মুসাফির (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মুসাফির
মুসাফির (চলচ্চিত্র).jpg
মুসাফির চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকআশিকুর রহমান
প্রযোজকজুবায়ের আলম
চিত্রনাট্যকারআশিকুর রহমান
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারনাভেদ পারভেজ
ইমরান মাহমুদুল
বেলাল খান
চিত্রগ্রাহকআশিকুর রাহমান
সম্পাদকআশিকুজ্জামান অপু
প্রযোজনা
কোম্পানি
  • পার্সেপচুয়াল পিকচার্স
  • আশিকুর রাহমান ফিল্মস
পরিবেশকটাইগার মিডিয়া লিমিটেড
মুক্তি
  • ২২ এপ্রিল ২০১৬ (2016-04-22)
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
নির্মাণব্যয়১,০০,০০,০০০ টাকা[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]
আয়৫,৫০,০০,০০০[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

মুসাফির আশিকুর রহমান পরিচালিত বাংলাদেশী মারপিটধর্মী চলচ্চিত্র। পারসেপচুয়াল পিকচার্স প্রযোজিত ছবিটিতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন আরিফিন শুভ, নবাগত মারজান জেনিফা, ও মিশা সওদাগর। আরিফিন শুভ সিক্রেট সার্ভিস বাংলাদেশের (এসএসবি) প্রশিক্ষিত ঘাতকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। মারজান জেনিফা জারা মেহজাবিনের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন, হঠাৎ এজেন্সিটির অনেক দেশীয় নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট শ্রেণিবদ্ধ নথিপত্রগুলি চুরি হয়ে যায়। নথিপত্রগুলি উদ্ধার করা নিয়েই চলচ্চিত্রের কাহিনী নির্মিত হয়েছে।

পার্সেপচুয়াল পিকচার্সের ব্যানারে চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেন জোবায়ের আলম এবং এটির পরিবেশক ছিল টাইগার মিডিয়া লিমিটেড। মুসাফির ছিল ২০১৪ সালের অ্যাকশন চলচ্চিত্র কিস্তিমাতের প্রাথমিক সাফল্যের পর আশিকুর রহমান এবং আরিফিন শুভর মধ্যকার দ্বিতীয় কাজ। ছবিটি ২২ এপ্রিল ২০১৬ সালে মুক্তি পায় এবং বক্স অফিসে দর্শকদের কাছ থেকে ভালো সাড়া পায়।

কাহিনী[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি সিক্রেট এজেন্সির একটি কভার্ট অপারেশন এর কাহিনী দিয়ে তৈরী, যার মূল হোতা আসাদ উদ্দৌলা (মিশা সওদাগর)। সানি (আরিফিন শুভ) একটি মিথ্যা মামলায় জেল খেটে বের হওয়ার পর সাবেক প্রেমিকাকে খুন করার শপথ ছিল, সেটার মোড়ের গল্পটিই মুসাফিরের গল্প। জেল থেকে বের হয়ে পেশাদার খুনি হিসেবে সানির পথচলা। আসাদের চক্রান্তে বিশেষ এক মিশনে জারা মেহজাবিন (মারজান জেনিফা) কে কিডন্যাপ করে, অতঃপর জারাকে বাঁচাতে চায়। তাকে বেড়িয়ে পরে পথে এবং হয়ে যায় মুসাফির। সানি তার প্রেমিকাকে খুন করা এবং জারাকে বাচানোর গন্তব্যে পৌছাতে একের পর এক বাধা এসবই সিনেমার টান টান উত্তেজনা।

কুশীলব[সম্পাদনা]

  • আরিফিন শুভ - সানী
  • মারজান জেনিফা - জারা মেহজাবিন
  • মিশা সওদাগর - আসাদ-উদ-দৌলা, সিক্রেট সার্ভিস বাংলাদেশের পরিচালক
  • টাইগার রবি - তবরেজ, মাফিয়া নেতা
  • শিমুল খান - শেহজাদ
  • আফজাল শরীফ - ডাক্তার
  • আনন্দ খালেদ - ডাক্তার
  • সোহেল মন্ডল - রাজ, তবরেজের ভাই
  • রেবেকা রউফ - মারিয়ার মা
  • ইলিয়াস কোবরা - গুলজার
  • জাদু আজাদ - একজন ভাড়াটে হত্যাকারী
  • সিন্ডি রোলিং - পরমা সুন্দরী, একটি সাইকোপ্যাথিক হত্যাকারী
  • হারুন রশিদ - বান্টি
  • প্রসূন আজাদ - মারিয়া (বিশেষ চরিত্রে)
  • মাহামুদুল ইসলাম মিঠু - (বিশেষ চরিত্রে)
  • দেবাশীষ বিশ্বাস - রাজন চৌধুরী (বিশেষ চরিত্রে)
  • বাঁধন - তবরেজের দলের লোক

