রহমতুল্লাহ মীর কাসেমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শায়খ

রহমতুল্লাহ মীর কাসেমী
ব্যক্তিগত
ধর্মইসলাম
যেখানের শিক্ষার্থীদারুল উলুম দেওবন্দ
এর প্রতিষ্ঠাতাদারুল উলুম রহিমিয়্যা
মুসলিম নেতা
এর শিষ্যমাহমুদ হাসান গাঙ্গুহী

রহমতুল্লাহ মীর কাসেমি একজন কাশ্মীরি ইসলামি পণ্ডিত, কাশ্মীরের অন্যতম বৃহত্তম ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় দারুল উলূম রাহিমিয়্যার প্রতিষ্ঠাতা এবং আচার্য। [১][২][৩] তিনি দারুল উলুম দেওবন্দের মজলিসে শূরার সদস্য,[৪] অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য [৫] এবং জমিয়তে উলামা-ই-হিন্দের ওয়ার্কিং কমিটির সদস্য[৬]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

কাসমী দারুল উলূম দেওবন্দের প্রাক্তন ছাত্র এবং তাসাউউফের মাহমুদ হাসান গঙ্গোহীর শিষ্য। [২][৭]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

কাসেমী ১৯৭৯ সালে দারুল উলুম রহিমিয়্যা প্রতিষ্ঠা করে, যেটি কাশ্মীরের একটি বৃহত্তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়।[৮] এটি দারুল উলূম দেওবন্দের মূলনীতি অনুসরণ করে। [৯]

কাসেমী অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং দারুল উলূম দেওবন্দের মজলিসে শূরার সিনিয়র সদস্য। তিনি জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ- এর ওয়ার্কিং কমিটিরও সদস্য। [৪][৫][৬]

২০১৮ সালে তিনি মাদ্রাসা শিক্ষা আইন নিয়ে জে এবং কে স্টেট বোর্ডের বিরুধিতা করেন বলেন:[১০]

আমরা জানি যে, কীভাবে সরকারী হস্তক্ষেপের কারণে ওয়াকফ এর সাথে সম্পর্কিত এই ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলির অবনতি ঘটে।

তিনি আরও বলেছিলেন যে এই মাদ্রাসাগুলিতে অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণের জন্য বোর্ডগুলিকে অনুমোদন দেওয়ার ফলে এই সংস্থাগুলির প্রতি লোকদের দ্বারা প্রদত্ত তহবিলের ব্যবহারে দুর্বলতা ঘটবে। [১০]

রচনাবলি[সম্পাদনা]

কাসেমীর বইগুলির মধ্যে রয়েছে:[১১]

  • ইসলামী দৃষ্টিকোণে নীতিমালা
  • অপ্রত্যাশিত বিপর্যয়
  • Sailab! আজমাইশ ইয়া আজাব ( ইংরেজি : বন্যা! পরীক্ষা বা নির্যাতন )
  • মাজুরিয়েন কে লিয়ে কুরসি পার নামাজ ( ইংরেজি : প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রার্থনা প্রার্থনা )
  • আযমিন-এ-হারামায়ণ শরীফায়ণ কি খিদমত মই হাদ্যা
  • উলামা-ই-কিরাম AWR আউলিয়া-ই-Izam কি Touheen Se থেকে Bachiye ( ইংরেজি : না মানহানি আলেমগণ, আউলিয়ার )।
  • খুতবতে-ইমান ( ইংরেজি : Theমানের ভাষণ)
  • রহমতোএন কা মাহেনা, জারুরী মাসাইল আরআর গুজারিশাত ( ইংরেজি : রহমতের মাস, গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন এবং তাদের উত্তর )।
  • উলামা-ই-দেওবন্দ এবং জন্য তাদের ভালবাসা রাসুলুল্লাহ [১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Muhammad Amin Malik (২২ জুন ২০১৬)। "Remembering Kausar Sahib (RA)"Rising Kashmir। ১০ এপ্রিল ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  2. Shujaat Bukhari (১২ মে ২০১৬)। "Don't Make Kashmir a Battleground for Islamic Schools of Thought"। The Citizen। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  3. "An Islamic University"Greater Kashmir। ১৪ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  4. "ﻋﻠﻤﺎﺋﮯ ﺩﯾﻮ ﺑﻨﺪ کی ﺑﮍﮮ ﮔﻮﺷﺖ ﭘﺮ ﭘﺎﺑﻨﺪﯼ پر ﺗﺸﻮﯾﺶ کا اظہار (Deobandi Scholars express concerns over Beef ban)" (Urdu ভাষায়)। The Kashmir Pulse। ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  5. "Founding members of AIMPLB"aimpbboard.inAll India Muslim Personal Law Board। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  6. "Working Committee of Jamiat Ulama-e-Hind"jamiat.org.inJamiat Ulama-e-Hind। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  7. Hadhrat Mufti Mahmood Hasan Gangohi: His Life and Works (PDF) (1st, February 2011 সংস্করণ)। Ta’limi Board (KZN)। পৃষ্ঠা 236। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  8. Yoginder Sikand (২৯ জুলাই ২০০৭)। "Kashmir's Largest Madrasa: Dar ul-Uloom Raheemiyyah"Two Circles। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  9. "Places of Interest"bandipore.nic.inBandipore district administration। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  10. Syed Rizwan Geelani (১৩ আগস্ট ২০১৮)। "Govt to regulate functioning of Madrasas in JK"Greater Kashmir। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  11. "Publications of Darul Uloom Raheemiyah"raheemiyyah.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০ 
  12. The Deoband Ulama and their Love for Rasulullah। পৃষ্ঠা 79। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০২০