বিষয়বস্তুতে চলুন

রূপচাঁদ হাঁসদা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রূপচাঁদ হাঁসদা
২০১৮ সালে রূপচাঁদ হাঁসদা
জাতীয়তাভারতীয়
মাতৃশিক্ষায়তনকাপগাড়ি কলেজ
পেশালেখক, চাকরিজীবী

রূপচাঁদ হাঁসদা হলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একজন সাঁওতালি লেখক ও চাকরিজীবী। তিনি ২০১৮ সালে সাঁওতালি অনুবাদের জন্য সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন ও শিক্ষা

[সম্পাদনা]

রূপচাঁদ হাঁসদা গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। চিরুডি বিবেকানন্দ হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক শিক্ষা সম্পন্ন করে ঝাড়গ্রামের কাপগাড়ি কলেজ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন তিনি।[১]

কর্মজীবন

[সম্পাদনা]

রূপচাঁদ হাঁসদা ভারতীয় রেলে কর্মরত আছেন।[১] তিনি সর্বভারতীয় সাঁওতালি লেখক সংঘের সভাপতি ছিলেন। তিনি সভাপতি হিসেবে ২৭ বছর দায়িত্ব পালন করেন।[১] রূপচাঁদ হাঁসদা শক্তি চট্টোপাধ্যায় রচিত কাব্যগ্রন্থ যেতে পারি কিন্তু কেন যাবো সাঁওতালি ভাষায় সেন দারেয়াক'আন মেনখান চেদাক শিরোনামে অনুবাদ করেন। অনূদিত গ্রন্থটি ২০১৬ সালে প্রকাশিত হয়েছিল।[১] বইটির জন্য তিনি ২০১৮ সালে সাঁওতালি অনুবাদের জন্য সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার লাভ করেন।[২][৩]

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. "অকাদেমি পুরস্কার পাচ্ছেন রূপচাঁদ"আনন্দবাজার পত্রিকা। ১৪ জুন ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০১৯ 
  2. "AKADEMI TRANSLATION PRIZES (1989-2018)"Sahitya Akademi। সংগ্রহের তারিখ ২০ নভেম্বর ২০১৯ 
  3. "Majuli always part of world heritage: Nemade"The Assam Tribune। ৭ ডিসেম্বর ২০১৮। ৬ নভেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ নভেম্বর ২০১৯