নির্মাণ[সম্পাদনা]

কিস্তিমাত চলচ্চিত্রে সাফল্যের পর, পরিচালক আশিকুর রহমান ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তার পরবর্তী প্রকল্পের ঘোষণা দেন। অনেক আলোচনার পর আরিফিন শুভকে প্রধান চরিত্রের জন্য নির্বাচিত করা হয়। এরপর মিশা সাওদাগর এবং টাইগার রবিকে এই চলচ্চিত্রে খলচরিত্রে অভিনয় করার জন্য ডাকা হয়। পরিচালক আশিকুর রহমান ঘোষণা করেন যে তিনি এই চলচ্চিত্রে একজন নতুন নারী প্রধান চরিত্র আনবেন এবং মারজান জেনিফাকে এই চরিত্রের জন্য নির্বাচিত করা হয়। পরে জানা যায়, প্রসূন আজাদও সহায়ক ভূমিকায় অভিনয় করবেন। প্রযোজকদের মতে, চলচ্চিত্রটির অ্যাকশন দৃশ্যগুলো আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞদের দিয়ে শুট করার এবং পরিচালনা করার কথা ছিল। মারপিটের পরিচালক হিসেবে এডওয়ার্ড মিঠুকে এই জন্য সিঙ্গাপুর থেকে আনা হয়।

শুটিং[সম্পাদনা]

মুসাফির চলচ্চিত্রের মহরত অনুষ্ঠিত হয় ২০১৫ সালের ২০শে মার্চ বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন সংস্থার (বিএফডিসি) জহির রায়হান কালার ল্যাব ভিআইপি অডিটরিয়ামে। ছবিটির প্রথম পর্বের শুটিং শুরু হয় ২৩শে মার্চ।[১][২] বাংলাদেশের ঢাকা, কক্সবাজার, রাঙামাটিসহ বিভিন্ন লোকেশনে ছবিটির দৃশ্যধারণ করা হয়। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে ছবিটি বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র পায়।[৩]

মুক্তি[সম্পাদনা]

ছবিটির প্রথম ট্রেইলার ২০১৫ সালের ১৫ই মে ইউটিউবে মুক্তি পায়।[২]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

মুসাফির (অরিজিনাল মোশন পিকচার সাউন্ডট্র্যাক)
তাহসান, ইমরান মাহমুদুল, সাবরিনা পড়শী, বেলাল খান, তাহসিন, নাভেদ কর্তৃক সাউন্ডট্র্যাক অ্যালবাম
মুক্তির তারিখ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ (2016-02-14)
শব্দধারণের সময়২০১৫
ঘরানাপূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের সাউন্ডট্র্যাক
সঙ্গীত প্রকাশনীটাইগার মিডিয়া লিমিটেড
পরিচালকইমরান মাহমুদুল

মুসাফির চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন নাভেদ পারভেজ, ইমরান, ও বেলাল খান।

নং.শিরোনামশিল্পীদৈর্ঘ্য
১."আলতো ছোঁয়াতে"ইমরান মাহমুদুল৪:০৮
২."ফিরে আয়"তাহসিন, সাবরিনা পড়শী৫:১৩
৩."মুসাফির"তৌফিক আহমেদ, ফাহাদ বিন আজিজ৩:১৬
৪."পথ জানা নেই"তাহসান রহমান খান৩:৩৮
৫."মুসাফির (মিশ্র)"তানজিল হাসান, নাভেদ৩:২৭
৬."রং"বেলাল খান, কনা৩:৫৬

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মুসাফিরের যাত্রা শুরু"বাংলাদেশ প্রতিদিন। ২১ মার্চ ২০১৫। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৯ 
  2. "আলোচিত ছবি মুসাফিরের প্রথম ভিডিও প্রকাশ"সময় নিউজ। ১৬ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৯ 
  3. "মার্চে আসছে আরিফিন শুভ ও মারজান জেনিফার 'মুসাফির'"দৈনিক ভোরের কাগজ। ২৯ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]