রাফায়েল কাসানোভা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাফায়েল কাসানোভা ই কোমেস
Rafael Casanova (Rossend Nobas - copia reducida).jpg
কনসেলার এন ক্যাপ অফ বার্সেলোনা
কাজের মেয়াদ
৩০শে নভেম্বর, ১৭১৩ – ১১ই সেপ্টেম্বর, ১৭১৪
সার্বভৌম শাসকপবিত্র রোমান সম্রাট ষষ্ঠ চার্লস
পূর্বসূরীম্যানুয়েল ফ্লিক ই ফেরেরো
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মসিরকা ১৬৬০
মোঁয়ে
মৃত্যু২ মে ১৭৪৩(1743-05-02) (বয়স ৮৩)
সন্ত বই দ্য লিওব্রেগাট
জাতীয়তাকাতালান
রাজনৈতিক দলঅস্ট্রিয়াসিস্ট
দাম্পত্য সঙ্গীমারিয়া বসচ ই বার্বা
পেশাআইনজীবি
ধর্মক্যাথলিজম
স্বাক্ষর

রাফায়েল কাসানোভা ই কোমেস (কাতালান উচ্চারণ: [rəˈfɛɫ ˌkazəˈnɔβə]) (মোঁয়ে, ১৬৬০ - সন্ত বই দ্য লিওব্রেগাট, ২রা মে, ১৭৪৩[১][২]) একজন কাতালান বিচারক ছিলেন। তিনি স্প্যানিশ সাক্‌সেশন যুদ্ধকালীন সময় স্পেনের মুকুট-এর উমেদার হিসেবে পবিত্র রোমান সম্রাট ষষ্ঠ চার্লস-এর সমর্থক ছিলেন। তিনি বার্সেলোনার অবরোধের[২] সময় বার্সেলোনার মেয়র এবং কাতালোনিয়ার কমান্ডার ইন চিফ ছিলেন[৩], যতদিন না তিনি সান পিটারে বার্সেলোনা সামরিক বাহিনীর পাল্টা-আক্রমণকালে ১১ই সেপ্টেম্বর, ১৭১৪-এ, নেতৃত্বদানকালীন সময়ে আহত হন[২]। আহতাবস্থা থেকে ফিরে এসে তিনি রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে একজন আইনজীবি হয়ে যুদ্ধ করেন এবং বলা হয়ে থাকে তিনি রেকর্ড দ্য এল'আলিয়েন্সা ফেতা আ জোর্ডি অগাস্টো দ্য লাঁ গ্রান ব্রিটানিয়া (গ্রেট ব্রিটেনের প্রথম জর্জ জোটের স্মরণে) বইটির লেখক। বইটিতে কাতালোনিয়া ইংল্যান্ডকে জেনোয়া চুক্তির সম্পূর্ণতা বলে উল্লেখ করে।

জীবন[সম্পাদনা]

তিনি মোঁইয়েতে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৪ বছর বয়স পর্যন্ত সেখানেই বসবাস করেন। বর্তমানে সেই বাড়িটি রাফায়েল কাসানোভা জাদুঘর। তিনি রাফায়েল কাসানোভা ও সোলা (১৬২৫-১৬৮২) এর এগার সন্তানের একজন। তার জন্মের সময় কাসানোভা ভাল অর্থনৈতিক অবস্থানে ছিল যা তাদের জমির শতবছরের কৃষিকার্যের মধ্য দিয়ে তৈরি হয়েছিল।[২] এছাড়াও তারা শস্য উৎপাদন করত এবং শক্তিশালী টেক্সটাইল কারখানার জন্য উল সরবরাহ করত। এই পরিবারের রাজনৈতিক কর্মসূচীতে অবদানের ইতিহাস আগে থেকেই ছিল, কারণ তার পিতাই ছিলেন মেয়র।

পরিবারটি জমির উত্তরাধিকার ধরে রাখে তার ভাই ফ্রান্সিসকো কাসানোভার জন্য। তরুণ রাফায়েল বার্সেলোনার নাগরিকত্ব নিয়ে সেখানে চলে যায় এবং ১৬৭৮ সালে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন। তিনি আইনে ডিগনিটি অফ ডক্টর লাভ করেন। ১৬৮২ সালে তার বাবা এবং ১৬৮৪ সালে তার মা পরলোকগমন করেন। তিন বছর পর, ১৬৮৭ সালে তার বড়ভাই ফ্রান্সিস বার্সেলোনার সম্মানিত নাগরিক মর্যাদায় অধিষ্ঠিত হন; মোঁইয়ে "বার্সেলোনার রাস্তার হাত" মর্যাদাপ্রাপ্ত হন এবং তাই মোঁইয়ের মানুষ ও তাদের বাড়িঘর বার্সেলোনার পরিচালকদের বিচার থেকে রেহাই পান।

