মৌল-কণিকা গোত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search

আবিষ্কৃত মৌলগুলিকে বৈশিষ্ট্যের উপর ভিত্তি করে যেমন পর্যায় সারনীতে সাজানো হয়েছে, তেমনি মৌলিক কণিকাসমূহকে এদের বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে ৩টি গোত্রে ভাগ করা হয়েছে। এগুলি নিচে বর্ণনা করা হলো: (প্রোটনের ভরকে একক ধরে)

গোত্র-১[সম্পাদনা]

[কণিকা] - [ভর] - [তড়িৎ আধান] - [দুর্বল আধান] - [সবল আধান][সম্পাদনা]

  • ০.০০০৫৪,
  • <১০−৪,
  • ০.০০৪৭,
  • ০.০০৭৪
  • -১,
  • ০,
  • ২/৩,
  • -১/৩
  • -১/২,
  • ১/২,
  • ১/২,
  • -১/২
  • ০,
  • ০,
  • লাল, সবুজ, নীল,
  • লাল, সবুজ, নীল

গোত্র-২[সম্পাদনা]

[কণিকা]-[ভর]-[তড়িৎ আধান]-[দুর্বল আধান]-[সবল আধান][সম্পাদনা]

  • ০.১১,
  • <০.০০০৩,
  • ১.৬,
  • ০.১৬
  • -১,
  • ০,
  • ২/৩,
  • -১/৩
  • -১/২,
  • ১/২,
  • ১/২,
  • -১/২
  • ০,
  • ০,
  • লাল, সবুজ, নীল,
  • লাল, সবুজ, নীল

গোত্র-৩[সম্পাদনা]

[কণিকা-ভর]-[তড়িৎ আধান]-[দুর্বল আধান]-[সবল আধান[[সম্পাদনা]

  • ১.৯,
  • <০.০৩৩,
  • ১৮৯,
  • ৫.২
  • -১,
  • ০,
  • ২/৩,
  • -১/৩
  • -১/২,
  • ১/২,
  • ১/২,
  • -১/২
  • ০,
  • ০,
  • লাল, সবুজ, নীল,
  • লাল, সবুজ, নীল

কিছু লক্ষণীয় বিষয়ঃ

  1. প্রতিটি কণার সাথে রয়েছে একটি সংশ্লিষ্ট প্রতিকণা
  2. প্রতি গোত্রের অনুরূপ কণিকাগুলোর (যেমন তিনটি গোত্রেরই ১ম কণিকাগুলি) বৈশিষ্ট্যে যথেষ্ট সাযুজ্য আছে, পার্থক্য কেবল ভরে, ১ম থেকে ৩য় গোত্রের দিকে এদের ভর বাড়তে থাকে।
  3. প্রতিটি গোত্রের প্রথম কণিকার সাথে সংশ্লিষ্ট একটি করে নিউট্রিনো রয়েছে।
  4. প্রতিটি গোত্রে দুইটি করে কোয়ার্ক আছে।
  5. এখানে প্রোটন বা নিউট্রন অনুপস্থিত, কারণ এরা প্রত্যেকে ৩টি কোয়ার্কের সমন্বয়ে গঠিত, অর্থাৎ এরা মৌলিক কণিকা নয়।