রয় ভার্জিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রয় ভার্জিন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরয় থমাস ভার্জিন
জন্ম (1939-08-26) ২৬ আগস্ট ১৯৩৯ (বয়স ৮০)
টানটন, সমারসেট, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান, মাঝে-মধ্যে উইকেট-রক্ষক
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৭৩–১৯৭৭নর্দাম্পটনশায়ার
১৯৭২-৭৩ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স
১৯৫৭–১৯৭২সমারসেট
প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট অভিষেক২৯ মে ১৯৫৭ সমারসেট বনাম ওরচেস্টারশায়ার
শেষপ্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট৭ সেপ্টেম্বর ১৯৭৭ নর্দাম্পটনশায়ার বনাম এসেক্স
লিস্ট এক ক্রিকেট অভিষেক২২ মে ১৯৬৩ সমারসেট বনাম গ্ল্যামারগন
শেষ লিস্ট এক ক্রিকেট২৮ আগস্ট ১৯৭৭ নর্দাম্পটনশায়ার বনাম ওরচেস্টারশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৪৩৭ ১৭০
রানের সংখ্যা ২১৯৩০ ৩৭৫৫
ব্যাটিং গড় ২৯.৮৭ ২৪.৫৪
১০০/৫০ ৩৭/৯৯ ৪/২২
সর্বোচ্চ রান ১৭৯* ১২৩*
বল করেছে ৪২৬
উইকেট
বোলিং গড় ৮৫.০০ ৫.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ১/৬ ১/১
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪১৫/০ ৬৭/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৯ মার্চ ২০১৯

রয় থমাস ভার্জিন (ইংরেজি: Roy Virgin; জন্ম: ২৬ আগস্ট, ১৯৩৯) সমারসেটের টানটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ও সাবেক প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ ক্রিকেট তারকা। ১৯৫৭ থেকে ১৯৭৭ সময়কালে ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সমারসেটনর্দাম্পটনশায়ারের এবং দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, মাঝে-মধ্যে উইকেট-রক্ষকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি লেগব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শীতা দেখিয়েছেন রয় ভার্জিন

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রয় ভার্জিন খাঁটিমানের খেলোয়াড়ী জীবনে অতিবাহিত করলেও উভয় কাউন্টি মিলিয়ে দুই মৌসুম বাদে তার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট তেমন দর্শনীয় ছিল না। এক পর্যায়ে তাকে সম্ভাব্য টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে ভাবা হচ্ছিল।

১৯৫৭ সালে প্রথমবারের মতো সমারসেট দলে খেলেন। ১৯৬০ সাল পর্যন্ত নিয়মিতভাবে উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামতেন। ঐ মৌসুমে ইনিংস প্রতি মানানসই ২৫ গড়ে ১৪৫৩ রান তুলেন। ১৯৬৩ সালে জাতীয় সেবায় পুণরায় যোগ দেন। ১৯৬০-এর দশকের পুরোটা সময়ে সমারসেট দলের নিয়মিত সদস্যের মর্যাদা পান। প্রত্যেক মৌসুমেই সহস্রাধিক রান তুলেন। কেবলমাত্র একবারই ৩০-এর কম গড়ে রান সংগ্রহ করেছিলেন।

তারপর আকস্মিকভাবে রয় ভার্জিনের ব্যাটিংয়ের মান পরিবর্তিতরূপ ধারন করে। বহুমূখী শট খেলেন যা পূর্বে আর তিনি খেলেননি। ঐ মৌসুমে দ্রুততার সাথে ও স্বতঃস্ফূর্তভাবে খেলে ৪৭ গড়ে ২২৩৩ রান তুলতে পেরেছিলেন। তন্মধ্যে সাতটি শতরানের ইনিংস ছিল তার। ইংল্যান্ডের সম্ভাব্য উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি পরিগণিত হতে থাকেন। দূর্দান্ত ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯৭১ সালের উইজডেন সংস্করণে অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মাননায় ভূষিত হন তিনি।[১] ১৯৭১ সালে আবারও সফলতম মৌসুমে অতিবাহিত করেন। কিন্তু, ১৯৭২ সালে বেশ ছন্দপতনের মুখোমুখি হন। ঐ মৌসুম শেষে সমারসেট ত্যাগ করেন রয় ভার্জিন।

