মো. সাইফুল আবেদীন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মো. সাইফুল আবেদিন
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৭ ফেরুয়ারি ২০১৭
পূর্বসূরীমেজর জেনারেল আকবর হোসেন
সামরিক পরিষেবা
আনুগত্য বাংলাদেশ
শাখা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী
কাজের মেয়াদ১৯৮৬–বর্তমান
পদ08.maj gen Bd.jpgমেজর জেনারেল
Two star.jpg
কমান্ড
  • কমান্ড্যান্ট- বাংলাদেশ ডিফেন্স সার্ভিস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজ (ডিএসসিএসসি)

মেজর জেনারেল (অব.) মো. সাইফুল আবেদীন, বিএসপি, এনডিসি, পিএসসি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল এবং ডিজিএফআইয়ের বর্তমান মহাপরিচালক ছিলেন। বাংলাদেশ ইনফেন্ট্রি রেজিমেন্টাল সেন্টার (বিআইআরসি) এর সাবেক কমান্ড্যান্ট ছিলেন। ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজ (ডিএসসিএসসি) এর কমান্ড্যান্ট হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ৭১ মেকানিক্যাল ব্রিগেড কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। [১][২] ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিনি প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তরের মহাপরিচালক নিযুক্ত হয়ে ২০২০ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। [৩]

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষা[সম্পাদনা]

মো. সাইফুল আবেদীন ১৯৮৪ সালে মির্জাপুর ক্যাডেট কলেজ থেকে স্নাতক হন। ১৫তম বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমী (বিএমএ) লং কোর্সের জন্য আইএসএসবিতে তিনি নির্বাচিত হন এবং ২৫ ডিসেম্বর ১৯৮৬ সালে ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে কমিশন লাভ করেন। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ পারফরম্যান্সের জন্য তিনি 'সোর্ড অফ অনার' এবং তার কমিশনে সেরা একাডেমিক পারফরম্যান্সের জন্য 'ওসমানী গোল্ড মেডেল' পান। [২]

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর বিজ্ঞান , বাংলাদেশ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিফেন্স স্টাডিজে মাস্টার্স এবং কানাডার রয়েল রোডস ইউনিভার্সিটি থেকে বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন মাস্টার্স অর্জন করেন । বর্তমানে তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে পিএইচডি করছেন। এবং বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস এর অধীনে কৌশল ও উন্নয়ন বিষয়ে এমফিল করছেন। [২]

কৌশলগত ও উন্নয়ন গবেষণা, কৌশল, সামরিক বিজ্ঞান, অস্ত্র ব্যবস্থা, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা অভিযান ইত্যাদি বিষয়ে দেশে এবং বিদেশে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে সামরিক প্রশিক্ষণ ও শিক্ষা লাভ করেন। ডিফেন্স সার্ভিস কমান্ড এবং স্টাফ কলেজ, মিরপুর এবং জাতীয় প্রতিরক্ষা কলেজের স্নাতক । তিনি মালয়েশিয়ার ইনফ্যান্ট্রি স্কুল, যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা একাডেমী, গ্লোবাল পিস অপারেশনস ইনিশিয়েটিভ (জিপিওআই) এবং পিস অপারেশনস ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের অধীনে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

স্টাফ হিসেবে তিনি গ্রেড -৩ স্টাফ অফিসার এবং ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেডসে ব্রিগেড মেজর হিসাবে কাজ করেন। সামরিক অপারেশন ডিরেক্টরেটর গ্রেড -১ স্টাফ অফিসার, সেনা সদর দপ্তর এর স্টাফ অফিসার, মহাপরিচালক-প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তর (ডিজিএফআই)। ডিজিএফআই সদর দপ্তরে কর্নেল জিএস ছিলেন। তিনি প্লাটুন এবং ব্যাটালিয়ন কমান্ডার হিসাবে বিএমএতে দুটি পদে চাকরি করেছিলেন। তিনি ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজের উপদেষ্টা ছিলেন। তিনি একটি স্ট্যান্ডার্ড ইনফ্যান্ট্রি ব্যাটালিয়ন এবং একটি মেকানিক্যাল ইনফ্যান্ট্রি ব্রিগেড কমান্ডার ছিলেন। [২]

জাতিসংঘ মিশন[সম্পাদনা]

জেনারেল সেক্রেটারি সদর দফতর, কোট ডি আইভায় (ইউএনওসিআই) জাতিসংঘের অপারেশনে ওয়েস্টের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জাতিসংঘ ইরাক-কুয়েত পর্যবেক্ষণ মিশন (ইউনিকোক) অপারেশন অফিসার হিসাবে অংশগ্রহণ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Changes in top army positions | The Daily Star"। ২০১৭-০২-১৭। ২০১৭-০২-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-১৭ 
  2. "Biography of Commandant - DSCSC"। ২০১৭-০২-১৭। ২০১৭-০২-১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০২-১৭ 
  3. প্রতিবেদক, জ্যেষ্ঠ; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "ডিজিএফআই পেল নতুন ডিজি"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-২৫