সাজ্জাদুল হাসান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাজ্জাদুল হাসান 
সাজ্জাদুল হাসান.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম২৫ মে, ১৯৭৮ 
খুলনা, বাংলাদেশ 
মৃত্যু১৬ মার্চ, ২০০৭
কার্তিকডাঙ্গা, বাংলাদেশ 
ডাকনামসেতু 
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০০-২০০৭ খুলনা বিভাগ 
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা প্রথম শ্রেণী  তালিকা ক
ম্যাচ সংখ্যা ৫০ ৩৯
রানের সংখ্যা ২৪৪৩ ৬৮০
ব্যাটিং গড় ২৮.০৮ ১৮.৩৭
১০০/৫০ ৩/১২ ১/২
সর্বোচ্চ রান ১৪৭ ১০৬ (অপরাজিত) 
বল করেছে ৪৪৪ ৬৯০
উইকেট ১৭
বোলিং গড় ৫৬.৫০ ৩০.৬৪
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a
সেরা বোলিং ২/৪৫ ৪/১৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২৫।১ ১৮/–
উৎস: CricketArchive, ৫ সেপ্টেম্বর  ২০০৯ 

মোহাম্মাদ সাজ্জাদুল হাসান ছিলেন বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটার। তিনি খুলনা বিভাগীয় দলের টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান ছিলেন। ২০০২-২০০৩ সালে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে তিনি অন্যতম সেরা রান সংগ্রাহকদের একজন তিনি।

জন্ম[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ সাজ্জাদুল হাসানের জন্ম খুলনায়। তিনি ১৯৭৮ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তার ডাকনাম 'সেতু'।

ক্রিকেটে পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

তিনি ২০০২ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত খুলনা বিভাগীয় দলে খেলেছেন। ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটেও খেলেছেন তিনি। এছাড়াও খেলেছেন ধানমণ্ডি ক্লাব, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও সিটি ক্লাবে।[১] প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে ৫০টি ম্যাচ খেলে তিনি ২৪৪৩ রান সংগ্রহ করেন, তার গড় ছিলো ২৮.০৮। তিনি মোট ৩ বার শত রান ও ১২ বার অর্ধশত রান করেন। তার সর্বোচ্চ রান ছিলো ১৪৭।

অধিনায়কত্ব[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ সাজ্জাদুল হাসান খুলনা বিভাগীয় দলে দুইবার অধিনায়ক ছিলেন। কিন্তু দুইবারই পরাজিত হয়েছলেন, যার মধ্যে একবার রাজশাহী বিভাগ ও পরেরবার চট্টগ্রাম বিভাগের বুরুদ্ধে।[২].[৩]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০০৭ সালের ১৬ মার্চ তারিখে মাত্র ২৮ বছর বয়সে মোহাম্মাদ সাজ্জাদুল হাসান মারা গেছেন। একটি ভয়াবহ সড়ক দূর্ঘটনায় মানজারুল ইসলাম রানার সাথে তিনি মারা যান।[৪][৫]

স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ সাজ্জাদুল হাসান ও মঞ্জরুল ইসলাম রানাকে ২০১৬ সালে খুলনা টাইটান্সের আইকন খেলোয়াড় হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিলো।[৬] খুলনা টাইটানসের জার্সিতে বিপিএলের সময় জার্সির হাতায় মানজারুল ইসলাম রানা ও সাজ্জাদুল হাসান সেতুর নাম লেখা ছিলো।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "কেউ মনে রাখেনি সেতুকে - bdnews24.com"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০২  line feed character in |শিরোনাম= at position 24 (সাহায্য)
  2. "Khulna Division v Rajshahi Division in 2003/04"। CricketArchive। ১৩ জানুয়ারি ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০০৭ 
    "Chittagong Division v Khulna Division"। CricketArchive। ৬ মার্চ ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০০৭ 
  3. The manner in which he gained this stumping is not clear. He is not listed as Khulna's wicket-keeper for the match, and the scorecard does not note any circumstances under which it occurred.
    "Chittagong Division v Khulna Division in 2005/06"। CricketArchive। ২৩ নভেম্বর ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুন ২০০৭ 
  4. "Sajjadul Hasan"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০২ 
  5. "মনে পড়ে রানা মনে পড়ে সেতু"। ২০১৮-০২-০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০২ 
  6. "সাবেক জাতীয় ক্রিকেটার রানা ও সেতু খুলনা টাইটান্সের আইকন"The Daily Sangram। ২০১৮-০২-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০২ 
  7. "খুলনার জার্সিতে আবেগের দুটি নাম"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]