রাষ্ট্রীয় ইস্পাত নিগম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রাষ্ট্রীয় ইস্পাত নিগম লিমিটেড
সরকারি খাতের উদ্যোগসমূহ
শিল্পইস্পাত
লৌহ
প্রতিষ্ঠাকাল১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৮২ (1982-02-18)[১]
সদরদপ্তরবিশাখাপত্তনম, ভারত
প্রধান ব্যক্তি
প্রদোষ কুমার রথ
(চেয়ারম্যানএমডি))
পণ্যসমূহতারের রড, টিএমটি রি-বারস, রাউন্ড, স্কোয়ার, ফ্ল্যাট, কোণ, চ্যানেল, রেল চাকা
পরিষেবাসমূহইস্পাত উৎপাদন
আয়বৃদ্ধি২০,৪৯২.০৩ কোটি (US$২.৭৭ বিলিয়ন) (২০১৮-১৯)[২]
বৃদ্ধি৯৬.৭১ কোটি (US$১৩.০৬ মিলিয়ন) (২০১৮-১৯)[২]
মোট সম্পদবৃদ্ধি৩৫,২০১.৩১ কোটি (US$৪.৭৫ বিলিয়ন) (২০১৮-১৯)[২]
মোট ইকুইটিবৃদ্ধি৭,৩৫২.২৮ কোটি (US$৯৯২.৫৯ মিলিয়ন) (২০১৮-১৯)[২]
মালিকভারত সরকার
কর্মীসংখ্যা
১৭,৫৭৪ (মার্চ ২০১৯)[২]
অধীনস্থ প্রতিষ্ঠানইস্টার্ন ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড (ইআইএল)
দ্য ওড়িশা মিনারেলস ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড (ওমডিসি)
দ্য বিসরা স্টোন লাইম কোম্পানি লিমিটেড (বিএসএলসি)
ওয়েবসাইটwww.vizagsteel.com

ভাইজাগ স্টিল নামে পরিচিত রাষ্ট্রীয় ইস্পাত নিগম লিমিটেড (আরআইএনএল হিসাবে সংক্ষিপ্ত) ভারতের বিশাখাপত্তনমে অবস্থিত একটি সরকারি ইস্পাত উৎপাদক সংস্থা। রাষ্ট্রীয় ইস্পাত নিগম লিমিটেড (আরআইএনএল) বিশাখাপত্তনম ইস্পাত কারখানা (ভিএসপি) -এর কর্পোরেট সত্তা, যা অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে নির্মিত ভারতের প্রথম উপকূল ভিত্তিক সুংহত ইস্পাত কারখানা। বিশাখাপত্তনম ইস্পাত কারখানাটি (ভিএসপি) একটি ৭.৩ মিলিয়ন টন (প্রতি বছর) উৎপাদন ক্ষমতা সম্পূর্ণ কারখানা। এটি ১৯৯২ সালে ৩.০ মিলিয়ন টন (প্রতি বছর) তরল ইস্পাতের উতপাদনের ক্ষমতা সহ চালু হয়। সংস্থাটি পরবর্তীতে তার সক্ষমতা সম্প্রসারণ করে; ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে ৬.৩ মিলিয়ন টন (প্রতি বছর) এবং ২০১৭ সালে ডিসেম্বর মাসে ৭.৩ মিলিয়ন টন (প্রতি বছর) উৎপাদনের সক্ষমতায় পৌঁছায়। সংস্থার একটি সহায়ক সংস্থা রয়েছে। সহায়ক সংস্থাটি হল ৫১% শেয়ারহোল্ডিং সহ ইস্টার্ন ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড (ইআইএল), যার আবার দুটি সহায়ক সংস্থা রয়েছে, এগুলি হল মেসার্স ওড়িশা খনিজ উন্নয়ন সংস্থা লিমিটেড (ওএমডিসি) ও মেসার্স বিসরা স্টোন লাইম কোম্পানি লিমিটেড (বিএসএলসি)। সংস্থার যৌথ ভেনচারের আকারে যথাক্রমে ৫০% ও ২৬.৪৯% শেয়ারহোল্ডিংয়ের সাথে রিনমিল ফেরো অ্যালয় প্রাইভেট লিমিটেড ও ইন্টারন্যাশনাল কোল ভেনচার লিমিটেডে অংশীদারত্ব রয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "RINL Formation Day Celebrated" (PDF)। Rashtriya Ispat Nigam Limited। সংগ্রহের তারিখ ২ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  2. "Balance Sheet 31.03.2019".

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]