শিরোনামহীন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শিরোনামহীন
Shironamhin collage.jpg
প্রাথমিক তথ্য
উদ্ভব ঢাকা, বাংলাদেশ
ধরন রক
কার্যকাল ১৯৯৬-বর্তমান
লেবেল জি-সিরিজ, লেজার-ভিশন, সাইরেন, ইনকারশন মিউজিক
ওয়েবসাইট www.shironamhin.net
সদস্যবৃন্দ জিয়াউর রহমান
তানযির তুহিন
কাজী আহমাদ সাফিন
দিয়াত খান
রাসেল কবীর
প্রাক্তন সদস্যবৃন্দ জুয়েল
ফারহান
প্রিন্স
রাজিব
তুষার

শিরোনামহীন বাংলাদেশের একটি ব্যান্ড। ১৯৯৬ সালে এ ব্যান্ডটি প্রতিষ্ঠিত হয়।[১] তাঁরা ক্লাসিকাল এবং ফোঁক ধাঁচের গান করে থাকে। ১৯৯৬ সালে জিয়াউর রহমান জিয়া, জুয়েল এবং বুলবুল ব্যান্ডটি প্রতিষ্ঠা করেন। ২০০০ সালে তানযির তুহিন ভোকাল হিসেবে ব্যান্ডটিতে যোগ দেন। তাদের প্রথম এলবাম জাহাজী রিলিজ পেয়েছিলো ২০০৪ সালে। এই পর্যন্ত তারা ৫ টি অডিও এলবাম রিলিজ করেছে। তাদের সর্বশেষ এ্যালবাম শিরোনামহীন শিরোনামহীন ১৯ জুলাই ২০১৩ তে প্রকাশ পেয়েছে। ব্যান্ডটির বর্তমান সদস্যরা হলেন জিয়াউর রহমান জিয়া (বেজ এবং কম্পোজ), তানযির তুহিন (ভোকাল), দিয়াত খান (গিটার), আহমেদ সাফিন (ড্রামস), রাসেল কবীর (কি-বোর্ড)।

পশ্চিমা বাদ্যযন্ত্র এবং দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের সফল ব্যবহার তাদের আলাদা করেছে অন্য ব্যান্ডগুলি থেকে। দোতরা, সরোদ, বাঁশি যেমন গানে ব্যবহার হয়েছে, তেমনি ড্রাম, গিটার, বেজ গিটার, ইলেক্ট্রিক গিটারও প্রয়োজন অনুযায়ী গানে ব্যবহার হয়েছে। ২০১০ সালে শিরোনামহীন ব্যান্ডের ওপর একটি তথ্যচিত্র প্রকাশিত হয়েছে। ২০০৮ সালের ১ আগস্ট তারা বামবার সদস্যপদ লাভ করে।[২]

১৯৯৬:শুরুর সময়[সম্পাদনা]

ফরমেশন[সম্পাদনা]

১৯৯৬ সালে ব্যান্ডটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এবং রাস্তার জনগণের মাঝে পারফর্ম করত। আস্তে আস্তে তারা ক্যাম্পাসে লাইভ পারফর্মেন্স করা শুরু করে। এসময় তারা তাদের মিউজিক্যাল যন্ত্রপাতিতে বেশ কিছু পরিবর্তন আনে। তারা ড্রামের সাথে প্লাগড গিটার এবং সারদ ব্যবহার শুরু করে। ২০০০ সালে তুহিন শিরোনামহীনে মেইন ভোকাল হিসেবে যোগদান করে। [৩] ২০০৩ সালে সাফিন ড্রামার হিসেবে যোগদান করেন। প্রায় একই সময়ে পূর্ণাঙ্গ ব্যান্ড তৈরী করার জন্য ফারহান এবং তুষারকে নেয়া হয়। ফারহান সারদ এবং দোতারা বাজাতো এবং তুষার গিটার বাজাতো। দিয়াত খান গিটারিস্ট হিসেবে এবং রাসেল কবীর কি-বোর্ডিস্ট হিসেবে যথাক্রমে ২০০৯ এবং ২০১০ সালে যোগদান করেন।

নামকরণ[সম্পাদনা]

ব্যান্ডটি টিএসসি অডিটোরিয়াম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন নাম ছাড়াই তাদের প্রথম লাইভ পারফর্মেন্স করে। তাদের পারফর্মেন্সে মুগ্ধ হয়ে দর্শকরা তাদের ব্যান্ডের নাম জানতে চান। কিন্তু তারা তাদের ব্যান্ডটির নাম ঠিক করতে পারছিলেন না। একসময় তারা তাদের ব্যান্ডটির নাম শিরোনামহীন রাখেন যার অর্থ কোন নাম নেই।

২০০৪-বর্তমান[সম্পাদনা]

ব্যান্ড গঠনের প্রায় আট বছর পরে শিরোনামহীন তাদের প্রথম এ্যালবাম প্রকাশ করে। তাদের সর্বশেষ এলবামের নাম "শিরোনামহীন শিরোনামহীন"। যা ২০১৩ সালের ১৯ জুলাই প্রকাশ পায়। ২০০৮ সালের আগস্ট মাসে শিরোনামহীন বামবা এর মেম্বারশীপ অর্জন করে।

বর্তমান সদস্য[সম্পাদনা]

প্রকাশিত অ্যালবাম[সম্পাদনা]

মিক্সড অ্যালবাম[সম্পাদনা]

  • নিয়ন আলোয় স্বাগতম (২০০৭)
  • স্বপ্নচূড়া- ২ (২০০৬)
  • স্বপ্নচূড়া-৩ (২০০৭)
  • বন্ধুতা (২০০৮)
  • রক ১০১ (২০০৮)
  • রক ২০২ (২০০৯)
  • জয়োধ্বনি (২০১১)
  • গর্জে উঠো বাংলাদেশ (২০১১)[৯]

অর্জন[সম্পাদনা]

  • কালচারাল জার্নালিস্ট ফোরাম অফ বাংলাদেশঃ ২০০৫ সালে শিরোনামহীন দেশের সেরা ব্যান্ড হিসেবে নির্বাচিত হয়।
  • সিটিসেল-চ্যানেল আই মিউজিক এওয়ার্ডঃ ২০০৬ সালে শিরোনামহীন তাদের "পাখি" মিউজিক ভিডিও এর জন্য সেরা হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]