শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস
২০১৩ সালে মস্কোতে শেলি-অ্যান ফ্রেজার
ব্যক্তিগত তথ্য
জাতীয়তা জামাইকা
জন্ম (১৯৮৬-১২-২৭) ২৭ ডিসেম্বর ১৯৮৬ (বয়স ৩১)
কিংসটন, জামাইকা
বাসস্থানকিংসটন, জামাইকা
উচ্চতা১.৫২ মিটার (৫ ফুট ০ ইঞ্চি)[১]
ওজন৫২ কিলোগ্রাম (১১৫ পাউন্ড; ৮.২ স্টোন)
ক্রীড়া
ক্রীড়াদৌঁড়
ঘটনাসমূহ১০০ মিটার, ২০০ মিটার
ক্লাবএমভিপি ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড ক্লাব

শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস, ওডি (ইংরেজি: Shelly-Ann Fraser-Pryce; জন্ম: ২৭ ডিসেম্বর, ১৯৮৬[২]) কিংসটনে জন্মগ্রহণকারী জামাইকার ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড স্প্রিন্টার

অপরিচিত অ্যাথলেট হওয়া সত্ত্বেও ২১ বছর বয়সে তিনি চীনে অনুষ্ঠিত ২০০৮ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে প্রমিলাদের ১০০ মিটার দৌঁড়ে স্বর্ণপদক জয় করেন।[৩] এরফলে তিনি ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের প্রথম ক্রীড়াবিদ হিসেবে ১০০ মিটারে প্রথম স্বর্ণজয়ী মহিলা ক্রীড়াবিদের সম্মান লাভ করেন। এছাড়াও, লন্ডনে অনুষ্ঠিত ২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে একই ক্রীড়াবিষয়ে স্বর্ণ জয় করেন ও বিশ্বের ৩য় এবং আমেরিকার বাইরে ১ম মহিলা হিসেবে ধারাবাহিকভাবে দু’টি সোনাজয়ের ইতিহাস রচনা করেন।

ফেব্রুয়ারি, ২০১০ সালে ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত মনোনীত হন ফ্রেজার।[৪]

ক্রীড়াজীবন[সম্পাদনা]

২০০৯২০১৩ সালের বিশ্ব অ্যাথলেটিকস চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটার দৌঁড়ে স্বর্ণপদক জয় করেন ফ্রেজার। এছাড়াও গেইল ডেভার্সের পর তিনি বিশ্বের দ্বিতীয় মহিলা স্প্রিন্টার হিসেবে বিশ্ব ও অলিম্পিকের ১০০ মিটার দৌঁড়ে শিরোপা লাভ করেন। তার ডাক নাম পকেট রকেট যা তার মাত্র ৫ ফুট লম্বাটে গড়ন ও দ্রুততার সাথে দৌঁড় শুরু হবার জন্য এ নামকরণ করা হয়েছে। ১০০ মিটারে বিশ্বের সর্বকালের দ্রুতগামী শীর্ষ ২৫ মহিলা দৌঁড়বিদের তালিকায় তার অবস্থান চতুর্থ। ২০১২ সালে জামাইকার কিংসটনে ১০.৭০ সেকেন্ড নিয়ে তিনি তার নিজস্ব সেরা ব্যক্তিগত রেকর্ড স্থাপন করেন।[৫][৬]

২০১২ লন্ডন অলিম্পিকস[সম্পাদনা]

২০১২ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে প্রবেশের জন্য জামাইকার অলিম্পিক প্রস্তুতিমূলক দৌঁড়ের ১০০ মিটারে ১০.৭০ সেকেন্ডে অতিক্রম করে নিজস্ব জাতীয় রেকর্ডের উত্তোরণ ঘটান। প্রতিযোগিতায় আমেরিকান প্রতিযোগীনি কারমেলিটা জেটারকে ১০.৭৫ সেকেন্ডে হারান। স্বদেশী ভেরোনিকা ক্যাম্পবেল-ব্রাউন ব্রোঞ্জপদক পান।[৭] ২০০ মিটারের দৌঁড়ে নিজস্ব সেরা ২২.০৯ সেকেন্ড সময়ে পেরুলেও আলিসন ফেলিক্সের পিছনে থেকে রৌপ্যপদক জয় করেন।[৮] এছাড়াও তিনি তার দ্বিতীয় রৌপ্যপদক জয় করেন ৪×১০০ মিটার রিলেতে।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

পুরস্কার
পূর্বসূরী
ভেরোনিকা ক্যাম্পবেল ব্রাউন
বর্ষসেরা জামাইকার মহিলা ক্রীড়াবিদ
২০১২, ২০১৩
উত্তরসূরী
আলিয়া অ্যাটকিনসন
পূর্বসূরী
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র অ্যালিসন ফেলিক্স
আইএএএফ বিশ্বের বর্ষসেরা অ্যাথলেট
২০১৩
উত্তরসূরী
নিউজিল্যান্ড ভ্যালেরি অ্যাডামস
পূর্বসূরী
উসেইন বোল্ট
 জামাইকা পতাকাবাহক
রিও দি জেনেরিও ২০১৬
উত্তরসূরী
নির্ধারিত হয়নি