শাহজাদাপুর ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শাহজাদাপুর
ইউনিয়ন
Government Seal of Bangladesh.svg ৯নং শাহজাদাপুর ইউনিয়ন পরিষদ
শাহজাদাপুর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
শাহজাদাপুর
শাহজাদাপুর
বাংলাদেশে শাহজাদাপুর ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°৪.৫′ উত্তর ৯১°১২′ পূর্ব / ২৪.০৭৫০° উত্তর ৯১.২০০° পূর্ব / 24.0750; 91.200স্থানাঙ্ক: ২৪°৪.৫′ উত্তর ৯১°১২′ পূর্ব / ২৪.০৭৫০° উত্তর ৯১.২০০° পূর্ব / 24.0750; 91.200
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা
উপজেলাসরাইল উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৪৩০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

শাহজাদাপুর বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অন্তর্গত সরাইল উপজেলার একটি ইউনিয়ন

আয়তন[সম্পাদনা]

শাহজাদাপুর ইউনিয়নের আয়তন ৭,৭৭৩ একর (৩১.৪৬ বর্গ কিলোমিটার)।[১]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে শাহজাদাপুর ইউনিয়নের মোট জনসংখ্যা ২৪,২৮১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১১,৭৮৩ জন এবং মহিলা ১২,৪৯৮ জন। মোট পরিবার ৪,৯১০টি।[১] জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে প্রায় ৭৭২ জন।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

নামকরণের ইতিহাস। ১৩০১-০২ খ্রিষ্টাব্দ ৭০৩ হিজরিতে তৎকালীন সিলেটের রাজা গৌর গোবিন্দ রায়ের বিরুদ্ধে সোনারগাঁওয়ে দিল্লির সুলতান গিয়াস উদ্দিন আজম শাহ্ এর পুত্র সুলতান শামসুদ্দিন ফিরুজ শাহের কাছে সিলেটের কয়েক মুসলমান তাদের নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন। অভিযোগর প্রেক্ষিতে সোনারগাঁওয়ের সুলতান তার ভাগিনা সিকান্দার খান গাজীর নেত্রীত্বে সিলেট অভিযানে সৈন্য প্রেনর করেন। এ প্রথম অভিযানটি ব্যার্থহয়ে গেলে ভাগিনার সাহায্যে এগিয়ে আসার জন্য সাঁতগাওএর গভর্নর নাসির উদ্দীনকে তিনি নির্দেশ দেন। এসময় মুসলিম নির্যাতনের কথাশুনে হজরত শেখ জালাল উদ্দীন ইয়েমিনী ( হজরত শাহজালাল রঃ) তার সফর সঙ্গীরা ও সিকান্দার খানের সাথে যোগ দেয়।এসময়ে তাদের আরেক সফর সঙ্গী ছিলেন হজরত শাহ রুকন উদ্দিন আনসারী যার মাজার আজও রয়েছে। তার নাম অনুসারে এই এলাকার নাম হয় শাহ্জাদাপূর। তাদের যুদ্ধে রাজা গৌড় গোবিন্দ শুচনিয়ভাবে পরাজীত হয়ে আসামের পার্বত্য অঞ্চলে পলায়ন করে। ( তথ্য সূত্র ব্রাক্ষনবাড়িয়ার সেকাল ও একাল)

প্রতিষ্টা কাল - অত্র ইউনিয়ন টি প্রতিষ্ঠা হয় ১৯১৯ইংরেজি সালে।

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

সরাইল উপজেলার পূর্বাংশে শাহজাদাপুর ইউনিয়নের অবস্থান। এ ইউনিয়নের পশ্চিমে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন, দক্ষিণে শাহবাজপুর ইউনিয়ন, দক্ষিণ-পূর্বে বিজয়নগর উপজেলার বুধন্তি ইউনিয়ন, পূর্বে নাসিরনগর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়ন, উত্তরে নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়ন এবং উত্তর-পূর্বে নাসিরনগর উপজেলার গোকর্ণ ইউনিয়ন অবস্থিত।

প্রশাসনিক কাঠামো[সম্পাদনা]

