শয়তানের সাগর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোলগাল ট্রায়াঙ্গেলের অধিকাংশই উত্তরপূর্ব ফিলিপাইন সাগরে রয়েছে।
ডেভিল'স সী কিংবদন্তির কেন্দ্রে ইজু দ্বীপপুঞ্জের মানচিত্র।
টোকিওর প্রায় ১০০ কিমি দক্ষিণে মিয়াকে দ্বীপ

শয়তানের সাগর বা ড্রাগন ত্রিভুজ বা সাগরের জাদু বা প্যাসিফিক বারমুডা ট্রায়াঙ্গেল নামেও পরিচিত, যা টোকিওর দক্ষিণে প্রায় ১০০ কিমি দূরে মিয়াকে-জিমা (মিয়াকে দ্বীপ) ঘিরে প্রশান্ত মহাসাগরের একটি বিশেষ অঞ্চল। শয়তানের সাগরকে কখনও কখনও একটি অতিপ্রাকৃতিক অবস্থান হিসেবে বিবেচিত করা মাধ্যমে এই দাবির সত্যতা রীতিমত খোলাসমুক্ত করা হয়েছে। আকার এবং আয়তনের বিভিন্ন স্থানের রিপোর্ট (শুধুমাত্র ১৯৫০ দশকের রিপোর্ট থেকে) অনুসারে এটি জাপানের পূর্ব উপকূলে একটি অনির্দিষ্ট অংশ থেকে ১১০ কিলোমিটার (৫৮ মাইল), উপকূল থেকে ৪৮০ কিলোমিটার (৩০০ মাইল) এবং এমনকি ইও জিমার উপকূলের কাছে থেকে ১,২০০ কিলোমিটার (৭৫০ মাইল) দূরে অবস্থিত।

কাইও মারু নং ৫ বালেটস নামে জাপানের একটি গবেষণা জাহাজ ৩১ জনের একটি নাবিকদল নিয়ে শয়তানের সাগর থেকে প্রায় ৩০০ কিমি দক্ষিণে সমুদ্রতলদেশীয় ম্যাইয়েন-শো আগ্নেয়গিরি কার্যকলাপ অনুসন্ধান করছিল, তখন একটি অগ্ন্যুত্পাতের ফলে ২৪শে সেপ্টেম্বর, ১৬৫২ সালে ধ্বংস হয়ে যায়। পরে কিছু ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়।[১] অন্য সাতটি নৌকা ছিল ছোট মাছ ধরার নৌকা, যা এপ্রিল, ১৯৪৯ সাল থেকে অক্টোবর, ১৯৫৩ সালের মধ্যে মিয়াকে দ্বীপ এবং ইও জিমা দ্বীপের মাঝে হারিয়েছে। এই দুইটি দ্বীপের মাঝের দূরত্ব ১,২০০ কিলোমিটার (৭৫০ মাইল)। অন্তত একটি জাহাজ একটি এসওএস পাঠিয়েছিল।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ২৫° উত্তর ১৩৭° পূর্ব / ২৫° উত্তর ১৩৭° পূর্ব / 25; 137

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সুনামির ঝুঁকির প্রকল্প: কারণসমূহ"। Nerc-bas.ac.uk। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০১৬