ল্যাংগুয়েজ বাইন্ডিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান

কম্পিউটার বিজ্ঞানের পরিভাষায় বাইন্ডিং বলতে বোঝানো হয় এক ধরণের এপিআই (এপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস) বা বিশেষ ধরণের কোডকে যা কোন প্রোগ্রামিং ভাষাকে অন্য কোন প্রোগ্রামিং ভাষার লাইব্রেরি বা অপারেটিং সিস্টেম সার্ভিস ব্যাবহারের সুযোগ করে দেয়।

সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পরিভাষায় বাইন্ডিং বলতে বোঝানো হয় এক ধরণের র‍্যাপার লাইব্রেরিকে যা ব্যাবহার করে কোন একটি প্রোগ্রামিং ভাষায় লেখা লাইব্রেরী অন্য ধরণের প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যাবহার করে একসেস করা যায়।[১] অর্থাৎ বাইন্ডিং দুটি পৃথক প্রোগ্রামিং ভাষার মধ্যে সংযোগ সেতু হিসেবে কাজ করে। অনেক সফটওয়্যার লাইব্রেরী, সিস্টেম প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ যেমন সি, সি++ ইত্যাদি ব্যাবহার করে লেখা হয়। অন্য কোন প্রোগ্রামিং ভাষা (বিশেষ করে হাই লেভেল প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ) থেকে যেমন জাভা, কমন লিস্প, পাইথন ইত্যাদি ব্যাবহার করে এইসব লাইব্রেরি ব্যাবহার করাতে হলে বাইন্ডিং বা এপিএই প্রয়োজন হয়।[২] অন্যথায় সি বা সি++ এ লেখা কোন লাইব্রেরি একসেস করতে হলে একজন ডেভেলপার বা সফটওয়্যার প্রোগ্রামারকে সি বা সি++ শিখতেই হত। উদাহরণ স্বরূপ বলা যেতে পারে, পাইথন বাইন্ডিং ব্যাবহার করা হয় যখন সি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ব্যবহার করে লেখা কোন লাইব্রেরি পাইথন দিয়ে ব্যাবহার করার প্রয়োজন হয়। আবার জাভা প্রোগ্রামিং ভাষা থেকে সাবভার্শন ব্যবহার করতে হলে লিবসভিএনজাভাএইচএল ব্যবহার করতে হবে।[৩]

সফটওয়্যার বাইন্ডিং তৈরির পিছনে সফটওয়্যার ডেভেলপারের পরিশ্রম লাঘব ও সময় বাঁচানো ছাড়াও আরেকটি উদ্যেশ্য হল সফটওয়্যারের পুনর্ব্যাবহার নিশ্চিত করা। কোন একটি সফটওয়্যার যা ইতিমধ্যে কোন না কোন প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যাবহার করে তৈরি করা আছে তা নতুন করে অন্য কোন ভাষায় তৈরি করা সময় ও ব্যয় সাপেক্ষ কাজ। সফটওয়্যার বাইন্ডিং তৈরি করে এই সময় ও ব্যয় সংকোচন করা যায়। কোন কোন হাই লেভেল ভাষায় নির্দিষ্ট কোন এলগরিদম অনুসরণ করে প্রোগ্রাম লেখা সম্ভব নাও হতে পারে। এরকম ক্ষেত্রে বাইন্ডিং ব্যাবহার করে সহজেই কোন হাই লেভেল ভাষায় ঐসব এলগরিদমকে কাজে লাগাতে পারে।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]