শিমলা জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শিমলা জেলা
জেলা
ডাকনাম: পাহাড়ের রাণী
শিমলা জেলা
দেশভারত
রাজ্যহিমাচল প্রদেশ
সদরদপ্তরশিমলা
সরকার
 • লোকসভা কেন্দ্রশিমলা
আয়তন
 • মোট৫১৩১ কিমি (১৯৮১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৮,১৪,০১০
 • ক্রম৩য়
 • জনঘনত্ব১৬০/কিমি (৪১০/বর্গমাইল)
ভাষা
 • দাপ্তরিকহিন্দি
জনমিতি
 • লিঙ্গ অনুপাত৯১৬
 • স্বাক্ষরতা৮৪.৭৫
সময় অঞ্চলআইএসটি (ইউটিসি+০৫:৩০)
এলাকা কোড91 177 xxxxxxx
আইএসও ৩১৬৬ কোডIN-HP
ওয়েবসাইটhpshimla.nic.in/welcome.asp

শিমলা জেলা ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য হিমাচল প্রদেশের একটি জেলা। এ জেলার সদরদপ্তরের নাম‌ও শিমলা। পার্শ্ববর্তী জেলাগুলো হল: উত্তরে মান্দি ও কুলু, পূর্বে কিন্নৌর, দক্ষিণ-পূর্বে উত্তরাখণ্ড, দক্ষিণ-পশ্চিমে সোলান এবং দক্ষিণে সিরমৌর। সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে জেলার উচ্চতা ৯৮৭ মিটার (৩,২৩৮ ফুট) থেকে ৪,৫০০ মিটার (১৪,৭৬৪ ফুট) পর্যন্ত।

২০১১ সালের তথ্য অনুযায়ী এটি হিমাচল প্রদেশের কংরা ও মান্ডির পরে তৃতীয় সর্বাধিক জনবহুল জেলা (১২টির মধ্যে)।[১] এবং এটি হিমাচল প্রদেশের সর্বাধিক নগরায়িত জেলা।

জেলার সবচেয়ে বেশি পালিত ধর্মীয় বিশ্বাস হল হিন্দু ধর্ম। হিন্দি এবং পাহাড়ি ভাষা হল এখানকার সর্বাধিক কথিত ভাষা। পর্যটন এবং কৃষিকাজ / উদ্যানতন্ত্র আয়ের প্রধান উৎস।

ভূগোল[সম্পাদনা]

শিমলা জেলা ভুমিকম্পে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা। কোপেন জলবায়ু শ্রেণীবিন্যাস অনুযায়ী এখানে উপক্রান্তীয় উচ্চভূমি জলবায়ু বিরাজমান। শিমলার জলবায়ু শীতকালে মূলত শীতল এবং গ্রীষ্মের মধ্যে মাঝারি উষ্ণ থাকে। তাপমাত্রা সাধারণত সারাবছর ধরে −৪° সেলসিয়াস (২৫° ফারেনহাইট) থেকে ৩১° সেলসিয়াস (৮৮° ফারেনহাইট) পর্যন্ত থাকে।

