সাদাও আরাকি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সাদাও আরাকি
Araki Sadao.jpg
স্থানীয় নাম
荒木 貞夫
জন্ম(১৮৭৭-০৫-২৬)২৬ মে ১৮৭৭
কোমা,টোকিও, জাপান
মৃত্যুটেমপ্লেট:মৃত্য তারিখ ও বয়স
আনুগত্যজাপান সাম্রাজ্য
সার্ভিস/শাখাইম্পেরিয়াল জাপানিজ আর্মি
কার্যকাল১৮৯৮–১৯৩৬
পদমর্যাদাজেনারেল
নেতৃত্বসমূহ৬ষ্ঠ ডিভিশন
যুদ্ধ/সংগ্রাম
পুরস্কার
অন্য কাজযুদ্ধমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী

ব্যারন সাদাও আরাকি (荒木 貞夫, আরাকি সাদাও, ২৬ মে ১৮৭৭- ২ নভেম্বর ১৯৬৬) দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন এবং এর পূর্বে ইম্পেরিয়াল জাপানিজ আর্মিতে একজন জেনারেল ছিলেন।তিনি ছিলেন জাপান সাম্রাজ্যের অন্যতম মুখ্য ডানপন্থী জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক তত্ত্বদাতা । তাকে ইম্পেরিয়াল জাপানিজ আর্মির রাজনৈতিক মৌলবাদী বিভাজনএর নেতা গণ্য করা হত ।তিনি প্রধানমন্ত্রী ইনুকাই এর অধীনে যুদ্ধমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি কোনো এবং হিরানুমা প্রশাসনের অধীনে শিক্ষা মন্ত্রী হিসাবে কর্মরত ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর তার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধএর অভিযোগ আনা হয় এবং যাবজ্জীবন সাজা দেয়া হয়।

প্রাথমিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

আরাকি কোমা,টোকিও তে জন্মগ্রহণ করেন।তার পিতা তোকুগাওয়া পরিবারের হিতোৎসুবাসি শাখার একজন প্রাক্তনসামুরাই ছিলেন।আরাকি নভেম্বর ১৮৯৭ এ ইম্পেরিয়াল জাপানিজ আর্মি একাডেমী থেকে উত্তীর্ণ হন এবং পরবর্তী জুনে সেকেন্ড লেফট্যানান্ট হিসাবে নিযুক্ত হন। ১৯০০ সালে লেফটেন্যান্ট এবং ১৯০৪ এর জুনে ক্যাপ্টেন হবার পর আরাকি রুশ-জাপানি যুদ্ধে ১ম ইম্পেরিয়াল রেজিমেন্টএর কোম্পানি কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন। যুদ্ধের পরে আরাকি ফিরে গিয়ে আর্মি স্টাফ কলেজ থেকে ক্লাসের সেরা হিসাবে উত্তীর্ণ হন। তিনি এপ্রিল ১৯০৮ এ ইম্পেরিয়াল জাপানিজ আর্মি জেনারেল স্টাফ হিসাবে এবং রাশিয়াতে নভেম্বর ১৯০৯ থেকে মে ১৯১৩ পর্যন্ত ভাষা কর্মকর্তা হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তাকে সেন্ট পিটার্সবার্গের সামরিক সহদূত নিযুক্ত করা হয়। ১৯০৯ এর নভেম্বরে তিনি মেজর ও ১৯১৫ এর আগস্টে লেফট্যানান্ট কর্নেলে উন্নীত হন। কোয়ান্তাং আর্মি তে এসাইন করা হয় তাকে।১৯১৮ এর ২৪ জুলাই কর্নেল হবার পর, আরাকি ভ্লাদিভস্তকে অভিযাত্রী আর্মি সদরদপ্তরে ১৯১৮-১৯ পর্যন্ত স্টাফ অফিসার হিসাবে কর্মরত ছিলেন। এসময় জাপানিরা বলশেভিক লাল ফৌজের বিরুদ্ধে সাইবেরীয় হস্তক্ষেপ করছিল। আরাকি আইজেএ ২৩তম পদাতিক রেজিমেন্টে সেনাধ্যক্ষ ছিলেন। সাইবেরিয়াতে থাকাকালীন আরাকি রুশ দূর প্রাচ্য এবং বৈকাল হ্রদে একাধিক গুপ্ত অভিযান পরিচালনা করেন।

১৯৪৫ এর পর[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর মার্কিন আধিপত্য কর্তৃপক্ষ আরাকিকে গ্রেপ্তার করে এবং দূর প্রাচ্য সম্পর্কিত আন্তর্জাতিক সেনা ট্রাইব্যুনাল এর সামনে হাজির করা হয়। সেখানে তার বিরুদ্ধে প্রথম শ্রেণির যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ আনা হয়। তিনি দোষী সাব্যস্ত হন এবং তাকে আগ্রাসী যুদ্ধ ঘোষণা ষড়যন্ত্রের অপরাধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়। কিন্তু পরবতীতে স্বাস্থ্য জনিত কারণে তাকে সুগামো জেল থেকে মুক্তি দেয়া হয়। [১] অন্যান্য জাপানি সহযোদ্ধার মত কাজোকু বিলোপের পর তার কাছ থেকে খেতাব কেড়ে নেয়া হয়। আরাকি ১৯৬৬ তে মারা যান।তার সমাধিস্থল টোকিও এর ফুচুতে টামা কবরস্থানে অবস্থিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বই[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. Maga, Judgment at Tokyo: The Japanese War Crimes Trials
রাজনৈতিক দপ্তর
পূর্বসূরী
Kōichi Kido
Education Minister
May 1938 – Aug 1939
উত্তরসূরী
Kakichi Kawarada
পূর্বসূরী
Kazushige Ugaki
Minister of War
Apr 1931 – Dec 1931
উত্তরসূরী
Senjūrō Hayashi
সামরিক দপ্তর
পূর্বসূরী
Senjuro Hayashi
Commandant, Army War College
Aug 1928 – Aug 1929
উত্তরসূরী
Jirō Tamon