রেণু সেন (বসু)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রেণু সেন
Renu Sen.jpg
রেণু সেন
জন্ম২৮ ডিসেম্বর,১৯০৯
মৃত্যু২ জুলাই ১৯৪১
আন্দোলনভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন

রেণু সেন, বসু (২৮ ডিসেম্বর,১৯০৯ - ২ জুলাই ১৯৪১) একজন বাঙালি মহিলা বিপ্লববাদী ও সমাজকর্মী। ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনে তিনি অংশগ্রহণ করেছিলেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

রেণু সেনের জন্ম ব্রিটিশ ভারতে ঢাকার মুন্সিগঞ্জে তার মাতুলালয়ে। তার আদি নিবাস ছিল সোনারং। পিতা বিনোদবিহারী সেন ও মায়ের নাম কুসুমকনা সেন। অল্পবয়েসে দাদু উমাচরন সেনের প্রাথমিক শিক্ষা পান রেণু। ১৪/১৫ বছর বয়েসে মুন্সিগঞ্জ স্কুল থেকে ঢাকায় প্রখ্যাত বিপ্লবী নেত্রী লীলা নাগের 'দীপালী' স্কুলে ভর্তি হন। ১৯৩০ সালে বি.এ পাশ করেন।[১]

বিপ্লবী আন্দোলনে[সম্পাদনা]

১৯৩০ খ্রিষ্টাব্দের ১৬ সেপ্টেম্বর তিনি গ্রেপ্তার হন। ডালহৌসি বোমা মামলা ও সশস্ত্র বিপ্লবী আন্দোলনে যোগাযোগ থাকার দরুন তার কারাবাস হয় ১৯৩১ সালে। জেল থেকেই এম.এ পরীক্ষায় পাশ করেন। ১৯৩৭ খ্রিষ্টাব্দে মুন্সিগঞ্জে অন্তরীন থাকাকালীন অন্তরীন বন্দী হিসেবে ভাতা বা উপার্জনের সুযোগ দাবী করে আবেদন জানান। কোনো উত্তর না পেয়ে অন্তরীন আইন ভঙ্গ করেন। এই মামলায় সরকারের বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে তার জয় হয়।[২]

অন্যান্য কাজ[সম্পাদনা]

১৯৩০ সালে লীলা নাগের পরিকল্পনা অনুসারে কলকাতায় 'ছাত্রী ভবন ও দীপালি ছাত্রী সংঘ' কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। কলকাতায় ছাত্রীদের থাকার জন্যে হোস্টেল কম ছিল, তাদের জন্যে এই আবাসিকা গড়ে ওঠে তার উদ্যোগে। দীপালী' ছাত্রী সংঘ বাংলার নারীকল্যাণ ও বিপ্লবী আন্দোলনে এক সুপরিচিত নাম।[৩] লীলা নাগের সম্পাদনায় নারীমুক্তি ও স্বাধীনতা আন্দোলন সংক্রান্ত 'জয়শ্রী' পত্রিকা প্রকাশে তার উদ্যোগ ও সাংগঠনিক ক্ষমতা প্রশংসনীয়। বরিশালে মহিলা আত্মরক্ষা সমিতির সম্মেলনে গ্রামে গ্রামে ঘুরে প্রচার করেছেন কর্মদক্ষতার সাথে। ১৯৪০ সালে বিপ্লবী ও গবেষক ড. অতীন্দ্রনাথ বসুর সাথে তার বিবাহ হয়।[১][২]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২ জুলাই, ১৯৪১ সালে মাত্র ৩১ বছর বয়েসে তিনি মারা যান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. কমলা দাশগুপ্ত (২০১৫)। স্বাধীনতা সংগ্রামে বাংলার নারী। কলকাতা: র‍্যাডিকাল ইম্প্রেশন। পৃষ্ঠা ১৬২, ১৬৩। 
  2. প্রথম খন্ড, সুবোধচন্দ্র সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত (২০০২)। সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান। কলকাতা: সাহিত্য সংসদ। পৃষ্ঠা ৪৯৩। 
  3. রফিকুল ইসলাম। "লীলা নাগ"। গুণীজন। সংগ্রহের তারিখ ১৯.০১.১৭  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)