উমাইর ইবনে আবি আমর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(যু-শিমালাইন উমাইর ইবনে আবি আমর থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

উমাইর ইবনে আবি আমর বা যু-শিমালাইন উমাইর ইবনে আবি আমর(মৃত্যু- ০২ হিজরি) রাসুল এর অন্যতম সাহাবা ছিলেন ।যিনি বদর যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন এবং এই যুদ্ধে শাহাদাত বরণ করেন ।

নাম ও বংশ পরিচয়[সম্পাদনা]

উমাইর ইবনে আবি আমর এর মূল নাম উমাইর,ডাক নাম আবু মুহাম্মাদ ও উপাধি যু-শিমালাইন।[১] তার পিতার নাম আবদু আমর ইবন নাদলা । তিনি খুযায়া গোত্রের সন্তান। উমাইর সকল কাজ দু হাত দিয়ে করতেন বলে যু-শিমালাইন (অর্থ দুখানি দক্ষিণ হস্তের অধিকারী) বলে উপাধিতে লাভ করেন ।[২] উমাইর এর বোন রায়তা নামে একটি বোন ছিল ।[৩]

ইসলাম গ্রহন[সম্পাদনা]

হযরত যূ-শিমালাইন কখন এবং কিভাবে ইসলাম গ্রহণ করেন সে সম্পর্কে কোন তথ্য পাওয়া যায় না। তবে ইসলাম গ্রহণের পর মদীনায় হিজরাত করে হযরত সাদ ইবন খাইসামার অতিথি হন। রাসূল ইয়াযীদ ইবন ‍হারেস সাথে তার ভাতৃ সম্পর্ক প্রতিষ্টা করে দেন। রাসুল একবার চার রাকাত নামাজের স্থলে দুই রাকাত আদায় করলে তিনিই একমাত্র ভুল ধরেন ।এবং রাসুল সেই নামাজ সংশোধন করে আদায় করেন ।[৪]

বদরের যুদ্ধ[সম্পাদনা]

মদীনায় আসার পর তিনি ও তার দ্বীনি ভাই ইয়াযীদ বদর যুদ্ধে যোগদান করেন। এ যুদ্ধে তিনি সাহসিকতার সাথে যুদ্ধ করেন এবং কুরাইশদের মধ্যে আবু উসামা যুহাইর ইবন মুয়াবিয়া আল জুশামীর হাতে শহীদ হন।[৫]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

তিনি ২য় হিজরিতে বদরের যুদ্ধে শাহাদাত বরণ করেন । মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৩০ বছর। তার দ্বীনী ভাই ইয়াযিদ ইবনে হারেস এ যুদ্ধে শহীদ হন।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

রেফারেন্স বই - আসহাবে রাসূলের জীবনকথা – (দ্বিতীয় খন্ড) লেখকঃ ড. মুহাম্মাদ আবদুল মাবুদ

  1. তাবাকাত - (৩/১৬৭) 
  2. আল ইসাবা - (৩/৩৩) 
  3. তাবাকাত ইবন সাদ - (৩/১৬৭) 
  4. বুখারী শরীফ -- আযান অধ্যায়, অনুচ্ছেদঃ ইমামের সন্দেহ হলে তিনি কি মুকতাদিদের কথা গ্রহণ করবেন  
  5. আনসাবুল আশরাফ - (১/২৯৫) 
  6. তাবাকাতঃ (৩/১৬৮)