মূসার আইন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
El Greco's হিস্টরিকাল মিউজিয়াম অব ক্রেট এ রক্ষিত ১৫৭০-৭২ সালে আঁকা সিনাই পর্বতের ছবি,

মুসার আইন বা Law of Moses (হিব্রু ভাষায়: תֹּורַת מֹשֶׁהTorat Moshe), মোসইক ল’ বলা হয়। প্রাথমিকভাবে ইহুদীদের ধর্মগ্রন্থ ’তোরাহ’ এ বর্ণিত আইনকে নির্দেশ করে। ঐতিহ্যগতভাবে ধর্মগ্রন্থটি ইহুদী ধর্মের প্রবর্তক মূসা নবীর লেখা বলে ধারণা করা হলেও, অধিকাংশ পন্ডিতগন একাধিক লেখক দ্বারা এই গ্রন্থ লেখ হয়েছে বলে মত দিয়েছে।[১]

পরিভাষা[সম্পাদনা]

মূসার আইন বা Torah of Moses (Hebrew: תֹּורַת מֹשֶׁה‬, Torat Moshe, Septuagint প্রাচীন গ্রিকνόμος Μωυσῆ, nómos Mōusē, অথবা বাইবেলের কিছু ইংরেজি অনুবাদে, ’মূসার শিক্ষা’ হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। [২] বুক অব জশুয়াতে "Teachings of Moses" এর উল্লেখ পাওয়া যায়। 8:31-32, যেখানে জশুয়া ইবাল পর্বতের পাথরের স্থম্ভে হিব্রুতে লিখেছে, "Torat Moshe תֹּורַת מֹשֶׁה‬"। এর পর আরো লেখা হয়েছে,

অতঃপর তিনি যা শেখানো হয়েছে তার সব পাঠ করলেন, আশির্বাদ ও অভিশাপ, যেমন পবিত্র পুস্তক, তোরাহ তে লেখা হয়েছে। (Joshua 8:34).[৩]

হিব্রু বাইবেলে ১৫ বার এর উল্লেখ পাওয়া যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Marc Z. Brettler. “Introduction to the Pentateuch.” The New Oxford Annotated Bible, 4th ed., pp. 5-6: “Additionally, most scholars no longer see each source [of the Torah] as the work of a single author writing at one particular time but recognize that each is the product of a single group or ‘school’ over a long time…. Most scholars posit an editor or series of editors or redactors, conventionally called R, who combined the various sources, perhaps in several stages, over a long time.”
  2. e.g. New Century Version, Joshua 8:32
  3. Kristin De Troyer, Armin Lange Reading the present in the Qumran library 2005 p158: "Both at the beginning and at the ending of the Gibeonites' story there is now a reference to the law of Moses and to the fact that ... The building of the altar happens on Mount Ebal, not in Gilgal — Joshua gets to Gilgal only in 9:6."