মেকং ব-দ্বীপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ভিয়েতনামের অভ্যন্তরে মেকং ব-দ্বীপ অঞ্চলের অবস্থান

মেকং ব-দ্বীপ (ভিয়েতনামীয় ভাষায়: Đồng bằng Sông Cửu Long) ভিয়েতনামের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় অঞ্চল যা মেকং নদীর মোহনায় অবস্থিত। এছাড়াও একে পশ্চিম অঞ্চল (ভিয়েতনামীয় ভাষায়: Miền Tây) নামে পরিচিতি ঘটানো হয়। ৩৯,০০০ বর্গ কিলোমিটার বা ১৫,০০০ বর্গ মাইল বিস্তৃত অঞ্চল জুড়ে এটি ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে।[১] মৌসুমের পানি প্রবাহের উপর এ এলাকার আয়তন নির্ভরশীল।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রাগৈতিহাসিক আমল থেকে মেকং ব-দ্বীপে মানব বসতি গড়ে উঠেছিল। ফুনান ও চেনলা সাম্রাজ্য এ ব-দ্বীপে কয়েক শতাব্দী ধরে শাসন কার্য পরিচালনা করতো।[২] প্রত্নতত্ত্ববিদগণ অক ইয়ু ও অন্যান্য ফুনানই এলাকার বিভিন্ন জায়গা পরীক্ষা-নিরীক্ষান্তে জানিয়েছেন যে, এলাকাটি ফুনান রাজত্বকালে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। প্রথম শতাব্দীতে ব্যবসায়িক মালামাল ক্রয়-বিক্রয়ে বন্দর ও খালগুলো কর্মচাঞ্চল্যের পরিবেশ বজায় ছিল। এ অঞ্চলে খ্রিস্ট-পূর্ব চতুর্থ শতাব্দীতে মানব বসতি গড়ে উঠেছিল বলে ধারণা করা হয়। মেকং ব-দ্বীপের অন্যতম এলাকা অংকর বোরেই খ্রিস্ট-পূর্ব ৪০০ থেকে ৫০০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত টিকেছিল। এলাকা থেকে বিস্তৃত নৌবাণিজ্যের মাধ্যমে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশসহ ভারতে পণ্য আদান-প্রদান করা হতো। ব্যাপকভাবে বিশ্বাস করা হয় যে, ফুনান রাজ্যের প্রাচীন রাজধানী ছিল এ অঞ্চলটি।[৩]

খেমার সাম্রাজ্যে অঞ্চলটি খেমার ক্রম (নিম্ন খেমার বা নিম্ন কম্বোডিয়া) নামে পরিচিত ছিল। একাদশ ও দ্বাদশ শতাব্দীতে এ অঞ্চলের উন্নতির অনেক আগেই বসতিগুলো পরিচালিত হতো।[nb ১] আধুনিক মধ্য ভিয়েতনামের উপকূলের সাথে চম্প রাজ্যের সম্পর্ক ছিল। আধুনিককালের হো চি মিন সিটি গড়ার অগ্রদূত প্রে নকর শহর মেকং ব-দ্বীপকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রাখার ফলে ত্রয়োদশ শতকের শেষদিকে পশ্চিমাদের সাথে এর যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে উঠে।[nb ২] লেখক গিয়া এম. ভো মনে করেন, খেমারদের অধীনে থাকার পূর্বেই চমদের উপস্থিতি ছিল।[nb ৩]

ফ্রান্সের কাছ থেকে স্বাধীনতা পাবার পর মেকং ব-দ্বীপ ভিয়েতনাম প্রজাতন্ত্রের অংশ ছিল। ১৯৭০-এর দশকে খেমার রুজ বাহিনী ভিয়েতনাম আক্রমণ চালানোসহ ব-দ্বীপ অঞ্চলটি অধিকারের চেষ্টা চালায়। ফলশ্রুতিতে ভিয়েতনাম কর্তৃক কম্বোডিয়া অধীনস্থ হয় ও কালক্রমে খেমার রুজদের পতন ঘটে।

ভৌগোলিক পরিবেশ[সম্পাদনা]

মেকং ব-দ্বীপ অঞ্চলে ভূমির অবয়ব বিভিন্ন ধরণের দেখা যায়। দক্ষিণে সমান্তরাল থেকে নিম্নমূখী এবং উত্তর ও পশ্চিমাংশে কিছু পাহাড় লক্ষণীয়। টেকটনিক প্লেটের উত্থান ও ৫০ মিলিয়ন বছর পূর্বে ভারতীয় এবং ইউরেশীয় টেকটনিক প্লেটের সংঘর্ষের ফলে ভূমির এধরণের ব্যাপক বৈচিত্র্যতা দেখা দিয়েছে।

মেকং ব-দ্বীপকে জীববৈচিত্র্যের সংরক্ষণাগাররূপেও আখ্যায়িত করা হয়ে থাকে। ১৯৯৭ থেকে ২০০৭ সালের মধ্যে সহস্রাধিক প্রজাতির প্রাণীর দেখা পাওয়া যায়। এছাড়াও, নতুন নতুন গাছ, মাছ, সরিসৃপ ও স্তন্যপায়ীদের সন্ধান মেলেছে যা পূর্বে অনাবিস্কৃত ছিল। তন্মধ্যে, বিলুপ্ত ঘোষিত প্রজাতি লাওটিয়ান রক র‌্যাটেরও সন্ধান পাওয়া গেছে এখানে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Mekong Delta on ARCBC (ASEAN Regional Centre for Biodiversity Conservation) site
  2. Robert M. Salkin, Trudy Ring (১৯৯৬)। Paul E. Schellinger, Robert M. Salkin, সম্পাদক। Asia and Oceania। International Dictionary of Historic Places 5। Taylor & Francis। পৃ: ৩৫৩। আইএসবিএন 1-884964-04-4 
  3. Stark, M., & Sovath, B. (2001). Recent research on emergent complexity in Cambodia's Mekong. Bulletin of the Indo-Pacific Prehistory Association, 21(5), 85-98.
  4. Ashley Fantz, "Mekong a 'treasure trove' of 1,000 newly discovered species", CNN. December 16, 2008.

