সংঘ লোক সেবা আয়োগ (ইউ. পি. এস. সি.)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

স্থানাঙ্ক: ২৮°৩৬′২৯″ উত্তর ৭৭°১৩′৩৬″ পূর্ব / ২৮.৬০৮০৬° উত্তর ৭৭.২২৬৬৭° পূর্ব / 28.60806; 77.22667

সংঘ লোক সেবা আয়োগ
(ইউ. পি. এস. সি.)
Emblem of India.svg
সংক্ষেপে ইউ. পি. এস. সি.
গঠিত ১ অক্টোবর ১৯২৬
ধরণ ভারত সরকার
সদর দপ্তর ধলপুর হাউস, শাহ জাহান রোড, নতুন দিল্লী
অবস্থান
  • ধলপুর হাউস, শাহ জাহান রোড, নতুন দিল্লী, ১১০০৬৯
অঞ্চলগত সেবা ভারত
অধ্যক্ষ শ্রী দীপক গুপ্তা
প্রধান প্রতিষ্ঠান ভারত সরকার
ওয়েবসাইট www.upsc.gov.in/

সংঘ লোক সেবা আয়োগ হল ভারত সরকার দ্বারা স্থাপিত একটি কেন্দ্রীয় সংস্থা যা অসামরিক পরিষেবা পরীক্ষা, অভিযান্ত্রিক পরিষেবা পরীক্ষা, চিকিৎসা পরিষেবা পরীক্ষা, রাষ্ট্রীয় সামরিক একাডেমি পরীক্ষা (এন ডি এ) ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত করে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯২৪ সালে ভারতে ব্রিটিশ শাসনের সময়ে উপযুক্ত জন পরিষেবার ভিত্তিতে লর্ড লীর অধ্যক্ষতায় গঠিত তদানীন্তন রাজকীয় আয়োগ ভারতে রাজত্ব সেবা আয়োগ গঠনের প্রতিবেদন প্রসারিত করে। এর ফলে ১৯২৬ সালে স্যার রোস বার্কারের অধ্যক্ষতায় ভারতের প্রথম লোকসেবা আয়োগ গঠন হয়। কিন্তু উক্ত আয়োগকে বৃটিশ সরকার সীমিত পরামর্শমূলক শক্তি দেয়, যা ভারতীয় মুক্তি যোদ্ধারা প্রবল বিরোধিতা করেছিল। ১৯৩৫ সালে গঠিত "গভর্মেন্ট অব ইণ্ডিয়া অ্যাক্ট"এর ফলস্বরূপ উক্ত আয়োগকে সম্বন্ধীয় লোক সেবা আয়োগ (ফেডারেল পাব্লিক সার্ভিস কমিশন) হিসাবে নতুন নামকরণ করা হয়। স্বাধীনতার পরে উক্ত আয়োগ "সংঘ লোক সেবা আয়োগ" (ইউনিয়ন পাব্লিক সার্ভিস কমিশন) হিসাবে আত্মপ্রকাশ ঘটে এবং ২৬ জানুয়ারী ১৯৫০ সালে একে সাংবিধানিক মর্যাদা প্রদান করা হয়।

প্রশাসন ও নিয়ন্ত্রণ[সম্পাদনা]

"ইউ.পি.এস.সি."র একজন অধ্যক্ষ সহ দুই জন সদস্য থাকে। উক্ত আয়োগের নীতি-নির্দেশনা "সংঘ লোক সেবা আয়োগ (সদস্য) অধিনিয়ম,১৯৬৯"এর ভিত্তিতে পরিচালিত হয়। আয়োগের অধ্যক্ষ এবং অন্য সদস্যদের ভারতের রাষ্ট্রপতির দ্বারা নিয়োগ করা হয়। আয়োগের নূন্যতম অর্ধেক সদস্য প্রাক্তন বা বর্তমান অসামরিক কর্মী যার কেন্দ্রীয় বা রাজ্যিক প্রশাসনীয় ক্ষেত্রে কমকরে দুই বছরের অভিজ্ঞতা আছে।

সদস্য[সম্পাদনা]

বর্তমানে (১৫ জানুয়ারী থেকে) উক্ত আয়োগে একজন অধ্যক্ষের সঙ্গে আট জন সদস্য আছে ।[১] তাঁরা হলেন :-

  1. শ্রীমতী অলকা আরোহী (আই. এ. এস- মধ্য প্রদেশ কেডার)
  2. প্রফেছর ডেভিদ এম সায়েমলেহ, শিক্ষবিদ (আর জি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য)
  3. শ্রী মহাবীর সিং , প্রাক্তন আই. এফ. এস
  4. ভাইস এডমিরেল (অবসরপ্রাপ্ত) ডি কে দেওয়ান
  5. শ্রী বিনয় মিট্টল, রেলওয়ে বোর্ডের প্রাক্তন অধ্যক্ষ
  6. ড: (শ্রীমতী) পি কিলেমশ্বুংলা, ভারতীয় শিক্ষাবিদ
  7. শ্রী সটর সিং , হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর প্রাক্তন প্রিন্সিপাল সেক্রেটারী
  8. প্রফেসর হেমচন্দ্র গুপ্তা, আই.আই.টি.-দিল্লী প্রাক্তন প্রবক্তা

[২] [৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]