রাভিন্দর কৌশিক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
রবীন্দ্র কৌশিক
জন্ম রবীন্দ্র কৌশিক
(১৯৫২-০৭-২৬)২৬ জুলাই ১৯৫২
শ্রী গঙ্গানগর, রাজস্থান, ভারত
মৃত্যু ২৬ জুলাই ১৯৯৯(১৯৯৯-০৭-২৬) (৪৭ বছর)
নিউ সেন্ট্রাল জেল, মুলতান, পাঞ্জাব প্রদেশ, পাকিস্তান
জাতীয়তা ভারতীয়

রাভিন্দর কৌশিক (ইংরেজি ভাষায়: Ravindra Kaushik) (জন্ম:১৯৫২ - মৃত্যু:২০০১) ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইং (র) এর একজন সাবেক এজেন্ট। তিনি পাকিস্তানে গুপ্তচরবৃত্তির কাজে ধরা পড়েন এবং সেখানেই মৃত্যুবরন করেন।[১][২][৩][৪]

জীবনী[সম্পাদনা]

রাভিন্দর কৌশিক রাজস্থান রাজ্যের শ্রী গঙ্গানগরে ১১ এপ্রিল ১৯৫২ সালে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি কিশোর জীবনে থিয়েটার কর্মী হিসেবে লক্ষ্নৌতে জনপ্রিয় ছিলেন। সেখান থেকেই তাকে গোয়েন্দা সংস্থার জন্য নির্বাচিত করা হয়। ২৩ বছর বয়সে তিনি পাকিস্তানে গুপ্তচরবৃত্তির কাজে মিশনে যান।[১] তাকে পাকিস্তানে একটি মিশনে পাঠানো হয়েছিল। তিনি গঙ্গানগরের অধিবাসী হওয়ার জন্যে পাঞ্জাবী আগে থেকেই জানতেন। উর্দু ভাষা ও পাকিস্তানের খুঁটিনাটি, ইসলাম ধর্ম সম্পর্কিত তথ্য বিশদে পড়াশোনা করতে হয়।।[৫][৬]

পাকিস্তানে জীবন[সম্পাদনা]

রাভিন্দর কৌশিক পাকিস্তানে ১৯৭৪ সালে নবী আহমেদ শাকির নাম ধারণ করে প্রবেশে করেন। তিনি করাচী বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ভর্তি হন। এলএলবি পাশের পর তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে প্রবেশ করেন করণিক হিসাবে। অর্থ বিভাগের করনিক থেকে উন্নতি করে মেজর হিসেবে যোগদান করেন। পাক সেনাবাহিনীর বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তিনি ভারতে পাঠান। ১৯৭৯ সাল থেকে ১৯৮৩ সাল পর্যন্ত তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে সক্রিয় ছিলেন। ১৯৮৩ সালে তিনি ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থার ভুলে ধরা পড়েন। ইনায়েত মাশিহ নামক এক ভারতীয় গুপ্তচরকে পাকিস্তানে পাঠানো হয় কৌশিকের সাথে যোগাযোগ করার উদ্দেশ্যে। কিন্তু পাক গোয়েন্দা সংস্থার হাতে ইনায়েত ধরা পড়লে কৌশিকও গ্রেপ্তার হন। তাকে বিভিন্ন জেলে রাখা হয়।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে পাকিস্তানের এক নারীকে বিবাহ করেন। তার স্ত্রীর নাম ছিল আমানত। তাদের এক কন্যাসন্তান আছে।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

গোয়েন্দা হিসেবে ধরা পড়ার পরে তাকে কোর্ট মার্শালে মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়। কিন্তু পাকিস্তানের সুপ্রীম কোর্ট তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করে। ২০০১ সালে তিনি পালমোনারি টিউবারকিউলোসিস ও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা হীন অবস্থায় মুলতান জেলেই মৃত্যুবরন করেন।

সম্মান[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "India’s forgotten spy - Agent’s family fights an impossible battle"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২ 
  2. "Ek Tha Tiger: Not Salman Khan, meet the real Indian Tiger!"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২ 
  3. "Ek Tha Black Tiger: Real life tale of a true patriot"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২ 
  4. "Late spy’s kin fight for reel life credit"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২ 
  5. "Salman Khan's new movie in controversy again"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২ 
  6. "Dead RAW agent's nephew takes Salman's Ek Tha Tiger producers to court"। সংগৃহীত ১৭ Aug ২০১২