১৬৯৬ সালে তার ক্যারিয়ার প্রতিষ্ঠিত হয়। তিনি উত্তরাধিকারী মারিয়া বসচ বেয়ার্ডকে বিয়ে করেন। মারিয়া পল ও মেরি বেয়ার্ড বসচ-এর কন্যা। বসচ পরিবার বার্সেলোনার মুদি পরিবারের সদস্য যাদের সন্ত বই দ্য লিওব্রেগাট-এ গুরুত্বপূর্ণ সম্পত্তি ছিল। মারিয়া বসচ মেডিকেল চিকিৎসক জোসেফ ক্যাম্পলিওনচ ই পিগের বিধবা স্ত্রী ছিলেন এবং তাদের জোসেফ নামের এক পুত্র ছিল। বলা হয়ে থাকে বিয়েতে রাফায়েল কাসানোভা এমনভাবে প্রবেশ করেন যা বসচের সম্পদের অধিকার অর্জনের ন্যায় ছিল না। বিয়ের পর শুধুমাত্র কন্যাসন্তানই জন্মগ্রহণ করতেন। এর অর্থ হল পরিবারটির কোন উত্তরাধিকারী ছিল না। রাফায়েল কাসানোভা, যিনি মোঁইয়ে থেকে এসেছিলেন, বার্সেলোনায় অর্থনৈতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ স্থান লাভ করেন। বসচেরও সম্পত্তি রক্ষার জন্য এক পুত্রসন্তান লাভ হল। পল ২, ৭৫০ পাউন্ড যৌতুক দেন এবং প্রতি সন্তানদের জন্য ২, ৫০০ পাউন্ড করে দেন। রাফায়েল কাসানোভা ও মারিয়া বসচ জ্যাউম সন্ত প্লাজার নিকট বানিয়াস নৌসের রাস্তায় বসবাস করতে শুরু করেন। তবে ম্যানর বাড়িটি সন্ত বউ দ্য লিওব্রেগাটের রয়ে যায় এক ধরনের গ্রীষ্মকালীন বাড়ি হিসেবে। তাদের চার সন্তান ছিলঃ প্রথম সন্তান ফ্রান্সিস যিনি ১৭১০-এ মারা যান; পল ও তেরেসা নামধারী দুই জমজ যারা ১৭০৪ সালে জন্মাবার পর মারা যায় এবং রাফায়েল কাসানোভা বসচ, চতুর্থ সন্তান, ১৭০১-এ জন্মগ্রহণ করেন এবং একমাত্র বংশধর যে প্রাপ্তবয়স পর্যন্ত বেঁচে ছিলেন এবং হেরিটেজ বসচের উত্তরাধিকারী হন।

২৯শে ডিসেম্বর, ১৭০৪ সালে মারিয়া বসচ এক শিশু জন্ম দেবার সময় মারা যান এবং এর কয়েকদিন পরেই তার দুই জমজ সন্তান পরলোকগমন করে।

উটরেচটের শান্তি এবং কেস অফ দ্য কাতালানস '[সম্পাদনা]

এপ্রিল, ১৭১৪ সালে হাউস অফ লর্ডস কিছু ব্যতিক্রমহীন অধিবেশন আহবান করেন যা কেস অফ দ্য কাতালানস নামে পরিচিত। বিষয়টি ছিল ১৭০৫ সালে কাতালান প্রতিনিধিদের এবং ইংল্যান্ডের রানী অ্যান এর পূর্ণক্ষমতাপ্রাপ্ত এজেন্টদের মধ্যে সাক্ষরকৃত চুক্তি। ঐ চুক্তিতে কাতালোনিয়া ইংল্যান্ডকে সহায়তা করার জন্য যুদ্ধে নিজেকে নিয়োজিত করে এবং কাতালান সংবিধানকে বিচ্যুত না করেই তা করে। উটরেচটের শান্তিতে কাতালানরা ইংরেজ মন্ত্রীদের কর্তৃক বিশ্বাসঘাতকতার সম্মুখীন হয়। সব প্রত্যাশার বিরুদ্ধে, এবং একটি সেরা সেনাদের সম্মুখীন হয়েও, কাতালান প্রতিষ্ঠান রাজা ফিলিপ-এর বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এবং সর্বোচ্চ মূল্যে তাদের সাংবিধানিক সিস্টেম ও স্বাধীনতা রক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

কাতালান স্বাধীনতা রক্ষা করাটা ইংল্যান্ডের ব্যাপার নয়।

— হেনরি সন্ত জন, বৈদেশিক বিভাগীয় সচিব; (উটরেচট, ১৭১৩)

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

গ্রন্থবিবরণী[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:Translation/Ref