বিষয়বস্তুতে চলুন

রুমাল (ধর্মীয় বস্ত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রুমালে অঙ্কিত কৃষ্ণকে পূজা রত গোপীদের দৃশ্য। ১৮ শতকের শেষ থেকে ১৯ শতকের প্রথম দিকে, চম্বা জেলা, হিমাচল প্রদেশ, ভারত। আনুষ্ঠানিক/আচার গৃহসজ্জা, সুতির উপর সিল্ক এমব্রয়ডারি। লস এঞ্জেলেস কাউন্টি মিউজিয়াম অফ আর্ট টেক্সটাইল সংগ্রহ

রুমাল (ধর্মীয় বস্ত্র) (পাঞ্জাবি: ਰੁਮਾਲ) হল একটি রুমাল বা ব্যান্ডানার অনুরূপ কাপড়ের টুকরো। যে সব শিখ পুরুষ চুল কেটে ফেলেছেন, তাঁরা এবং অন্যান্য অতিথিরা যখন গুরুদ্বারে প্রবেশ করেন, তখন তাঁরা এটি দিয়ে মাথা ঢাকেন। মাথা ঢেকে রাখা শিখ ধর্মে সম্মানজনক এবং যদি কোন মানুষ পাগড়ি না পরেন, তাহলে গুরুদ্বারে প্রবেশের আগে তাঁকে অবশ্যই রুমাল দিয়ে মাথা ঢাকতে হবে। যে সব শিখ ছেলেরা তাদের চুল কাটেনা, তারা তাদের লম্বা চুল চুড়ো করে বেঁধে তা এই রুমাল দিয়ে ঢেকে রাখে। যে সব শিখ পুরুষরা অ্যাথলেটিক কার্যকলাপে জড়িত থাকেন তাঁরা অনুশীলন এবং প্রতিযোগিতার সময় এই রুমাল পরিধান করেন।

এই কাপড়কে "হলুদ স্কার্ফ" হিসাবে বর্ণনা করা হয়; "হলুদ", এই ক্ষেত্রে, উজ্জ্বল হলুদের পরিবর্তে একটি প্রাকৃতিক ক্রিম বা খাকি রঙ বোঝানো হয়।[১]

বেশিরভাগ গুরুদ্বারে, প্রায়শই আরও অতিথিদের স্বাগত জানানোর জন্য দরজার বাইরে ঝুড়িতে রুমাল রাখা থাকে। যদি গুরুদ্বার থেকে কোন রুমাল পাওয়া না যায়, তাহলে যে কোন একটি পরিষ্কার এবং সাধারণ রুমাল এই উদ্দেশ্যে ব্যবহার করার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত কাপড়।

শিখ ধর্মের বাইরে রুমাল[সম্পাদনা]

শিখ ধর্মের প্রেক্ষাপটের বাইরে, উর্দু, হিন্দি, নেপালি এবং বাংলা ভাষায় রুমাল শব্দ দিয়ে বোঝানো হয় হাত মুখ মোছার জন্য ব্যবহার করা কাপড়ের টুকরো। শিখ ধর্মের সাথে এর কোন যোগসূত্র নেই।

রুমাল অস্ত্র[সম্পাদনা]

ভারতে ঠগিরা লুঠের উদ্দেশ্যে শ্বাসরোধ করার জন্য রুমাল ব্যবহার করত। রুমালের এক প্রান্তে একটি মুদ্রা গিঁট দিয়ে বাঁধা হত, তারপর সেটি দুলিয়ে শিকারের দিকে ছুঁড়ে দেওয়া হত। সেটি শিকারের গলায় জড়িয়ে যেত। এরপর তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হত।

১৯৭০ এর দশকের টেলিভিশন সিরিজ ড্যাড'স আর্মির "উই নো আওয়ার ওনিয়নস" পর্বে, কর্পোরাল জোন্স এমন একটি রুমাল দিয়ে ক্যাপ্টেন রামসেকে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করেছিল।[২][৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Rumāl"। ২ এপ্রিল ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০২২ 
  2. Richard James Popplewell (১৯৯৫)। Intelligence and imperial defence: British intelligence and the defence of the Indian Empire, 1904-1924। Frank Cass। পৃষ্ঠা 11। আইএসবিএন 978-0-7146-4580-3। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১১ 
  3. Lois H. Gresh; Robert Weinberg (৪ এপ্রিল ২০০৮)। Why Did It Have To Be Snakes: From Science to the Supernatural, The Many Mysteries of Indiana Jones। John Wiley and Sons। পৃষ্ঠা 104–107। আইএসবিএন 978-0-470-22556-1। সংগ্রহের তারিখ ১৬ এপ্রিল ২০১১