সঞ্জীবচন্দ্র রায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
সঞ্জীবচন্দ্র রায়
Sanjib Roy.jpg
সঞ্জীবচন্দ্র রায়
জন্ম আশ্বিন, ১২৯৫
কিশোরগঞ্জ, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু ভাদ্র, ১৩২৩ বংগাব্দ
জাতিসত্তা বাঙালি
নাগরিকত্ব ব্রিটিশ ভারতীয়
পাকিস্তানী
আন্দোলন ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলন
ধর্ম হিন্দু

সঞ্জীবচন্দ্র রায় (ইংরেজি: Sanjibchandra Roy) (আশ্বিন, ১২৯৫ - ভাদ্র, ১৩২৩ বংগাব্দ) ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের ব্রিটিশ বিরোধী স্বাধীনতা আন্দোলনের একজন অন্যতম ব্যক্তিত্ব এবং অগ্নিযুগের বিপ্লবী।শহীদ তিনি ময়মনসিংহের বিপ্লবী সংস্থা সাধনা সমিতির বিশিষ্ট কর্মী ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ব্রিটিশ রাজের কারাদণ্ড এবং নানা নির্যাতন ভোগ করেন।[১]

জন্ম[সম্পাদনা]

সঞ্জীবচন্দ্র রায়ের জন্ম কিশোরগঞ্জ জেলার কায়স্থপল্লিতে।[২]

বিপ্লবী কর্মকাণ্ড[সম্পাদনা]

সঞ্জীবচন্দ্র রায় অল্প বছর বয়সে গুপ্ত বিপ্লবী দলে যোগ দেন। এপ্রিল, ১৯১৬ সালে গোপনে থাকাকালে পুলিস তাঁকে স্বগৃহে না পেয়ে অনুসন্ধান চালায় এবং শহর থেকে দূরে রিভলভার ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করে। ১৩ জুলাই, ১৯১৬ সালে বিচারে ২ বছর তাঁর সশ্রম কারাদণ্ড হয়। কারাগারে প্রচণ্ড নির্যাতনের ফলে তাঁর মৃত্যু ঘটে।[২]

সাধনা সমিতির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ[সম্পাদনা]

সঞ্জীবচন্দ্র রায় ছাড়াও সাধনা সমিতির অন্যান্য সদস্য ছিলেন হেমেন্দ্রকিশোর আচার্য চৌধুরী, সুরেন্দ্রমোহন ঘোষ, শ্যামানন্দ সেন, সিধু সেন, পৃথ্বীশচন্দ্র বসু, কোহিনুর ঘোষ, বিনোদচন্দ্র চক্রবর্তী, মহেন্দ্রচন্দ্র দে, আনন্দকিশোর মজুমদার, ভক্তিভূষণ সেন, ক্ষিতীশচন্দ্র বসু, মনোরঞ্জন ধর, সুধেন্দ্র মজুমদার, মতিলাল পুরকায়স্থ, মোহিনীশঙ্কর রায়, দ্বিজেন্দ্র চৌধুরী ননী, ও নগেন্দ্রশেখর চক্রবর্তী। এঁদের সকলেই বহু বৎসর কারাগারে ও অন্তরীণে আবদ্ধ ছিলেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী, জেলে ত্রিশ বছর, পাক ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রাম, ধ্রুপদ সাহিত্যাঙ্গন, ঢাকা, ঢাকা বইমেলা ২০০৪, পৃষ্ঠা ২২১-২২২।
  2. সুবোধ সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত, সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, প্রথম খণ্ড, সাহিত্য সংসদ, কলকাতা, নভেম্বর ২০১৩, পৃষ্ঠা ৭৪০, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৭৯৫৫-১৩৫-৬