ম্যাক্স ভন সিডো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ম্যাক্স ভন সিডো
Max von Sydow Cannes 2016.jpg
২০১৬ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে ভন সিডো
স্থানীয় নাম
Max von Sydow
জন্ম
কার্ল আডল্‌ফ ভন সিডো

(1929-04-10) ১০ এপ্রিল ১৯২৯ (বয়স ৯০)
জাতীয়তাসুয়েডীয়
নাগরিকত্বফরাসি
যেখানের শিক্ষার্থীরয়্যাল ড্রামাটিক থিয়েটার
পেশাঅভিনেতা
কার্যকাল১৯৪৮-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীক্রিস্টিনা ওলিন
(বি. ১৯৫১; বিচ্ছেদ. ১৯৭৯)

ক্যাথরিন ব্রেলেট (বি. ১৯৯৭)
সন্তান

ম্যাক্স ভন সিডো (ইংরেজি: Max Carl Adolf von Sydow; [ক] জন্ম: কার্ল আডল্‌ফ ভন সিডো, ১০ এপ্রিল ১৯২৯)[১] হলেন সুইডেনে জন্মগ্রহণকারী ফরাসি অভিনেতা। তিনি ২০০২ সালে ফরাসি নাগরিকত্ব লাভ করেন।[২][৩] তিনি সুয়েডীয়, ইংরেজি, নরওয়েজীয়, ডেনীয়, জার্মান, ফরাসি, ইতালীয় ও স্পেনীয় ভাষার বিভিন্ন ইউরোপীয় এবং মার্কিন চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তিনি ১৯৫৪ সালে সুইডেনের সাংস্কৃতিক পুরস্কার অর্জন করেন, ২০০৫ সালে কমান্দোর দে আর্ত এ দে লেত্রে উপাধিতে ভূষিত হন এবং ২০১২ সালে লেজিওঁ দনরের শ্যভালিয়ে উপাধিতে ভূষিত হন।

ভন সিডো একশতাধিক চলচ্চিত্র ও টিভি অনুষ্ঠানে কাজ করেছেন। তার কয়েকটি স্মরণীয় কাজ হল নাইট আন্টোনিয়াস ব্লক চরিত্রে ইংমার বারিমানের দ্য সেভেন্থ সিল (১৯৫৭), যেখানে একটি প্রতীকী দৃশ্যে তাকে মৃত্যুর সাথে দাবা খেলারত অবস্থায় দেখা যায়; মার্টিন চরিত্রে থ্রো আ গ্লাস ডার্কলি (১৯৬১); জিসাস চরিত্রে দ্য গ্রেটেস্ট স্টোরি এভার টোল্ড (১৯৬৫); অক্টোবার চরিত্রে দ্য কুইলার মেমোরেন্ডাম (১৯৬৬); কার্ল অস্কার নিলসন চরিত্রে দি ইমিগ্রান্টস (১৯৭১); রয় লিন্ডবার্গ চরিত্রে দি অ্যাপল ওয়ার (১৯৭১); ফাদার ল্যাঙ্কেস্টার মেরিন চরিত্রে দি এক্সরসিস্ট (১৯৭৩); গুপ্তহন্তা জুবের চরিত্রে থ্রি ডেজ অব দ্য কন্ডর (১৯৭৫); দয়াহীন মিং চরিত্রে ফ্ল্যাশ গর্ডন (১৯৮০); আর্নস্ট স্টাভ্রো ব্লোফেল্ড চরিত্রে জেমস বন্ড চলচ্চিত্র ধারাবাহিকের নেভার সে নেভার অ্যাগেইন (১৯৮৩); লিয়েট-কাইন্স চরিত্রে ডান (১৯৮৪); ফ্রেডরিক চরিত্রে হ্যানা অ্যান্ড হার সিস্টার্স (১৯৮৬); ডক্টর পিটার ইংহাম চরিত্রে অ্যাওয়েকেনিংস (১৯৯০); লামার বার্গেস চরিত্রে মাইনরিটি রিপোর্ট (২০০২); জোসিয়া কেন চরিত্রে সলোমন কেন (২০০৯); স্যার ওয়াল্টার লক্সলি চরিত্রে রবিন হুড (২০১০); এবং লর সান টেক্কা চরিত্রে স্টার ওয়ার্স: দ্য ফোর্স অ্যাওয়েকন্স (২০১৫)।

তিনি পেলে দ্য কনকারার (১৯৮৭) চলচ্চিত্র লাসেফার চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং এক্সট্রিমলি লাউড অ্যান্ড ইনক্রেডিবলি ক্লোজ (২০১২) চলচ্চিত্রে রেন্টার চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০১৬ সালে তিনি এইচবিওর জনপ্রিয় ধারাবাহিক গেম অব থ্রোনস-এ অভিনয়শিল্পী হিসেবে যোগ দেন এবং তিন-চোখওয়ালা দাঁড়কাক চরিত্রে অভিনয় করে একটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ভন সিডো ১৯২৯ সালের ১০ই এপ্রিল সুইডেনের লুন্ডে এক ধনী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা কার্ল ভিলহেল্ম ভন সিডো ছিলেন লুন্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের আইরিশ, স্ক্যান্ডেনেভীয় ও তুলনামূলক লোকসাহিত্যের অধ্যাপক।[৪] তার মাতা মারিয়া মার্গারেটা "গ্রেটা" ছিলেন স্কুলশিক্ষক।[৫][৬] তার কয়েকজন পূর্বপুরুষ জার্মান ছিলেন। তার পরিবারের আদি নিবাস পোমেরানিয়া, যা বর্তমানে পোল্যান্ডের অন্তর্গত এবং পূর্বে প্রুসিয়ার অংশ ছিল। তার নামের অংশ "ভন" দিয়ে "এর" বোঝায় এবং এটি অভিজাত বংশ নির্দেশ করে। সিডো লুথেরান ধর্মাবলম্বী হিসেবে বেড়ে ওঠেন ও পরে অজ্ঞেয়বাদে ধর্মান্তরিত হন।[৭]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. সুয়েডীয় উচ্চারণ: মাক্‌স ফন সিডভ, সুয়েডিয় উচ্চারণ: [ˈmaks fɔn ˈsyːdɔv]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Max von Sydow"ফিল্ম রেফারেন্স (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  2. "LAFCA Honors Max Von Sydow with Career Achievement Award" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. "Han bryter med Sverige"আফটনব্লাডেট (সুইডিশ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. ডান্ডিস, অ্যালান (১৯৯৯)। International Folkloristics: Classic Contributions by the Founders of Folklore (ইংরেজি ভাষায়)। রোম্যান অ্যান্ড লিটলফিল্ড পাবলিশার্স ইঙ্ক.। পৃষ্ঠা ১৩৭। আইএসবিএন 0-8476-9515-8। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  5. The Swedish–American Historical Quarterly (ইংরেজি ভাষায়)। সুইডিশ পাইওনিয়ার হিস্টরিক্যাল সোসাইটি। ১৯৯৬। পৃষ্ঠা ১১০। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  6. "Ancestry of Max von Sydow, from Charlemagne"হামফ্রিস ফ্যামিলি ট্রি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 
  7. গো, গর্ডন (১৯৭৬)। "The Face of the Actor (Reprint)"ফিল্মস অ্যান্ড ফিল্মিং (ইংরেজি ভাষায়)। ১৭ জুলাই ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ এপ্রিল ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]