মোস্তাফিজুর রহমান পটল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মোস্তাফিজুর রহমান পটল
বগুড়া-৫ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৯৭৩ – ১৯৭৫
পূর্বসূরীআসন শুরু
উত্তরসূরীসিরাজুল হক তালুকদার
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মবগুড়া জেলা
মৃত্যু১৯৭৫
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীকামরুন্নাহার পুতুল
সন্তানদুই মেয়ে ও এক ছেলে

মোস্তাফিজুর রহমান পটল (মৃত্যু: ১৯৭৫) বাংলাদেশের বগুড়া জেলার রাজনীতিবিদবগুড়া-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য[১] তিনি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মোস্তাফিজুর রহমান পটল বগুড়া জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার কামরুন্নাহার পুতুল স্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদের মহিলা আসন-৪ থেকে মনোনীত সংসদ সদস্য ছিলেন। তার ছেলে রাহিদ মোস্তাফিজ, বড় মেয়ে তানিয়া মোস্তাফিজ রাম্মী ও ছোট মেয়ে আনিকা মোস্তাফিজ রুম্মা।[২]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

পটল তিনি ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলনবাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। তিনি ১৯৭৩ সালের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে বগুড়া-৫ থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি ঐ সংসদের সর্বকনিষ্ঠ সংসদ সদস্য ছিলেন।[১] মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন।

সমালোচনা[সম্পাদনা]

মোস্তাফিজুর রহমান পটলের ছেলে রাহিদ মোস্তাফিজকে ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে তার বগুড়া শহরের কালিতলার বাসা থেকে ৫৫ বোতল ফেন্সিডিল এবং ফেন্সিডিল বিক্রির  নগদ ৪৭ হাজার টাকাসহ গ্রেপ্তার করেছিলো পুলিশ।[৩]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

মোস্তাফিজুর রহমান পটল ১৯৭৫ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. বগুড়া ব্যুরো (২২ মে ২০২০)। "বগুড়ায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাবেক এমপি পুুতুলের দাফন সম্পন্ন"দৈনিক সমকাল। ২৮ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০২০ 
  3. বগুড়া প্রতিনিধি (২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯)। "সাবেক এমপির ছেলে ফেন্সিডিলসহ গ্রেপ্তার"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। ২৮ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুন ২০২০