সংবাদবিজ্ঞপ্তি মঞ্চ ব্যবস্থা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

একটি সংবাদবিজ্ঞপ্তি মঞ্চ ব্যবস্থা বা বিবিএস হল একটি কম্পিউটার সার্ভার যাতে চাহিদা মোতাবেক সফটওয়্যার চালানো হয় যেটি ব্যবহারকারিদের টার্মিনাল প্রোগ্রাম দ্বারা সংযুক্ত হবার সুযোগ দেয়। একবার প্রবেশ করলে ব্যবহারকারি সফটওয়্যার ও ডাটা আপলোড ডাউনলোড করতে পারে, খবর এবং বিজ্ঞপ্তি পড়তে পারে এবং অন্যদের সাথে ইমেইল, উন্মুক্ত বার্তা মঞ্চ এবং কখনো কখনো সরাসরি চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে বার্তা বিনিময় করতে পারে। অনেক বিবিএস অন-লাইন গেমস খেলার সুবিধা প্রদান করে যেখানে ব্যবহারকারি অন্য ব্যবহারকারির সাথে প্রতিযোগীতা করতে পারে। আবার কিছু বিবিএসে বহু ফোন লাইনের মাধ্যমে চ্যাট কক্ষের সুবিধা দেয় যেখানে ব্যবহারকারিরা একে অন্যের সাথে সক্রিয় মিথস্ক্রিয়া করতে পারে। আজকের আধুনিক ওয়াল্ড ওয়াইড ওয়েব, সামাজিক নেটওয়ার্ক এবং ইন্টারনেটের অন্যান্য বিষয়ের সংবাদবিজ্ঞপ্তি মঞ্চ ব্যবস্থা ছিল অগ্রদূত। কম খরচ, উচ্চ কার্যক্ষমতার মডেম ১৯৯০ দশকের অনলাইনের চালিকা ছিল যার মধ্যে অনলাইন সেবা এবং বিবিএসও ছিল। ১৯৯৪ সালে ইনফোওর্য়াল্ড হিসেব করে ৬০০০০ হাজারেরও বেশি বিবিএস ব্যবস্থা সেবা দিচ্ছে ১৭ মিলিয়ন আমেরিকান ব্যবহারকারিকে শুধুমাত্র আমেরিকাতে যা প্রধান অনলাইন সেবা প্রদানকারি কম্পিউসার্ভ থেকে সামষ্টিকভাবে বড়।

কম দামি ডায়াল আপ ইন্টারনেট সেবা ব্যবস্থা এবং মোজাইক ব্রাউজারের সম্মিলনে সহজ এবং বৈশ্বিক সংযোগের সুযোগ ঘটে যা বিবিএস এবং অনলাইন ব্যবস্থা দিতে পারেনি এবং তাতে ১৯৯৪ সালে দ্রুত পতন ঘটে শেয়ার বাজারে। তার পরের বছর জুড়ে অনেক নামিদামি বিবিএস সফটওয়্যার সরবরাহকারি দেউলিয়া হয় এবং প্রায় দশ হাজারের বেশি বিবিএস হারিয়ে যায়। বর্তমানে, বিবিএস আসলে অতীতস্মৃতি কাতরতার অংশ হিসেবে শৌখিনভাবে সারা বিশ্বে বেচে আছে। তাইওয়ান ও চীনের যুবাদের কাছে এটি যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে এখনো অত্যন্ত জনপ্রিয়। [১] বেশিরভাগ বিবিএসই এখন টেলনেট দিয়ে সংযুক্ত হওয়া যায় এবং সাধারণত এতে বিনামূল্যে ইমেইল একাউন্ট, এফটিপি সেবা, আইআরসি এবং অন্যান্য সকল যোগাযোগ প্রটোকল যা ইন্টানেটে সাধারণত ব্যবহৃত হয় তার সুবিধা রয়েছে। কিছু কিছু প্যাকেট সুইচড নেটওয়ার্ক বা প্যাকেট রেডিও সংযোগের মাধ্যমে প্রবেশ সুবিধা দেয়।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

একটি মানসম্পন্ন বিবিএসে যে বৈশিষ্ট থাকে:

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

উৎস[সম্পাদনা]

বহিঃ সংযোগ[সম্পাদনা]