মুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানি
محمد نواز عرفانی
৩য় সর্বোচ্চ নেতা, পারাচিনার
কাজের মেয়াদ
১৮ জুন ২০০২ – ২৬ নভেম্বর ২০১৪
পূর্বসূরীশেখ আলী মদদ
উত্তরসূরীশেখ ফিদা হুসাইন মুজাহিরি
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৯৭০-০১-০১)১ জানুয়ারি ১৯৭০
দানিয়োর, গিলগিত, পাকিস্তান
মৃত্যু২৬ নভেম্বর ২০১৪(2014-11-26) (বয়স ৪৪)
ইসলামাবাদ, পাকিস্তান
সমাধী, পারাচিনার
জাতীয়তা পাকিস্তান
রাজনৈতিক দলআঞ্জুমান-ই-হুসাইনিয়া
সন্তান
  • মেহদি ইরফানি
  • হাদী ইরফানি
প্রাক্তন শিক্ষার্থী
  • সরকারি বিদ্যালয়, দানিয়োর, গিলগিত
  • জামিয়া তুর মুনতাজির, লাহোর
  • হোজা এলমিয়া কোম
জীবিকাইমাম, শিক্ষক
ওয়েবসাইটমুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানির ওয়েবসাইট

মুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানি (উর্দু: محمد نواز عرفانی‎‎; ১ জানুয়ারি ১৯৭০ - ২০১৪) পাকিস্তানের পারাচিনারের একজন শিয়া মুসলিম ধর্মীয় নেতা, বিপ্লবী এবং রাজনীতিবিদ। পরবর্তিতে তার স্থলাভিষিক্ত হন শেখ ফিদা হুসাইন মুজাহিরি।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানি গিলগিটের দানিয়োরে জন্মগ্রহণ করেন। তার প্রাথমিক শিক্ষা গ্রামের স্থানীয় স্কুলে সম্পন্ন হয়। তার পরিবার ছিল ইসমাইলি শিয়া, কিন্তু তার পিতামহ এবং পিতা ইসমাইলি ধর্মের উপর বারোশিয়া ইসলামকে (ইসনা আশারিয়া) অগ্রাধিকার দেন এবং শিয়া ইসলামের সাথে যুক্ত হন। ফলস্বরূপ, তাদের অনেক কষ্ট এবং ঝামেলা সহ্য করতে হয়।[১]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

সকল ঔদ্ধত্ব সহ্য করে তার বাবা তাকে লাহোরের জামিয়া তুর মুনতাজারে প্রেরণ করেধ। সেখানে বহু পণ্ডিতদের অধীনে তিনি ধর্মীয় শিক্ষা লাভ করেন।[১]

দেশান্তর[সম্পাদনা]

স্থানীয় সরকার তাকে ২০১৩ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত নির্বাসিত করে। তিনি কিছুসময়ের জন্য ইসলামাবাদে অবস্থান করেন। স্থানীয় জনগণ এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলেও তা ফলপ্রসূ হয়নি।[২]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২৬ নভেম্বর, ২০১৪ তারিখে ইসলামাবাদে আল্লামা মুহাম্মদ নওয়াজ ইরফানিকে গুলি করে হত্যা করা হয়। কেন্দ্রীয় ঈদগাহে জুমআর নামাজের পর সর্ব স্তরের মানুষ তার জানাজায় অংশ গ্রহণ করে। পরে তাকে ঈদগাহ কবরস্থানে সমাধীস্থ করা হয়। অংশগ্রহণকারীরা শিয়া পণ্ডিতের হত্যাকাণ্ডে মর্মাহত হয় এবং শোক প্রকাশ করে এবং দোষীদের গ্রেফতার এবং তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানায়।[৩][৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "About - Shaheed Nawaz Irfani"web.archive.org। ২০১৬-০৪-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২০ 
  2. "Hate speech: Protest against imam's expulsion enters fourth day"The Express Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৪-০৮-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২০ 
  3. "1000s attend funeral of Al-Sistani's representaitve Martyr Allama Nawaz Irfani | The Shia Post"web.archive.org। ২০১৪-১২-১১। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২০ 
  4. "Home - Shiitenews.org - Largest Portal of Shia News from allover the World"web.archive.org। ২০১৬-০৩-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২০ 
  5. "Backlash: Three-day mourning period in Parachinar"The Express Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৪-১১-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]