মেম্ফিস দেপাই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মেম্ফিস দেপাই
OL-MHSC (2017) - Memphis Depay (cropped).jpg
লিওঁর হয়ে ২০১৭ সালে মেম্ফিস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম মেম্ফিস দেপাই
জন্ম (1994-02-13) ১৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৪ (বয়স ২৭)
জন্ম স্থান মুরড্রেখট, নেদারল্যান্ডস
মাঠে অবস্থান আক্রমণভাগের খেলোয়াড়
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব
বার্সেলোনা
জার্সি নম্বর
যুব পর্যায়
২০০০–২০০৩ ভিভি মুরড্রেখট
২০০৩–২০০৬ স্পার্টা রটার্ডাম
২০০৬–২০১১ পিএসভি
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
২০১১–২০১৫ পিএসভি ৯০ (৩৯)
২০১৫–২০১৭ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ৩৩ (২)
২০১৭–২০২১ লিওঁ ১৩৯ (৬৩)
২০২১– বার্সেলোনা (০)
জাতীয় দল
২০০৮–২০০৯ নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৫ (২)
২০০৯ নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৬ (২)
২০১০–২০১১ নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৭ ১৭ (৮)
২০১১–২০১৩ নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৯ (৮)
২০১৩ নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-২১ (০)
২০১৩– নেদারল্যান্ডস ৬৮ (২৮)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং ২৩ মে ২০২১ তারিখ অনুযায়ী সকল তথ্য সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা ২৭ জুন ২০২১ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

মেম্ফিস দেপাই (জন্মঃ ১৩ ফেব্রুয়ারী ১৯৯৪) একজন ডাচ পেশাদার ফুটবলার যিনি নেদারল্যান্ডস জাতীয় দল এবং স্পেনীয় ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে স্ট্রাইকার বা উইঙ্গার হিসেবে খেলেন।

মেম্ফিসের শৈশবে ফুটবলের হাতেখড়ি হয় লেদারল্যান্ডসের ক্লাব ভিভি মুরড্রেখট এর হয়ে। পরবর্তীতে তিনি স্পার্টা রটার্ডাম এর যুবদল হয়ে পিএসভি এইন্থোভেন এর যুবদলে যোগ দেন। ২০১১ সালে পিএসভি-এর হয়ে তার পেশাদার ফুটবলার জীবনের সূচনা হয়। ২০১৫ সালে তিনি ২ কোটি ৫০ লক্ষ ব্রিটিশ পাউন্ডের বিনিময়ে ইংল্যান্ডের ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড-এ যোগ দেন। ২০১৭ সালে ফরাসি ক্লাব ওলাঁপিক লিয়োনে তাকে কিনে নেয়। ২০২১ সালে মেম্ফিস স্পেনীয় ক্লাব বার্সেলোনায় যোগদান করেন।

মেম্ফিস নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৫, অনূর্ধ্ব-১৬, অনূর্ধ্ব-১৭, অনূর্ধ্ব-১৯ ও অনূর্ধ্ব-২১ দলে খেলেছেন। ২০১৩ সালে তুরস্ক-এর বিপক্ষে ম্যাচে তার নেদারল্যান্ডস জাতীয় দল-এ অভিষেক হয়। তিনি ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপ-এ তৃতীয় স্থান অধিকার করা নেদারল্যান্ডস দলের সদস্য ছিলেন।

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

২৩ মে ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[১][২]
ক্লাব মৌসুম লিগ কাপ লিগ কাপ ইউরোপীয় অন্যান্য মোট
উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল
পিএসভি ২০১১–১২ ১১
২০১২–১৩ ২০ ৩০
২০১৩–১৪ ৩২ ১২ ১০ ৪৩ ১৪
২০১৪–১৫ ৩০ ২২ ৪০ ২৮
মোট ৯০ ৩৯ ২৪ ১২৪ ৫০
ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ২০১৫–১৬ ২৯ ১১ ৪৫
২০১৬–১৭
মোট ৩৩ ১৪ ৫৩
লিওঁ ২2০১৬–১৭ ১৭ ১৮
২০১৭–১৮ ৩৬ ১৯ ১০ ৫১ ২২
২০১৮–১৯ ৩৬ ১০ ৪৭ ১২
২০১৯–২০ ১৩ ২২ ১৫
২০২০–২১ ৩৭ ২০ ৪০ ২২
মোট ১৩৯ ৬৩ ১০ ২৬ ১০ ১৭৮ ৭৬
বার্সেলোনা ২০২১–২২
সর্বমোট ২৬২ ১০৪ ২২ ৬৪ ২৩ ৩৫৫ ১৩৩

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

২৭ জুন ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[৩]
জাতীয় দল সাল উপস্থিতি গোল
নেদারল্যান্ডস ২০১৩
২০১৪ ১০
২০১৫
২০১৬
২০১৭
২০১৮ ১০
২০১৯
২০২০
২০২১
মোট ৬৮ ২৮

গায়ক হিসেবে ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের জুন মাসে মেম্ফিস তার প্রথম ফ্রিস্টাইল গান "এলএ ভাইবস" প্রকাশের মাধ্যমে হিপ-হপ ক্যারিয়ার শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি বেশ কয়েকটি ফ্রিস্টাইল গান প্রকাশ করেন। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে তিনি তার প্রথম সিঙ্গেল "নো লাভ" প্রকাশ করেন। ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর ৯টি গানের সমন্বয়ে তিনি তার প্রথম অ্যালবাম "হেভি স্টেপার" প্রকাশ করেন।

সংগীত তালিকা[সম্পাদনা]

ট্র্যাক নাম্বার শিরোনাম সাল অ্যালবাম
"এলএ ভাইবস ফিচারিং কুইন্সি প্রোমেস" ২০১৭ অ্যালবাম-বিহীন ফ্রিস্টাইল
"কিংস ও কুইনস ফ্রিস্টাইল"
"৫ মিলি ফ্রিস্টাইল" ২০১৮
"পোর্তো সার্ভো ফিচারিং মেম্ফিস দেপাই" "অপ্রেখট ডোর জি" - উইনি
১৮ "আকওয়াবা ফিচারিং মেম্ফিস দেপাই ও নান ফোফি"[৪]
"নো লাভ"[৫] অ্যালবাম-বিহীন সিঙ্গেলস
"ফল ব্যাক"[৬] ২০১৯
১১ "লাঙ্গে জাস ফিচারিং মেম্ফিস দেপাই" “ব্রয়েডার্স" - ব্রয়েডারলিয়েফদে
"দুবাই ফ্রিস্টাইল" ২০২০ অ্যালবাম-বিহীন ফ্রিস্টাইল
০১ "হেভি স্টেপার ফিচারিং আরা" হেভি স্টেপার ইপি
০২ "বডি লাইক ইউ ফিচারিং জাহ স্যান্টোরি"
০৩ "ফ্রম ঘানা ফিচারিং রাস কিং ও বিসা দেই"
০৪ "ফোর এএম পাম ফ্লো"
০৫ "বিগ ফিশ"
০৬ "ফর আ উইক"
০৭ "টু কোরিন্থিয়ান্স ফাইভ ইস্টু সেভেন"
০৮ "ব্লেসিং"
০৯ "ডি.বি.এ ফিচারিং ইয়াসমিন লরিন"

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

পিএসভি
  • এরেডিভিজি: ২০১৪–১৫
  • কেএনভিবি কাপ: ২০১১–১২
  • ইয়োহান ক্রুইফ শিল্ড: ২০১২

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

নেদারল্যান্ডস অনূর্ধ্ব-১৭
  • উয়েফা ইউরোপীয়ান অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিনয়শিপ: ২০১১[৭]
নেদারল্যান্ডস

ব্যক্তিগত[সম্পাদনা]

  • ইউএনএফপি লিগ-১ মাসসেরা খেলোয়াড়: এপ্রিল ২০১৮[৯]
  • এরেদিভিজি সর্বোচ্চ গোলদাতা: ২০১৪–১৫
  • ইয়োহান ক্রুইফ ট্রফি: ২০১৪–১৫[১০]
  • ফ্রান্স ফুটবল সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়: ২০১৫[১১]
  • লিগ-১ বর্ষসেরা গোল: ২০১৬–১৭[১২]
  • ইউএনএফপি লিগ-১ বর্ষসেরা দল:২০২০–২১[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Depay"। stretfordend.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "M. Depay"। Soccerway। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৬ 
  3. "Memphis Depay"European Football। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জুন ২০২১ 
  4. "Memphis Depay, rapper and philanthropist"nss magazine 
  5. Duncker, Charlotte (২৮ ডিসেম্বর ২০১৮)। "Memphis Depay releases rap single and Paul Pogba loves it"Manchester Evening News 
  6. ""Fall Back" out this week! 🔊🎧🎵"। ১৫ জুলাই ২০১৯ – Instagram-এর মাধ্যমে। 
  7. "Netherlands see off all comers in Serbia"। UEFA। ১৫ মে ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৫ 
  8. "2014 FIFA World Cup: Dutch down Brazil, seal third place"। FIFA। ১২ জুলাই ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২১ আগস্ট ২০১৪ 
  9. "Depay et Diego, joueurs du mois d'Avril !"UNFP (ফরাসি ভাষায়)। ৯ মে ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০১৮ 
  10. "Manchester United-bound Depay named Eredivisie's best young talent"। Goal.com। ১৯ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০১৫ 
  11. "Depay named best young World player ahead of Sterling"The Independent। ১৩ জুন ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০১৫ 
  12. Ball, Michael (১৫ মে ২০১৭)। "Memphis Depay wins Ligue 1 goal of the season award"Football Oranje। সংগ্রহের তারিখ ১০ জুন ২০১৭ 
  13. "Trophées UNFP : cinq Parisiens, deux Lillois et deux Lyonnais dans l'équipe type" [Trophées UNFP : five Parisiens, two Lillois and two Lyonnais in the typical team]। Le Figaro (ফরাসি ভাষায়)। ২৪ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০২১