শম্ভল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

তিব্বতি বৌদ্ধ রীতিতে, শম্ভলা (সংস্কৃত: शम्भल Śambhala,[১] শম্বল বা শম্বল্ল; তিব্বতি: བདེ་འབྱུངওয়াইলি: Bde'byung; চীনা: 香巴拉; ফিনিন: Xiāngbālā) হল একটি পৌরাণিক রাজ্য। কালচক্র তন্ত্রে শম্ভলের উল্লেখ রয়েছে।[২][৩] বন শাস্ত্রগুলি তাগজিগ ওলমো লুং রিং নামে এর অতি সমতূল্য একটি ভূমির কথা বলে।[৪]

এই সংস্কৃত নামটি উত্তর হিন্দু পুরাণের মধ্যে উল্লিখিত একটি শহরের নাম থেকে নেওয়া হয়েছে, সম্ভবত এর মাধ্যমে উত্তর প্রদেশের সম্ভল গ্রামের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। স্থানটির পৌরাণিক প্রাসঙ্গিকতা বিষ্ণু পুরাণের ভবিষ্যদ্বাণী (৪.২৪) দ্বারা উদ্ভূত যা অনুসারে শম্ভল কল্কির জন্মস্থান হবে, বিষ্ণুর চূড়ান্ত অবতার, যিনি একটি নতুন যুগের সূচনা করবেন (সত্যযুগ),[১][৫] পাশাপাশি এটি হবে অন্তিম বুদ্ধ মৈত্রেয়র শাসনাধীন অঞ্চল।[৬][৭]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Śambhala, also Sambhala, is the name of a town between the Rathaprā and Ganges rivers, identified by some with Sambhal in Uttar Pradesh. In the Puranas, it is named as the place where Kalki, the last incarnation of Vishnu, is to appear (Monier-Williams, Sanskrit-English Dictionary, 1899).
  2. Alf Hiltebeitel (১৯৯৯)। Rethinking India's Oral and Classical Epics। University of Chicago Press। পৃষ্ঠা 217–218। আইএসবিএন 978-0-226-34050-0 
  3. The Tantra by Victor M. Fic, Abhinav Publications, 2003, p.49.
  4. The Bon Religion of Tibet by Per Kavǣrne, Shambhala, 1996
  5. LePage, Victoria (১৯৯৬)। Shambhala: The Fascinating Truth Behind the Myth of Shangri-La। Quest Books। পৃষ্ঠা 125–126। আইএসবিএন 9780835607506 
  6. Arch. orient (ইংরেজি ভাষায়)। Nakl. Ceskoslovenské akademie věd.। ২০০৩। পৃষ্ঠা 254, 261। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০২০ 
  7. Roerich, Nicholas (২০০৩)। Shambhala (ইংরেজি ভাষায়)। Vedams eBooks (P) Ltd। পৃষ্ঠা 65। আইএসবিএন 978-81-7936-012-5। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

  • উইকিমিডিয়া কমন্সে শম্ভল সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন