মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ
জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকারগণ
কাজের মেয়াদ
২৫ এপ্রিল, ১৯৮৮ – ৪ এপ্রিল, ১৯৯১
পূর্বসূরীমোঃ কুরবান আলী
উত্তরসূরীশেখ রাজ্জাক আলী
লালমনিরহাট-৩ (জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকা)[১]
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১
প্রধানমন্ত্রীবেগম খালেদা জিয়া
ব্যক্তিগত বিবরণ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জাতীয় পার্টি[২]
জীবিকারাজনীতিবিদ
ধর্মইসলাম

মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির একজন রাজনীতিবিদ এবং নির্বাচিত সংসদ সদস্য। তিনি সাবেক ডেপুটি স্পিকার।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ ডেপুটি স্পিকার হিসেবে ৩ বছর কাজ করেছেন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির রাজনৈতিক আদর্শে বিশ্বাসী ছিলেন। তিনি জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পেয়ে সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন ও জয়লাভ করেন। জনাব মোঃ রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচন এর মাধ্যমে নির্বাচিত সংসদ সদস্য হিসেবে লালমনিরহাট থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন এর নির্বাচনি এলাকা লালমনিরহাট-৩ থেকে নির্বাচিত হন।

ডেপুটি স্পিকার হিসেবে যোগদান[সম্পাদনা]

মোহাম্মাদ রিয়াজ উদ্দীন আহমেদ বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চতুর্থ ডেপুটি স্পিকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ৪র্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৩ মার্চ ১৯৮৮ সালে। ২৫শে এপ্রিল ১৯৮৮ সালে সংসদের মোট সদস্য সংখ্যা ছিল ৩৩০ জন। সংরক্ষিত ৩০টি মহিলা আসন সংক্রান্ত আইনের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ৪র্থ জাতীয় সংসদে কোনো সংরক্ষিত মহিলা আসন ছিল না। এই সংসদে সামসুল হুদা চৌধুরী স্পিকার এবং রিয়াজ উদ্দিন আহম্মেদ ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হন।[৩] মোহাম্মাদ কুরবান আলীর পর ১৯৮৮ সালের ২৫ এপ্রিল তাকে ডেপুটি স্পিকার হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়। তিনি ১৯৯১ সালের ৪ এপ্রিল পর্যন্ত উক্ত দায়িত্ব পালন করেছেন। তার পর শেখ রাজ্জাক আলী ডেপুটি স্পিকার হিসেবে নিয়োগ পান।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "List of 5th Parliament Members"parliament.gov.bd। Bangladesh Parliament। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৮ 
  2. "List of Deputy Speakers"parliament.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  3. তৌফিক (২০১৪-০২-২৪)। "বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস(১৯৩৭-২০১২)"EduportalBD | Blog (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০১-২৪ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]