রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার
কারাগার রূপরেখা
গঠিত১৮৬৪ (1864)
অধিক্ষেত্রবন্দি রাখা, তাদের সংশোধন ও সুপ্রশিক্ষিত করে সভ্য মানুষ হিসেবে গড়ে তোলা
সদর দপ্তর
২৫°৪৬′০১″ উত্তর ৮৯°১৩′৪৩″ পূর্ব / ২৫.৭৬৬৯৮৬° উত্তর ৮৯.২২৮৫৯৭° পূর্ব / 25.766986; 89.228597
নীতিবাক্যরাখিব নিরাপদ, দেখাব আলোর পথ
কারাগার নির্বাহী
  • কারা উপ-মহাপরিদর্শক
মূল সংস্থাস্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
ওয়েবসাইটprison.rangpur.gov.bd

রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার হলো বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের রংপুর জেলায় অবস্থিত একটি কারাগার।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

রংপুর কারাগার ১৮৬৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে ১৯৯৭ সালের ৩ মার্চ বাংলাদেশ সরকার এটিকে কেন্দ্রীয় কারাগার হিসেবে উন্নীত করে।[২][১]

অবকাঠামো ও ধারণক্ষমতা[সম্পাদনা]

রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ২৫.১৭ একর ভূমির ওপর প্রতিষ্ঠিত। এর মধ্যে কারা অভ্যন্তরে ৬.৪৪ একর ও বাইরে ১৮.৭৩ একর অবস্থিত। পুরুষ ও নারীসহ কারাগারের বন্দিধারণ ক্ষমতা ১২৭৯ জন।[১] কারা অভ্যন্তরে তিস্তা, ঘাঘট ও করতোয়া নামে তিনটি ভবন রয়েছে। এছাড়াও, এখানে হাসপাতাল, স্কুল, মসজিদ ও ব্যারাক রয়েছে।[২]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগার"prison.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ 
  2. "রংপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের খাবার মুখে তোলা যায় না"। দৈনিক কালের কণ্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২