মুন্সিগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুন্সিগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট
ধরনসরকারি
স্থাপিত২০০৬ (2006)
অধ্যক্ষজহিরুল আলম [১]
প্রশাসনিক কর্মকর্তা
৩৪
শিক্ষার্থী২২০০
অবস্থান
মিরকাদিম
, ,
২৩°৩৪′০৯″ উত্তর ৯০°২৯′০৯″ পূর্ব / ২৩.৫৬৯০৮১° উত্তর ৯০.৪৮৫৯১৪° পূর্ব / 23.569081; 90.485914স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৪′০৯″ উত্তর ৯০°২৯′০৯″ পূর্ব / ২৩.৫৬৯০৮১° উত্তর ৯০.৪৮৫৯১৪° পূর্ব / 23.569081; 90.485914
শিক্ষাঙ্গনগ্রামীন
সংক্ষিপ্ত নামএমপিআই

মুন্সিগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিমে অবস্থিত একটি সরকারি বহুমুখী কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ২০০৬ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। এ প্রতিষ্ঠানটি বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এর অধীনে ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স পরিচালনা করে থাকে। এখানে ৮টি টেকনোলজি আছে ।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০০৬ সালের ২২ জুলাই কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহণের উদ্দেশ্যে মুন্সিগঞ্জ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট প্রতিষ্ঠিত হয়। এবং ঐ বছর থেকেই শিক্ষাকার্যক্রম শুরু হয়। জনাম বিল্লাল হোসেন প্রতিষ্ঠাকালীন অধ্যক্ষ ছিলেন।

ক্যাম্পাস ও অবকাঠামো[সম্পাদনা]

মুন্সিগঞ্জ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট মুন্সিগঞ্জ জেলার মিরকাদিম নামক স্থানে অবস্থিত। এখানে পাঁচ তলা বিশিষ্ট একটি প্রশাসনিক ও একটি একাডেমিক ভবন, দুইতলা বিশিষ্ট দুইটি ওয়ার্কশপ সহ ২৩ টি ল্যাব রয়েছে। এছাড়াও অধ্যক্ষ বাস ভবন, দুইতলা স্টাফ কোয়ার্টার, একটি "শহীদ মিনার", একটি সাব স্টেশন ও একটি পাম্প হাউজ রয়েছে।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

শিক্ষা কার্যক্রম[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এর অধীনে বর্তমানে ৪ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-ইন-ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স চালু রয়েছে। কারিগরি শিক্ষার পাশাপাশি প্রত্যেক প্রযুক্তির ছাত্র-ছাত্রীদের আবশ্যিকভাবে পাঠ্য বাংলা, ইংরেজি, গণিত, পদার্থ, রসায়ন, ব্যবস্থাপনা, সমাজ বিজ্ঞান, শারীরিক শিক্ষা ইত্যাদি বিষয়ে পাঠদানের জন্য একটি অকারিগরি শিক্ষা বিভাগ রয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের সকালে ও দুপুরে দুই শিফটে পাঠদান করা হয়।

বিভাগ সমূহ[সম্পাদনা]

ভর্তি পদ্ধতি[সম্পাদনা]

প্রতি বছর এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর দেশের সরকারি পলিটেকনিক গুলোতে এক সাথে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম শুরু করে। লিখিত পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর ও এসএসসি পরীক্ষার প্রাপ্ত স্কোরের সমম্বয়ে এ ফল প্রণীত হয়। অনলাইনে ভর্তি ফর্ম পূরণের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীদের বিভিন্ন বিভাগ ও পলিটেকনিক পছন্দের সুযোগ থাকে। মেধা ও পছন্দের ভিত্তিতে বিভাগ ও ইন্সটিটিউট নির্বাচন করা হয়। এভাবে প্রতি বছর লক্ষীপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এ প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে বিভিন্ন বিভাগে নির্ধারিত আসন সংখ্যা অনুযায়ী ৩৮৪ জন ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি হয়ে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Munshiganj Polytechnic Institute, Munshiganj"। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১৬