লিটা গ্রে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লিটা গ্রে
Lita Grey.jpg
১৯২৫ সালে গ্রে
স্থানীয় নাম
Lita Grey
জন্ম
লিলিটা লুইস ম্যাকমুরে

(১৯০৮-০৪-১৫)১৫ এপ্রিল ১৯০৮
মৃত্যু২৯ ডিসেম্বর ১৯৯৫(1995-12-29) (বয়স ৮৭)
লস অ্যাঞ্জেলেস, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণক্যান্সার
দাম্পত্য সঙ্গী
  • চার্লি চ্যাপলিন (বি. ১৯২৪; বিবাহ বিচ্ছেদ ১৯২৭)
  • হেনরি আগুইয়ার
  • আর্থার ডে
  • প্যাট্‌সি পিজ্জোলঞ্জো (বি. ১৯৫৬; বিবাহ বিচ্ছেদ ১৯৬৬)
সন্তানচার্লস চ্যাপলিন জুনিয়র
সিডনি আর্ল চ্যাপলিন

লিটা গ্রে (ইংরেজি: Lita Grey; জন্ম: লিলিটা লুইস ম্যাকমুরে; ১৫ এপ্রিল, ১৯০৮২৯ ডিসেম্বর, ১৯৯৫) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তিনি ছিলেন অভিনেতা ও পরিচালক চার্লি চ্যাপলিনের দ্বিতীয় স্ত্রী।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লিলিটা লুইস ম্যাকমুরে ১৯০৮ সালের ১৫ এপ্রিল ক্যালিফোর্নিয়ার হলিউডে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ছিলেন স্কটিশ বংশোদ্ভূত এবং তার মাতার পরিবার ছিল ক্যালিফোর্নিয়ায় একটি স্পেনীয় পরিবারের নবম প্রজন্ম। এই পরিবারের উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি ছিলেন আন্তোনিও মারিয়া লুগো। লুগো পরিবার স্পেনের আন্দালুসিয়া থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় আসেন এবং এই পরিবার যুক্তরাষ্ট্রে ঘোড়া নিয়ে আসা প্রথম পরিবারগুলোর একটি।[১][২]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

দ্য কিড (১৯২১) চলচ্চিত্রে লিটা গ্রে

গ্রে আট বছর বয়সে চার্লি চ্যাপলিনের সাথে একটি ক্যাফে সাক্ষাৎ করেন। তিনি চ্যাপলিনের চলচ্চিত্রে প্রথম অভিনয় করেন ১২ বছর বয়সে। তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র দ্য কিড ১৯২১ সালে মুক্তি পায়। এতে তিনি একটি পরী চরিত্রে অভিনয় করেন।[৩] একই বছর তিনি চ্যাপলিনের দি আইডল ক্লাস চলচ্চিত্রে একজন তরুণীর ভূমিকায় অভিনয় করেন। তার এক বছরের চুক্তি নবায়ন করা হয় নি। পরবর্তীতে দ্য গোল্ড রাশ চলচ্চিত্রের জন্য অভিনেত্রীর অডিশন নেওয়া হচ্ছে এই খবর জানার পর তিনি আবার চ্যাপলিনের সাথে সাক্ষাৎ করেন।[৪] তিনি এই চলচ্চিত্রে অতিরিক্ত শিল্পী হিসেবে কাজ করেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

গ্রে চারবার বিয়ে করেন। প্রথমে দ্য গোল্ড রাশ চলচ্চিত্রে জন্য চ্যাপলিনের সাথে সাক্ষাৎ করতে আসার পর তারা প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। তিনি সন্দেহ করেন যে তিনি ৩৫ বছর বয়সী চ্যাপলিনের সন্তান গর্ভ ধারণ করেছেন। গ্রের বয়স ছিল তখন মাত্র ১৫ বছর। অপ্রাপ্তবয়স্ক তরুণীর সাথে শারীরিক সম্পর্কের কারণে চ্যাপলিনের জেল হতে পারে,[৫] এই বিবেচনায় তারা ১৯২৪ সালের নভেম্বরে মেক্সিকোর সনোরার এম্পাল্মেতে গোপনে বিয়ে করেন।[৬] তাদের দুই পুত্র, চার্লস চ্যাপলিন জুনিয়র (১৯২৫-১৯৬৮) ও সিডনি আর্ল চ্যাপলিন (১৯২৬-২০০৯)।[৭]