কাউন্টি ত্যাগ[সম্পাদনা]

কাউন্টি ত্যাগ করার পর বেশ কিছুদিন খেলার জগৎ থেকে দূরে থাকতে হয় রয় ভার্জিনকে। ১৯৭৩ মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে নর্দাম্পটনশায়ারের পক্ষে অভিষেক ঘটে তার। তবে তিনি সীমিত আকারে সফলতা পান। ১৯৭৪ সালে দ্বিতীয় মৌসুমের মতো সর্বাধিক সফলতা পান। ইনিংস প্রতি প্রায় ৫৭ গড়ে ১৯৩৬ রান তুলতে পেরেছিলেন। এ পর্যায়ে জাতীয় ব্যাটিং গড়ে পঞ্চম স্থান অধিকার করেছিলেন তিনি। আবারও তিনি ইংল্যান্ডের সম্ভাব্য খেলোয়াড় হিসেবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে উপনীত হন। তবে, আবারও নিরাশ হতে হয় রয় ভার্জিনকে।

১৯৭৫ সালে নর্দাম্পটনশায়ারের অধিনায়ক হিসেবে মনোনীত হয়েছিলেন। তবে, আগস্ট মাসেই অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নিতে বাধ্য হন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন যে, অধিনায়কত্ব লাভের ফলে তার ব্যাটিংয়ের উপর বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। ঐ মৌসুমে কোনক্রমে সহস্রাধিক রানের মাইলফলক অতিক্রমণ করতে সক্ষম হলেও ১৯৭৬ সালে ৩৪ গড়ে তুলে তা পুণরুদ্ধার করতে পেরেছিলেন। এ পর্যায়ে নর্দাম্পটনে সমারসেটের বিপক্ষে পিটার উইলি’র সাথে চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৩৭০ রান তুলেন। ব্যক্তিগতভাবে করেন ১৪৫ রান। অদ্যাবধি চতুর্থ উইকেটে কাউন্টি দলটির রেকর্ডেরূপে তা পরিগণিত হয়ে আসছে। কিন্তু, ১৯৭৭ সালে আরও কম সফলতার স্বাক্ষর রাখেন রয় ভার্জিন। অতঃপর ব্যবসায়িক দায়বদ্ধতার কারণে খেলার জগৎ থেকে অবসর গ্রহণে করতে বাধ্য হন।

প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবনের শুরুতে রয় ভার্জিন মাঝে-মধ্যেই উইকেট-রক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন। এ ভূমিকাটি পরবর্তীকালে সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনেই অংশগ্রহণকৃত একদিনের খেলাগুলোতে বহমান ছিল। তাছাড়াও স্লিপ অঞ্চলে বিশ্বস্ত ফিল্ডারের ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। তন্মধ্যে, ১৯৬৬ সালে সমারসেটের সদস্য থাকাকালীন ৪২টি ক্যাচ তালুবন্দী করেছিলেন। এ সংগ্রহটি অদ্যাবধি কাউন্টি রেকর্ডরূপে বিবেচিত হয়ে আসছে।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

১৯৬০ সালে মার্গারেট অ্যান থ্রেসার নাম্নী এক রমণীর পাণিগ্রহণ করেন। এ দম্পতির স্টিভ, ডেভ ও অ্যান্ডি নামীয় তিন সন্তান ছিল এবং হিদার, হ্যালি, ম্যাট, অ্যারান ও অলিভিয়া নাম্নী নাতি-নাতনি রয়েছে। ব্রায়ান, সিড, মৌরিন ও হেলন নাম্নী তার দুই ভাই ও দুই বোন আছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Wisden's Five Cricketers of the Year"ESPNcricinfoESPN। ২৩ মার্চ ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ এপ্রিল ২০১৫ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]