শিমলা (১৯৫১ - ১৯৮০)-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
সর্বোচ্চ °সে (°ফা) রেকর্ড ২১٫৪
(৭১)
২২٫৬
(৭৩)
২৫٫৮
(৭৮)
২৯٫৬
(৮৫)
৩২٫৪
(৯০)
৩১٫৫
(৮৯)
২৮٫৯
(৮৪)
২৭٫৮
(৮২)
২৮٫৬
(৮৩)
২৫٫৬
(৭৮)
২৩٫৫
(৭৪)
২০٫৫
(৬৯)
৩২٫৪
(৯০)
সর্বোচ্চ °সে (°ফা) গড় ৮٫৯
(৪৮)
১০٫৬
(৫১)
১৪٫৮
(৫৯)
১৯٫৪
(৬৭)
২২٫৯
(৭৩)
২৪٫১
(৭৫)
২১٫০
(৭০)
২০٫২
(৬৮)
২০٫১
(৬৮)
২৩٫৭
(৭৫)
১৫٫১
(৫৯)
১২٫০
(৫৪)
১৭٫৩
(৬৩)
সর্বনিম্ন °সে (°ফা) গড় ১٫৭
(৩৫)
৩٫০
(৩৭)
৬٫৮
(৪৪)
১১٫১
(৫২)
১৪٫২
(৫৮)
১৫٫৬
(৬০)
১৫٫০
(৫৯)
১৪٫৮
(৫৯)
১৩٫৪
(৫৬)
১০٫৭
(৫১)
৭٫০
(৪৫)
৪٫৩
(৪০)
৯٫৮
(৫০)
সর্বনিম্ন °সে (°ফা) রেকর্ড −১০٫৬
(১৩)
−৮٫৫
(১৭)
−৬٫১
(২১)
−১٫৩
(৩০)
১٫৪
(৩৫)
৭٫৮
(৪৬)
৯٫৪
(৪৯)
১০٫৬
(৫১)
৫٫০
(৪১)
০٫২
(৩২)
−১٫১
(৩০)
−১২٫২
(১০)
−১২٫২
(১০)
গড় অধঃক্ষেপণ মিমি (ইঞ্চি) ৫৪٫৬
(২٫১৫)
৪৭٫২
(১٫৮৬)
৫৯٫৪
(২٫৩৪)
৪১٫১
(১٫৬২)
৫৬٫৪
(২٫২২)
১৭৫٫৬
(৬٫৯১)
৩৭৬٫৫
(১৪٫৮২)
৩৩৫٫১
(১৩٫১৯)
১৯০٫২
(৭٫৪৯)
৪৬٫২
(১٫৮২)
১৩٫৮
(০٫৫৪)
১৬٫০
(০٫৬৩)
১,৪২৪٫৮
(৫৬٫০৯)
বৃষ্টিবহুল দিনের গড় ৪٫৭ ৪٫১ ৫٫২ ৩٫৬ ৪٫৬ ১০٫৩ ১৮٫৩ ১৮٫১ ৯٫৯ ২٫৯ ১٫৩ ১٫৮ ৮৪٫৮
উৎস: India Meteorological Department (record high and low up to 2010)[২][৩]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের ভারতীয় জনগণনার তথ্য অনুসারে শিমলা জেলার জনসংখ্যা ছিল ৮১৪,০১০ জন,[৪] যা এটিকে ভারতে ৪৮৩তম জনবহুল জেলায় পরিণত করেছে (মোট ৬৪০ এর মধ্যে)। এ জেলার জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ১৫৯ জন বা প্রতি বর্গ মাইলে ৪১০ জন) লোক বসবাস করে। ২০০১-২০১১ এর দশকে জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার ছিল ১২.৬৭%। শিমলা জেলার লিঙ্গ অনুপাত প্রতি ১০০ পুরুষের জন ৯১৫ মহিলা রয়েছে এবং সাক্ষরতার হার ৮৩.৬৪%। হিমাচলের সকল জেলার সর্বাধিক নগরাঞ্চলীয় জনসংখ্যা রয়েছে এ জেলায়। নগরীর জনসংখ্যা জেলার মোট জনসংখ্যার ২৪.৭৭%।

২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী, জেলার মোট জনসংখ্যার ৬৮% তাদের প্রথম ভাষা হিসেবে পাহাড়ী ভাষা ব্যবহার করে, ২০% হিন্দি বেছে নিয়েছে, ৪% নেপালি ভাষায় কথা বলে, ১.৪% স্প্যানিশ পাঞ্জাবি এবং ১% এর‌ও কম লোক কানগ্রি ভাষায় কথা বলে।[৫]

প্রশাসন[সম্পাদনা]

শিমলা জেলা ১২টি তফসিল; রামপুর, কুমারসাইন, সিওনি, সিমলা (গ্রামীণ), সিমলা (শহুরে), থিওগ, চৌপাল, জুব্বাল, কোটখাই, রোহরু, চিরগাঁও, দোদ্র কাওয়ার ও ১০ কমিউনিটি উন্নয়ন; মাশোব্রা, থিওগ, চৌপাল, জুব্বাল কোটখাই, রোহরু, রামপুর, নারকান্দা (কুমারসাইন), চিরগাঁও, বাসন্তপুর, ননখড়ি ব্লকে বিভক্ত। এগুলো আবার ৩৬৩টি গ্রাম পঞ্চায়েতে বিভক্ত।

এ জেলায় হিমাচল প্রদেশের বিধানসভার ৮টি কেন্দ্র রয়েছে; রামপুর, শিমলা গ্রামীণ, শিমলা শহুরে, থিওগ-কুমারসাইন, চৌপাল, জুব্বাল-কোটখাই, রোহরু, কাসুমপতি বিধানসভা কেন্দ্র।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "District Census 2011"। Census2011.co.in। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৯-৩০ 
  2. "Shimla Climatological Table Period: 1951–1980"India Meteorological Department। ১৪ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৫ 
  3. "Ever recorded Maximum and minimum temperatures up to 2010" (PDF)। India Meteorological Department। ২১ মে ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৫ 
  4. http://www.censusindia.gov.in/2011census/dchb/0211_PART_B_DCHB_SHIMLA.pdf pp. 22–23
  5. C-16 Population By Mother Tongue – Himachal Pradesh (প্রতিবেদন)। Office of the Registrar General & Census Commissioner, India। সংগ্রহের তারিখ ৬ অক্টোবর ২০১৯