মোহাম্মদ ছায়েদুল হক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মোহাম্মদ ছায়েদুল হক
মোহাম্মদ ছায়েদুল হক.jpg
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
কাজের মেয়াদ
১২ জানুয়ারি ২০১৪ – ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭
প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনা
উত্তরসূরীনারায়ন চন্দ্র চন্দ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ আসনেরের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১২ জানুয়ারি ২০১৪ – ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭
সংখ্যাগরিষ্ঠবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৯৪২-০৩-০৪)৪ মার্চ ১৯৪২
নাসিরনগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত (অধুনা বাংলাদেশ)
মৃত্যু১৬ ডিসেম্বর ২০১৭(2017-12-16) (বয়স ৭৫)
ঢাকা
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ধর্মইসলাম

মোহাম্মদ ছায়েদুল হক (৪ মার্চ ১৯৪২ - ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ, সংসদ সদস্য, আইনজীবী ও মন্ত্রী।[১]

জন্ম ও পারিবারিক পরিচিত[সম্পাদনা]

মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ১৯৪২ খিস্টাব্দের ৪ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার পিতার নাম আলহাজ্ব মোহাম্মদ সুন্দর আলী এবং মাতার নাম মেহের চাঁদ বিবি।

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ১৯৬৮ খ্রিষ্টাব্দে অর্থনীতিতে এম এ ও ১৯৭০ খ্রিষ্টাব্দে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি পাস করেন।[২] 

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনের পর তিনি সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী পেশায় যুক্ত ছিলেন।[৩]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

মোহাম্মদ ছায়েদুল হক ছাত্রজীবনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের মাধ্যমে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে পর্দাপণ করেন। ১৯৬৫-৬৬ খ্রিষ্টাব্দে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদে ছাত্রলীগের প্যানেলে ভিপি নিবার্চিত হন। তিনি বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন এবং ১৯৬৬ খ্রিষ্টাব্দে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছয় দফা আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। তিনি ১৯৭১ খ্রিস্টাবে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন এবং ১৯৭৩ খ্রিষ্টাব্দে প্রথমবারের মতো নাসিরনগর আসন (ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১) থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে নাসিরনগর আসন থেকে সপ্তম, অষ্টম, নবম ও দশম সংসদের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দে তিনি মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পান। শেষ জীবনে তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ছিলেন।[৪][৫][৬][৭]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আওয়ামী লীগ সরকারের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ দপ্তরের মন্ত্রী থাকাকালে ২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ছায়েদুল হক, মোহাম্মদ। "মাননীয় মন্ত্রী" (PDF)www.mofl.portal.gov.bd 
  2. "মন্ত্রী ছায়েদুল হক আর নেই"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬ 
  3. "মন্ত্রী ছায়েদুল হক আর নেই"The Daily Star Bangla। ২০১৭-১২-১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬ 
  4. "চলে গেলেন মন্ত্রী ছায়েদুল হক"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬ 
  5. "একদিনের ভাড়াও বকেয়া রাখেননি মন্ত্রী ছায়েদুল হক"jagonews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬ 
  6. "মন্ত্রী ছায়েদুল হক আর নেই"বাংলা ট্রিবিউন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬ 
  7. "প্রাণিসম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হক আর নেই"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-১২-১৬