তাদের বৈবাহিক জীবন শুরু থেকেই বিষাদময় ছিল। তাদের দুজনের আগ্রহের বিষয়ে মিল ছিল না। চ্যাপলিন বেশিরভাগ সময় স্টুডিওতে ব্যয় করতেন।[৮] অন্য নারীদের সাথে চ্যাপলিনের সম্পর্ক রয়েছে এই কারণ প্রদর্শন করে ১৯২৭ সালের ২২ আগস্ট তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের মামলায় আদালত চ্যাপলিনকে গ্রের জন্য ৬০০,০০০ মার্কিন ডলার এবং তার দুই পুত্রের প্রত্যেকের জন্য ১০০,০০০ মার্কিন ডলার দেওয়ার আদেশ দেয়। এটি ছিল সেই সময়ের সর্বোচ্চ অর্থদণ্ডসহ বিবাহ বিচ্ছেদ মামলার নিষ্পত্তি। তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা সংবাদ মাধ্যমে বিশেশভাবে প্রচারিত হয়।[৯]

গ্রে পরে হেনরি আগুইয়ারকে বিয়ে করেন এবং তারপর আর্থার ডে কে। ১৯৪০ সালের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আদমশুমারি অনুসারে, গ্রে ও আর্থার নিউ ইয়র্ক সিটির ৩৮ ইস্ট ফিফটিথ স্ট্রিটে বসবাস করতেন, এবং ১৯৩৫ সালে আদমশুমারি অনুসারে তিনি ইংল্যান্ডে বসবাস করতেন। আদমশুমারি অনুসারে গ্রের পেশা ছিল সঙ্গীতশিল্পী এবং আর্থার ছিলেন একজন ব্যবস্থাপক। তার চতুর্থ স্বামী হলেন প্যাট্‌সি পিজ্জোলঞ্জো (ওরফে প্যাট লঞ্জো)। তারা ১৯৫৬ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসে বিয়ে করেন। ১৯৬৬ সালের জুনে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

গ্রে ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ১৯৯৫ সালের ২৯ ডিসেম্বর লস অ্যাঞ্জেলেসে মৃত্যুবরণ করেন। তাকে ক্যালিফোর্নিয়ার নর্থ হলিউডে ভালাহালা মেমোরিয়াল পার্ক সিমেট্রিতে সমাহিত করা হয়।

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর শিরোনাম ভূমিকা টীকা
১৯৮৩ আননোন চ্যাপলিন স্বয়ং টিভি অনুষ্ঠান
১৯৭৯ দ্য হলিউড গ্রেটস স্বয়ং টিভি অনুষ্ঠান
১৯৫৩ দিস ইজ ইওর লাইফ স্বয়ং টিভি অনুষ্ঠান
১৯৪৯ দ্য ডেভিল্‌স স্লিপ জজ রোজালিন্ড ব্যালেন্টাইন
১৯৩৮ স্কাইলাইন রেভ্যু পার্টির অতিথি স্বল্পদৈর্ঘ্য
১৯৩৩ সিজন্‌ড গ্রিটিংস দোকানদার স্বল্পদৈর্ঘ্য
মিস্টার ব্রডওয়ে লিটা গ্রে
১৯২৫ দ্য গোল্ড রাশ অতিরিক্ত শিল্পী অনুল্লেখ্য
১৯২১ দি আইডল ক্লাস তরুণী অনুল্লেখ্য
দ্য কিড পরী অনুল্লেখ্য

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Memoirs by Lita Grey Chaplin.
  2. Chaplin, Lita Grey and Jeffrey Vance. (1998). Wife of the Life of the Party. Lanham, MD: Scarecrow Press, pg. 2-3; আইএসবিএন ০-৮১০৮-৩৪৩২-৪.
  3. "The Gold Rush". http://www.charliechaplin.com/. Charlie Chaplin: The Official Website. Retrieved 2014-09-17.
  4. Chaplin, Lita Grey and Jeffrey Vance. (1998) Wife of the Life of the Party. Lanham, MD: Scarecrow Press, 4-13. আইএসবিএন ০-৮১০৮-৩৪৩২-৪.
  5. Robinson, পৃ. 346।
  6. Chaplin and Vance, p. 53; Vance (2003), p. 170.
  7. Robinson, পৃ. 355, 368।
  8. Robinson, পৃ. 350, 368।
  9. Louvish, p. 220; Robinson, pp. 372–374.

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

  • চ্যাপলিন, লিটা গ্রে; ভ্যান্স, জেফ্রী (১৯৯৮)। Wife of the Life of the Party (ইংরেজী ভাষায়)। Lanham, MD: Scarecrow Press। আইএসবিএন 0-8108-3432-4 
  • ল্যুভিশ, সাইমন (২০১০) [২০০৯]। Chaplin: The Tramp's Odyssey (ইংরেজী ভাষায়)। London: Faber and Faber। আইএসবিএন 978-0-571-23769-2 
  • রবিনসন, ডেভিড (১৯৮৬) [১৯৮৫]। Chaplin: His Life and Art (ইংরেজী ভাষায়)। London: Paladin। আইএসবিএন 0-586-08544-0 
  • ভ্যান্স, জেফ্রী (১৯৯৬)। "The Circus: A Chaplin Masterpiece"। Film History (ইংরেজী ভাষায়)। Indiana University Press। 8 (2): 186–208। জেস্টোর 3815334 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]