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. "At the height of the Khmer Empire's economic and political strength, during the eleventh and twelfth centuries, its rulers established and fostered the growth of Prey Nokor[...] It is possible that there already had been a settlement at this location in the Mekong marshes for some centuries, depending, as Prey Nokor did, on the handling of goods traded between the countries bordering the South China Sea and the interior provinces of the empire." Robert M. Salkin, Trudy Ring (১৯৯৬)। Paul E. Schellinger, Robert M. Salkin, সম্পাদক। Asia and Oceania। International Dictionary of Historic Places 5। Taylor & Francis। পৃ: ৩৫৩। আইএসবিএন 1-884964-04-4 
  2. "Such a trading center was bound to be one of the prizes in the struggle for power that developed in the thirteenth century between the declining Khmer Empire and the expanding kingdom of Champa, and by the end of that century the Cham people had seized control of the town." Robert M. Salkin, Trudy Ring (১৯৯৬)। Paul E. Schellinger, Robert M. Salkin, সম্পাদক। Asia and Oceania। International Dictionary of Historic Places 5। Taylor & Francis। পৃ: ৩৫৩। আইএসবিএন 1-884964-04-4 
  3. "Saigon began as the Cham village of Baigaur, then became the Khmer Prey Nokor before being taken over by the Vietnamese and renamed Gia Dinh Thanh and then Saigon." Nghia M. Vo (২০০৯)। The Viet Kieu in America: Personal Accounts of Postwar Immigrants from Vietnam। McFarland & Co.। পৃ: ২১৮। 

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Kuenzer, C. and F. Renaud. "2012: Climate Change and Environmental Change in River Deltas Globally", In (eds.): Renaud, F. and C. Kuenzer 2012: The Mekong Delta System – Interdisciplinary Analyses of a River Delta, Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 7–48
  • Renaud F. and C. Kuenzer. "2012: Introduction". In (eds.): Renaud, F. and C. Kuenzer 2012: The Mekong Delta System - Interdisciplinary Analyses of a River Delta. Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 3–6.
  • Moder, F., C. Kuenzer, Z. Xu, P. Leinenkugel, and Q. Bui Van. "2012: IWRM for the Mekong Basin". In (eds.): Renaud, F. and C. Kuenzer 2012: The Mekong Delta System - Interdisciplinary Analyses of a River Delta. Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 133–166
  • Klinger, V., G. Wehrmann, and G. Gebhardt, and C. Kuenzer. "2012: A Water related Web-based Information System for the Sustainable Development of the Mekong Delta". In (eds.): Renaud, F. and C. Kuenzer, 2011: The Mekong Delta System - Interdisciplinary Analyses of a River Delta. Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 423–444
  • Gebhardt, S., L. D. Nguyen, and C. Kuenzer. "2012: Mangrove Ecosystems in the Mekong Delta. Overcoming Uncertainties in Inventory Mapping Using Satellite Remote Sensing Data". In (eds.): Renaud, F. and C. Kuenzer, 2011: The Mekong Delta System - Interdisciplinary Analyses of a River Delta. Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 315–330
  • Kuenzer, C., H. Guo, J. Huth, P. Leinenkugel, X. Li, and S. Dech, 2012: Flood Mapping and Flood Dynamics of the Mekong Delta. ENVISAT-ASAR-WSM Based Time-Series Analyses. Remote Sens. 2013, 5, 687-715; doi:10.3390/rs5020687
  • Gebhardt, S., J. Huth, N. Lam Dao, A. Roth, and C. Kuenzer, "2012: A comparison of TerraSAR-X Quadpol backscattering with RapidEye multispectral vegetation indices over rice fields in the Mekong Delta, Vietnam". In: International Journal of Remote Sensing. 33(24) 2012, pp. 7644–7661.
  • Kuenzer, C., Guo, H., Leinenkugel, P., Huth, J., Li, X., and S. DecH, "2012: Flood and inundation dynamics in the Mekong Delta: an ENVISAT ASAR-based time series analyses". In print at: Remote Sensing.
  • Leinenkugel, P., Esch, T., And C. Kuenzer, "2011: Settlement Detection and Impervious Surface Estimation in the Mekong Delta Using Optical and SAR Data". In: Remote Sensing of Environment 115 (12) 2011, pp. 3007–3019.
  • Renaud, F. and C. Kuenzer 2012: The Mekong Delta System - Interdisciplinary Analyses of a River Delta, Springer, ISBN 978-94-007-3961-1, DOI 10.1007/978-94-007-3962-8, pp. 7–48

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

Climate change

স্থানাঙ্ক: ১০°০০′৩২″উত্তর ১০৫°৪৯′২৬″পূর্ব / ১০.০০৯° উত্তর ১০৫.৮২৪° পূর্ব / 10.009; 105.824