রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়
RarishalKarabHighSchool.jpg
অবস্থান
রাঢ়িশাল, হবিগঞ্জ-লাখাই সড়ক, লাখাই, হবিগঞ্জ
বাংলাদেশ
তথ্য
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৪৩
প্রধান শিক্ষকছানোয়ার মোহাম্মদ রেজাউল করিম
শ্রেণীশ্রেণী ৬-১০
শিক্ষার্থী সংখ্যা৭০০ (প্রায়)
ক্যাম্পাসের আকার১৬ একর (প্রায়)

রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, যা ১৯৪৩ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়টি লাখাই উপজেলার করাব ইউনিয়নের রাঢ়িশাল গ্রামে লাখাই-হবিগঞ্জ সড়কের পাশে সুবিশাল জায়গা নিয়ে অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

নতুন একাডেমিক ভবন।

ব্রিটিশরা যখন বাংলাদেশ শাসন করছিল তখনকার সময়ে এই বিদ্যালয়টি করাব ও রাঢ়িশাল দুটি গ্রামের স্থানীয় বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব দ্বারা ১৯৪৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এই উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য আরো অজানা অনেকেই তাদের অনুদান ও মূল্যবান সময় দিয়ে স্মরণীয় হয়ে আছেন। এই বিদ্যালয় একটি স্বাভাবিক ভবন নিয়ে শুরু করে এবং পরবর্তীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল এর সহায়তায় এখন চারটি বিশাল ভবনের অধিকারী।

অবস্থান[সম্পাদনা]

এই বিদ্যালয়টি রাঢ়িশাল গ্রামের উত্তর-পশ্চিমে এবং করাব গ্রামের দক্ষিণ পশ্চিমে হবিগঞ্জ লাখাই সড়কের পাশে। হবিগঞ্জ-লাখাই সড়কের পাশে অবস্থিত হওয়ায় বিদ্যালয়টির যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত। জিওগ্রাফিক্যাল অবস্থান ২৪°১৯'০৩.৪"উত্তর ও ৯১°১৯'২৯.৫"পূর্ব। স্থানাঙ্ক: ২৪°১৯′০৩.৪″ উত্তর ৯১°১৯′২৯.৫″ পূর্ব / ২৪.৩১৭৬১১° উত্তর ৯১.৩২৪৮৬১° পূর্ব / 24.317611; 91.324861

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়টি মাধ্যমিক স্তর(এসএসসি) পর্যন্ত শিক্ষা প্রদান করে থাকে। বিদ্যালয়টির শিক্ষা ব্যবস্থা যৌথ। একই সাথে ছেলে ও মেয়ে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নেওয়া হয়। বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা ৩টি গ্রুপ বিদ্যমান। বিদ্যালয়টির দৈনিক কার্যক্রম শুরু হয় সকাল ৯:০০ঘটিকায় এবং শেষ হয় বিকাল ৫:০০ ঘটিকায়। ম্যানেজিং কমিটি দ্বারা বিদ্যালয়টি পরিচালিত হয়। [১] উপজেলা চেয়ারম্যান ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, প্রধান শিক্ষক সহ-সভাপতি হয়ে থাকেন। ২০১৪ সাল হইতে বিদ্যালয়টি এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরিণত হয়। [২]

শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রম[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক ভবন পিছনে একটি খেলার মাঠ আছে। বিদ্যালেয়র সকল বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা প্রতি বছর এখানেই অনুষ্ঠিত হয়। কখনও কখনও আন্তঃ-বিদ্যালয় প্রোগ্রাম এই মাঠটিতে অনুষ্ঠিত হয়। ভিন্ন ভিন্ন বিদ্যালয়েরর ছাত্ররা এখানে আসে তাদের বিদ্যালয়ের হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে।[৩] মুসলমান ছাত্রদের জন্য একটি মসজিদ রয়েছে এবং হিন্দু শিক্ষার্থীরাও বার্ষিক স্বরস্বতী পূজা আয়োজন করছে। বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় ছাত্রছাত্রীরা তাদের বয়স ও শ্রেণী অনুযায়ী অংশগ্রহণ করতে পারে।

জানুয়ারী ৩০, ২০১৫ অনুষ্ঠিত প্রথম ছাত্র পুনর্মিলনী। মাননীয় সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ আবু জাহির বিদ্যালয়টিকে এক বছরের মধ্যে কলেজে উন্নীত করার আশ্বাস দেন তার সরকারের পক্ষ থেকে।[৪]

বিগত কয়েক বছরের সাফল্য[সম্পাদনা]

বছর অনুযায়ী পাশের হার [৫]
বছর পরীক্ষার্থী পাশের সংখ্যা পাশের হার % এ+
২০১৮ ১৯৯ ১৭৫ ৮৮%
২০১৭ ১৬৯ ১৩২ ৭৪%
২০১৬ ১৭৬ ১৫৭ ৮৯%
২০১৫ ১৫২ ৮০ ৫৩%
২০১৪ ১২৭ ১১২ ৮৮%
২০১৩ ১১৪ ১০০ ৮৮%
২০১২ ১১২ ৯৯ ৮৮%
২০১১ ১০৩ ৯৩ ৯০%
২০১০ ৮০ ৫৬ ৭০%
২০০৯ ৭৯ ৫৭ ৭২%

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সমঝোতা নির্বাচনে পরাজিত ৩ প্রার্থীর বিশৃংখলা সৃষ্টির অভিযোগ"www.habiganj-samachar.com। ১৭ মে ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৯ 
  2. "রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়টি নতুন পরীক্ষা কেন্দ্র"www.swadeshbarta.com। ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. "রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়ে জেলা ক্রীড়া অফিসের মাসব্যাপি সাঁতার প্রশিক্ষণ উদ্বোধন"www.dailykhowai.com। ৩ এপ্রিল ২০১৯। ৩ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. "এক বছরের মধ্যে রাঢ়িশাল করাব উচ্চ বিদ্যালয়কে কলেজে উন্নীত করা হবে"www.dailykhowai.com। ৩১ জানুয়ারী ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৯ 
  5. "বিগত বছরের সাফল্য"। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৯ https://www.sohopathi.com/rarhishal-karab-high-school/#result