেমিক যিনি লন্ডন অর্থনীতি ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান স্কুলের উন্নয়নমূলক ভূগোলের অধ্যাপক। [২][৩] তিনি অর্থনীতি স্কুলের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের এমএসসি নগরায়ন ও উন্নয়ন কর্মসূচির সহ-পরিচালক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন। [৪]

জীবনক্রম[সম্পাদনা]

তিনি কেমব্রিজ কিংস কলেজ থেকে স্নাতক (বিএ) এবং ১৯৮৮ সালে ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডন থেকে পিএইচডি অর্জন করেছেন। তার পিএইচডি সন্দর্ভটির শিরোনাম ছিলো লাস অলভিদাদাস: মেক্সিকোর ক্যারেটারোর আবাসন, নারী ও পারিবারিক কাঠামো সংক্রান্ত একটি গবেষণা। লন্ডন অর্থনীতি স্কুলে (লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্স) যোগদানের আগে ১৯৮৭ সাল থেকে ১৯৮৮ সাল অবধি লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল এবং লাতিন আমেরিকান স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক ছিলেন তিনি। ক্যান্সারের সাথে দীর্ঘ লড়াইয়ের পরে ২০১৯ সালে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

অবদানসমূহ[সম্পাদনা]

তিনি লিঙ্গায়েত এবং উন্নয়ন গবেষণায় বিশেষভাবে কাজ করেছিলেন। বিশেষত 'দারিদ্র্যের নারীবাদ' এবং শহুরে অঞ্চলে জীবিকা নির্বাহ ও কর্মসংস্থান' ছিলো তার অন্যতম গবেষণার বিষয়। তিনি এই সম্পর্কে কোস্টারিকা, মেক্সিকো, ফিলিপাইন এবং গাম্বিয়ায় কাজ করেছিলেন। এর মধ্যে গাম্বিয়াতে তিনি মহিলাদের খৎনা বা যৌনাঙ্গে বিচ্ছেদের প্রতিরোধেও কাজ করেছেন। [৫]

তিনি ২০১০ লিঙ্গায়েত ও দারিদ্র্যের আন্তর্জাতিক হ্যান্ডবুক: ধারণা, গবেষণা, নীতি (ইন্টারন্যাশনাল হ্যান্ডবুক অব জেন্ডার অ্যান্ড পোভার্টি: কনসেপ্টস, রিসার্চ, পলিসি) শিরোনামে একটি রচনা সম্পাদনা করেছিলেন।[৬]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

• ২০১১ সালে রয়েল সোসাইটি অব আর্টস কর্তৃক ফেলোশিপ

• ২০১৬ সালে সামাজিক বিজ্ঞান একাডেমির ফেলোশিপ

• ২০০৩-২০০৬ মেয়াদে লেভারহ‌ুম প্রধান গবেষণা ফেলোশিপ

• ২০১৩-২০১৫ মেয়াদে গোথেনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের টেকসই উন্নয়ন বিষয়ক অ্যাডলবার্টস্কা অতিথি অধ্যাপক নিযুক্ত

প্রকাশনা[সম্পাদনা]

দক্ষিণ বিশ্বে শহর, বস্তি এবং লিঙ্গায়েত: একটি নারীবান্ধব শহুরে ভবিষ্যতের দিকে (ক্যাথি ম্যাকইলওয়াইনের সাথে) (রাউটলেজ, ২০১৫)

• (সম্পাদনা) লিঙ্গায়েত এবং দারিদ্র্যের আন্তর্জাতিক হ্যান্ডবুক: ধারণা, গবেষণা, নীতি (এলগার, ২০১০)।

একবিংশ শতাব্দীর উন্নয়নের ভৌগলিকাসমূহ (ক্যাথি ম্যাকইলওয়াইনের সাথে) (এলগার, ২০০৯)

লিঙ্গায়েত, প্রজন্ম এবং দারিদ্র্য: আফ্রিকা, এশিয়া এবং লাতিন আমেরিকার 'দারিদ্র্যের নারীবাদ' অন্বেষণ (এলগার, ২০০৭)

লাতিন আমেরিকায় লিঙ্গায়েত (নিক্কী ক্র্যাসকের সহযোগিতায়) (লাতিন আমেরিকা ব্যুরো, ২০০৩)

লাতিন আমেরিকার জেনেরো এন ল্যাটিনোমেরিকা (Genero en Latinoamerica in Latin America) ( নিক্কি ক্র্যাসকের সহযোগিতায় ) (পাবলিকাসিওনস দে লা কাসা চাতা, ২০০৭)

লিঙ্গায়েত এবং উন্নয়নে মূলধারার পুরুষেরা (ম্যাথিউ গাটম্যানের সাথে) (অক্সফাম, ২০০০)

তিন প্রজন্ম, দুই লিঙ্গ, এক বিশ্ব (ক্যাথি ম্যাকইলওয়াইনের সাথে) (জেড, ১৯৯৮)

নারী-নেতৃত্বাধীন গৃহস্থালি: উনৃনয়নশীল বিশ্বের বৈচিত্র্য এবং অগ্রগতি (ম্যাকমিলান, ১৯৯৭; ১৯৯৯ সালে পুনঃপ্রকাশিত)

স্বল্প মূল্যের নারী: নারীশ্রম, বৈদেশিক বিনিময় এবং ফিলিপাইনের অগ্রগতি (ক্যাথি ম্যাকইলওয়াইনের সাথে) (প্লুটো, ১৯৯৫)

• (সম্পাদনা) উন্নয়নশীল দেশগুলোতে লিঙ্গায়েত এবং অভিবাসন (বেলহ্যাভেন, ১৯৯২)

• (সম্পাদনা) লিঙ্গায়েত, দারিদ্র্য ও উন্নয়নের উপর রাউটলেজের প্রধান কাজসমূহ (৪ খণ্ড) (গেন্ডোলিন বিথামের সাথে) (রাউটলেজ, ২০১৫)

মেক্সিকোর শহরগুলিতে নারী এবং উত্তরজীবিতা (ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটি প্রেস, ১৯৯১)

তৃতীয় বিশ্বের নারীরা: পল্লী ও নগর অঞ্চলে লিঙ্গায়েতজনিত সমস্যা (লিন ব্রায়ডনের এবং সিলভিয়া চান্ট) (এলগার, ১৯৮৯; ১৯৯৩ সালে পুনঃপ্রকাশিত)

জনগোষ্ঠীর নেতৃত্ব এবং স্ব-সহায়ক আবাসন (পিটার ওয়ার্ড এবং সিলভিয়া চান্ট) (পার্গামন ১৯৮৭)

লিঙ্গায়েত, নগর উন্নয়ন ও আবাসন (ইউএনডিপি, ১৯৯৬)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://blogs.lse.ac.uk/condolences/2020/01/07/sylvia-chant-24-december-1958-18-december-2019/  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  2. Science, London School of Economics and Political। "Department of Gender Studies"lse.ac.uk 
  3. "UNESCO"unesco.org। ২০১৫-১২-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-৩০ 
  4. Science, London School of Economics and Political। "Department of Geography and Environment"lse.ac.uk 
  5. Services, Web। "The Politics of FGM: The Influence of External and Locally-Led Initiatives in The Gambia - Public lectures and events"lse.ac.uk 
  6. Chant, Sylvia H (৬ এপ্রিল ২০১৮)। "The international handbook of gender and poverty: concepts, research, policy"। Edward Elgar – Open WorldCat-এর মাধ্যমে। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]