সরকারী বিজ্ঞান কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সরকারী বিজ্ঞান কলেজ
সরকারি বিজ্ঞান কলেজ লোগো
অবস্থান
তেজগাঁও, ঢাকা
বাংলাদেশ
তথ্য
ধরনসরকারি
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৫৪
অধ্যক্ষবনমালী মোহন ভট্টাচার্য
শ্রেণীএকাদশ -দ্বাদশ
শিক্ষার্থী সংখ্যা২৪০০
ক্যাম্পাসের আকার০৯ একর

সরকারি বিজ্ঞান কলেজ (ইংরেজি: Government Science College ) বাংলাদেশের ঢাকার ফার্মগেট এলাকায় অবস্থিত। প্রথমে ইন্টারমেডিয়েট টেকনিক্যাল কলেজ নাম ছিল। ০৯ একর ভূমির উপর স্থাপিত এই কলেজ। এটিতে বিজ্ঞান ও ব্যবসায়ে শিক্ষা বিষয়ের উপরও পাঠদান করে। এখানে এইচ এস সি পর্যন্ত অধ্যয়নের সুযোগ আছে। কলেজে প্রকৌশল অঙ্কন বিষয়টি পড়ার সুযোগ রয়েছে।[১][২][৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

কলেজটি ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দে টেকনিক্যাল হাই স্কুল নামে যাত্রা শুরু করে। ১৯৬২ খ্রিস্টাব্দে ইন্টারমেডিয়েট টেকনিক্যাল কলেজ হিসেবে পুন:নামকরন করা হয়। ১৯৮৫ খ্রিস্টাব্দে বি.এসসি কোর্স চালুর মাধ্যমে সরকারি বিজ্ঞান কলেজ হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।[৪] ২০০৯ সাল থেকে এই কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের পাশপাশি ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগটিও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তবে ২০১৩ সনে তা আবার বন্ধ ঘোষণা করা হয়।২০১৯ সালের প্রথম থেকে আবার অনার্স ও মাস্টার শাখা চালু হয়েছে । ভর্তি কার্যতক্রম ১লা জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে ।

বিভাগ সমূহ[সম্পাদনা]

বিজ্ঞান বিভাগ

পঠিত বিষয় সমূহঃ বাংলা, ইংরেজি, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞান এবং প্রকৌশল অঙ্কন। উল্লেখ্য, যে স্বল্প সংখ্যক কলেজে প্রকৌশল অঙ্কন বিষয়টি পড়ার সুযোগ রয়েছে, তার মধ্যে সরকারি বিজ্ঞান কলেজ অন্যতম।

ভর্তি ও বেতন[সম্পাদনা]

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক জারীকৃত নীতিমালা অনুযায়ী ভর্তি করা হয়ে থাকে কলেজে। সরকার কর্তৃক নির্ধারিত বেতন ও ফি নেয়া হয় ।

শ্রেণি ও শাখা[সম্পাদনা]

আটটি শাখায় একশত পঞ্চাশজন করে মোট বারশত ছাত্র এখানে পড়াশোনার সুযোগ পেয়ে থাকে।

পোশাক[সম্পাদনা]

গাঢ় নীল শার্ট, অফ হোয়াইট প্যান্ট, কালো মোজা, কালো জুতা, আর শীতের সময়ে নীল সোয়েটার।

আবাসন ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

কলেজের সর্বমোট দুটি হোষ্টেল রয়েছে। প্রথম বর্ষের ছাত্রদের জন্য ড. কুদরত-ই-খুদা হোষ্টেল ও দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রদের জন্য কাজী নজরুল ইসলাম হোষ্টেল রয়েছে।দুই হোস্টেল এ সর্বমোট আসন সংখ্যা প্রায় ৩০০।খাবারের মান ভালো।হোস্টেলে প্রথমে ১৮০০০ দিয়ে ভর্তি হতে হয় পরে প্রতি দিন ১০০টাকা খাবার ফিঃ মাস শেষে খাবার এর জন্য ৩০০০/- নেয়।থাকার জন্য কোনো ফিঃ লাগেনা।১ম শ্রেনী পরিক্ষায় উত্তীর্ণ হলে আবেদনকারীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হয় এবং আলোচনা স্বাপেক্ষে সিট বরাদ্দ দেওয়া হয়।

সহশিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

ছাত্রদের পড়াশোনার পাশাপাশি নৈতিক উন্নয়ন ও তাদের মাঝে নেতৃত্বের গুণাবলী বিকাশের লক্ষে চালু আছে সরকারি বিজ্ঞান কলেজ বিএনসিসি প্লাটুন (GSCBNCC)। এছাড়া ছাত্রদের সহশিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসাবে কলেজের নিজস্ব বিতর্ক ক্লাব 'সরকারী বিজ্ঞান কলেজ বিতর্ক ক্লাব' (GSCDC), সরকারী বিজ্ঞান কলেজ বিজ্ঞান ক্লাব (GSCSC)[তথ্যসূত্র প্রয়োজন], ফটোগ্রাফি ক্লাব (GSCPC),স্পোর্টস ক্লাব(GSCSPC),তথ্য প্রযুক্তি ক্লাব(GSCITC) ও সাংস্কৃতিক ক্লাব(GSCCC) রয়েছে। তাছাড়া,কলেজে সাপ্তাহিক কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। প্রতিটি উল্লেখযোগ্য দিন যথাযথ মর্যাদার ও নির্দিষ্ট কর্মসূচীর সাথে পালন করা হয়ে থাকে।

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন শিক্ষার্থী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, তেজগাঁও, ঢাকা"gsctd.edu.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ 
  2. "নামেই বিজ্ঞান কলেজ!"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ 
  3. "সমস্যার পাহাড়ে ধুঁকছে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ১০ সরকারী কলেজ || প্রথম পাতা"জনকন্ঠ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ 
  4. "GSC"govtsciencecollege.com। ৯ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১১