শাহজাদাপুর ইউনিয়ন সরাইল উপজেলার আওতাধীন ৯নং ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম সরাইল থানার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২৪৪নং নির্বাচনী এলাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ এর অংশ।

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে শাহজাদাপুর ইউনিয়নের সাক্ষরতার হার ৩৬.২%।[১]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

  1. সরকারি উচ্চবিদ্যাল - ২টি
  2. সরকারি প্রাথমিকবিদ্যালয় - ১০টি
  3. কিন্টারগার্ডেন - ৭টি
  4. মাদরাসা - ৮টি
  5. মহিলামাদরাসা - ২টি

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের তিতাসসেতুর স্থান শাহবাজপুর থেক উত্তরধিকে ওবায়দুল্লাহরোড সরাসরি দেওড়া, মলাইশহয়ে শাহ্জাদাপূরপর্যন্ত পৌঁছেছে।

খাল ও নদী[সম্পাদনা]

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

  1. দেওড়া বাজার
  2. মলাইশ বাজার
  3. শাহ্জাদাপূর বাজার।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

হজরত শাহ্ রুকন উদ্দিন আনসারি (রঃ) এর মাজার ও মলাইশের তিতাসপাড়।

কৃতি ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

প্রতিষ্টা কাল - অত্র ইউনিয়ন টি প্রতিষ্ঠা হয় ১৯১৯ইংরেজি সালে।

প্রতিষ্ঠা কালিন সময় থেকে প্রেসিডেন্ট / চেয়ারম্যান মহোদয়গন - (১ম)- সুরেন্দ্র ভদ্র ( শাহজাদাপূর)। (২য়)- মালি মিয়া ভূইয়া (দেওড়া)। (৩য়)- নুরুমিয়া (দেওড়া)। (৪র্থ)- ঈসান চন্দ্র চক্রবর্তী (শাহ্জাদাপূর)। (৫ম)- কালা মুন্সি ( শাহ্জাদাপূর)। (৬ষ্ট)- আব্দুল ময়েজ খাঁন (দেওড়া)। (৭ম)- আব্দুল ময়েজ খাঁন (দেওড়া)। (৮ম)- আব্দুল ময়েজ খাঁন (দেওড়া)। (৯ম)-আব্দুল ময়েজ খাঁন (দেওড়া)। (১০ম)- ফরিদ উদ্দিন ঠাকুর ( দেওড়া)। (১১তম)- বশির আহমেদ ( শাহ্জাদাপূর)। (১২তম)- শেখ ওলিউর রহমান ( শাহ্জাদাপূর)। (১৩ম)- সিরাজুল ইসলাম খাদেম ( শাহ্জাদাপূর)। (১৪তম)- মুহসিন মিয়া ( শাহ্জাদাপূর)। (১৫তম)- বাবু সতেন্দ্রমুহন সরকার ( মলাইশ)। (১৬তম)- সায়েফউল্লাহ ঠাকুর ( দেওড়া)। (১৭তম)- সিরাজুল ইসলাম খাদেম ( শাহ্জাদাপূর)। (১৮তম)- রফিকুল ইসলাম খোকন ( দেওড়া)। (১৯তম)- বর্তমান২০২০ইং চেয়ারম্যান- রফিকুল ইসলাম খোকন ( দেওড়া)। সদস্য ১নংওয়ার্ড- রফিক মিয়া ২নংওয়ার্ড- ফারুক মিয়া ৩নংওয়ার্ড- আজহার মিয়া ৪নংওয়ার্ড- দ্বিপচান ভৌমিক ৫নংওয়ার্ড- সুবাস চন্দ্র দাস ৬নংওয়ার্ড- বিধান সরকার ৭নংওয়ার্ড- আলিরাজা ৮নংওয়ার্ড- মিছির আলী ৯নংওয়ার্ড- আঃ রশিদ সংরক্ষিত নারী ১,২,৩ওয়ার্ড- আছমা বেগম ৪,৫,৬ওয়ার্ড- সুন্দা রানী দাস ৭,৮,৯ওয়ার্ড- ফিরুজা বেগ।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 
  2. "ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার তথ্য উপাত্ত" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]