লুটস বসম্যান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
লুটস বসম্যান
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম লাঙ্গিল এডগার বসম্যান
জন্ম (১৯৭৭-০৪-১৪) ১৪ এপ্রিল ১৯৭৭ (বয়স ৪০)
কিম্বার্লি, কেপ প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ডাকনাম দ্য হ্যামার, দ্য বাজুকা
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি স্লো মিডিয়াম
ভূমিকা ব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৮৪)
১৫ সেপ্টেম্বর ২০০৬ বনাম জিম্বাবুয়ে
শেষ ওডিআই ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১০ বনাম ভারত
ওডিআই শার্ট নং ১৪
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ১৯)
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টি২০আই ২৭ অক্টোবর ২০১০ বনাম পাকিস্তান
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
২০১০- ফ্রি স্টেট
২০১০ ডার্বিশায়ার
২০০৯-২০১২ ডলফিন্স (দল নং ১৪)
২০০৪- ঈগলস / নাইটস (দল নং ১৪)
১৯৯৭-২০০৮ গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্ট
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৪ ১৪ ৯৮ ১৫৭
রানের সংখ্যা ৩০১ ৩২৩ ৪,৬৮৮ ৪,১৩৭
ব্যাটিং গড় ২৫.০৮ ২৪.৮৪ ২৮.৭৬ ২৯.১৩
১০০/৫০ ০/২ ০/৩ ৫/২৪ ১/২৩
সর্বোচ্চ রান ৮৮ ৯৪ ১৪০ ১৫০
বল করেছে ৫৭৬ ৮৫
উইকেট
বোলিং গড় ৪২.৮৭ ৭৭.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ৩/২৫ ১/৩৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/– ১/– ৫২/– ৩৬/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৬

লাঙ্গিল এডগার বসম্যান (ইংরেজি: Loots Bosman; জন্ম: ১৪ এপ্রিল, ১৯৭৭) কেপ প্রদেশের কিম্বার্লিতে জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথিতযশা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। একদিনের আন্তর্জাতিকটুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে অংশ নিয়েছেন। মূলতঃ শীর্ষসারির ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেছেন। এছাড়াও মাঝে-মধ্যে ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিং করতেন লুটস বসম্যান। ঘরোয়া ক্রিকেটে ডলফিন্সের পক্ষে খেলেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

কিম্বার্লিতে জন্মগ্রহণকারী বসম্যান তার দাদার সান্নিধ্যে বড় হন। ১৯৯৭-৯৮ মৌসুমের শুরুতে গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্টের পক্ষে অভিষেক ঘটে তার। সাত নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামেন তিনি। নাটালের বিপক্ষে ৪৫ ওভারের খেলায় বোলিংও উদ্বোধন করেন।[১] লিস্ট এ ক্রিকেটের ঐ খেলায় তিনি কেবলমাত্র ডেল বেঙ্কেনস্টেইনের উইকেট লাভে সক্ষম হন।[১] তিন সপ্তাহ পর প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে। সুপারস্পোর্ট সিরিজের খেলায় ফ্রি স্টেটের বিপক্ষে মাঠে নামেন।[২] খেলায় তিনি ৯৬ রান তুলেন। এছাড়াও পঞ্চম উইকেট জুটিতে পিটার বার্নার্ডের সাথে ২৪৩ রান তুলেন।[৩]

অক্টোবর, ২০০৭ সালে ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লীগে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষে চুক্তিবদ্ধ হন। কিন্তু প্রথম মৌসুমে প্রথম একাদশে ঠাঁই হয়নি তার।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০০৬ তারিখে জোহানেসবার্গের নিউ ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামে টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে বসম্যানের।[৪] ক্রমবর্ধমান স্কোরিং রেট ও বলে আঘাতের মাধ্যমে সকলকে বিমোহিত করেন। জিম্বাবুয়ে সফরে পিঠে আঘাত পান। ঐ কারণে আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী আসরে খেলতে পারেননি।[৪] সুস্থ হবার পর ঘরোয়া ক্রিকেটের এক খেলায় নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে। স্থানীয় সংবাদপত্রে কোচ মিকি আর্থারের কারণে দল থেকে বাদ পড়ার বিষয় উল্লেখ করাই এর কারণ ছিল।

২০০৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অনেকাংশেই দূরে থাকেন। কেবলমাত্র বাংলাদেশের বিপক্ষে একটিমাত্র টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে অংশ নেয়ার সুযোগ ঘটে। ২০০৯ সালের বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় ৩০ সদস্যের প্রাথমিক তালিকায় তাকেও অন্তর্ভূক্ত করা হয়। কিন্তু চূড়ান্ত তালিকায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি। নভেম্বর, ২০০৯ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০ সিরিজে পুণরায় স্বমূর্তি ধারন করেন। টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকের প্রথম খেলায় ৩১ বলে ৫৮ রান তুলেন।[৫] টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি থেকে অল্পের জন্য হাতছাড়া হয়ে যায় তার। ৪৫ বলে ৯৪ রানের ঐ ইনিংসে নয় ছক্কার মার ছিল। সেঞ্চুরিয়নে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গ্রেইম স্মিথের সাথে ১৭০ রানের উদ্বোধনী জুটি বিশ্বরেকর্ড গড়ে।[৬] এরফলে দক্ষিণ আফ্রিকা পর্বতসম ২৪১/৬ রান সংগ্রহ করে জয় নিশ্চিত করে। ২০১০ সালে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে অনুষ্ঠিত বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় বসম্যানের খেলার সুযোগ ঘটে। কিন্তু দুই ইনিংসে তিনি মাত্র আট রান তুলতে সক্ষম হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Natal v Griqualand West"CricketArchive। সংগৃহীত ১৪ নভেম্বর ২০০৯ 
  2. "Free State v Griqualand West"CricketArchive। সংগৃহীত ১৪ নভেম্বর ২০০৯ 
  3. "Highest Partnership for Each Wicket for Griqualand West"CricketArchive। সংগৃহীত ১৪ নভেম্বর ২০০৯ 
  4. "Player Profile: Loots Bosman"Cricinfo। সংগৃহীত ১৬ নভেম্বর ২০০৯ 
  5. "South Africa v England"CricketArchive। সংগৃহীত ১৬ নভেম্বর ২০০৯ 
  6. "South Africa v England"CricketArchive। সংগৃহীত ১৬ নভেম্বর ২০০৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]