মি. ইন্ডিয়া (১৯৮৭ এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিস্টার ইন্ডিয়া
পরিচালকশেখর কাপুর
প্রযোজক
রচয়িতাসেলিম-জাভেদ
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারলক্ষীকান্ত-পেয়ারেলাল
চিত্রগ্রাহকবাবা আজমি
সম্পাদক
  • ওমান ভোঁসলে
  • গুরুদত্ত শিরালী
প্রযোজনা
কোম্পানি
নরসিমহা এন্টারপ্রাইজ
পরিবেশকসুজাতা ফিল্মস
মুক্তি
  • ২৫ মে ১৯৮৭ (1987-05-25)
দৈর্ঘ্য১৭৯ মিনিট[১]
দেশভারত
ভাষাহিন্দি
নির্মাণব্যয়₹৩৮ মিলিয়ন[২]
আয়₹১০০ মিলিয়ন[৩]

মি. ইন্ডিয়া হলো ১৯৮৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত হিন্দি ভাষার একটি সুপারহিরো চলচ্চিত্র যেটি পরিচালনা করেন শেখর কাপুর এবং প্রযোজনা করেন বনি কাপুর এবং সুরিন্দর কাপুর। এতে অভিনয় করেন অনিল কাপুর, শ্রীদেবী এবং অমরিশ পুরি। এটি সেলিম-জাভেদ জুটির লিখা সর্বশেষ চিত্রনাট্য এরপর তারা আলাদা হয়ে যায়। গল্পে দেখা যায় অরুন বার্মা (অনিল কাপুর) একজন গরিব বেহালাবাদক এবং কিছু এতিম বাচ্চার পালক। সে ঘড়ির মতো দেখতে একটি যন্ত্রের সন্ধান পায় যার মাধ্যমে সে অদৃশ্য হওয়ার ক্ষমতা অর্জন করে।

১৯৮৩ সালের পারিবারিক নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র মাসুম দেখার পর বনি কাপুর পরিচালক কাপুর কে এরকম আরেকটি চলচ্চিত্র বানানোর কথা বলে। এই চলচ্চিত্রের চিত্রায়ণের কাজ জুলাই ১৯৮৫ সালে শুরু হয়ে ৩৫০ দিন পর শেষ হয়।

মি. ইন্ডিয়া ২৫ মে ১৯৮৭ সালে মুক্তি পায়। এটি ব্যবসায়িক সাফল্য লাভ করে এবং ১৯৮৭ সালে ভারতের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যবসাসফল চলচ্চিত্র হিসেবে ঘোষিত হয়। এটি ৩৮ মিলিয়ন (US$৫,১৩,০১৯) বাজেট এর বিপরীতে ১০০ মিলিয়ন (US$১.৩৫ মিলিয়ন) আয় করে। এটি আধুনিক এবং সমসাময়িক সকল সমালোচকদের থেকে ইতিবাচক সাড়া অর্জন করে। যাদের বেশিরভাগই অনিল কাপুর এবং শ্রীদেবীর অভিনয়ের প্রশংসা করে।

মি. ইন্ডিয়া হিন্দি সিনেমার জন্য একটি মাইলস্টোন স্বরূপ। এটি ভারতীয় সিনেমার প্রথম সুপারহিরো চলচ্চিত্র যা খুব কমই দেখা যায়। পরবর্তীতে এটি তামিল ভাষায় এন রাথাথিন রাথামে (১৯৮৯) এবং কন্নড় ভাষায় জয় কর্ণাটক (১৯৮৯) নামে পুনঃনির্মান হয়। এটির একটি ৩ডি সিকুয়েল ২০১১ সালে ঘোষণা করা হয়েছিল কিন্তু বন্ধ হয়ে যায়।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

মি. ইন্ডিয়া
লক্ষীকান্ত-পেয়ারেলাল কর্তৃক সাউন্ডট্র‍্যাক
মুক্তির তারিখ৩০ অক্টোবর ১৯৮৬
ঘরানাফিচার ফিল্ম সাউন্ডট্র‍্যাক
দৈর্ঘ্য৩৮:৪৬
সঙ্গীত প্রকাশনীটি সিরিজ
প্রযোজকলক্ষীকান্ত-পেয়ারেলাল


টি সিরিজ এই চলচ্চিত্রের এলবাম টি ৩০ অক্টোবর ১৯৮৬ সালে মুক্তি দেয়। দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর প্রতিবেদনে বলা হয় ২৪ জুলাই ১৯৮৭ এর হিসেব অনুযায়ী ২.৫ মিলিয়ন ক্যাসেট বিক্রি করে ব্যবসায়িক সাফল্য লাভ করে।[৭][৮]চলচ্চিত্রটির সবচেয়ে জনপ্রিয় গান হিসেবে বিবেচিত হয় "হাওয়া হাওয়াই" গানটি। এটি পরবর্তীতে তুমহারি সুলু (২০১৬) চলচ্চিত্রে পুনরায় ব্যবহার করা হয়।[৯]

মি. ইন্ডিয়া (অরিজিনাল মোশন পিকচার সাউন্ডট্র‍্যাক)[১০]
নং.শিরোনামগায়ক(গণ)দৈর্ঘ্য
১."কাটে নেহি কাট তে"কিশোর কুমার, আলিশা চিনাই৬:৩৭
২."কারতে হে পেয়ার হাম মি. ইন্ডিয়া সে"কিশোর কুমার, কবিতা কৃষ্ণমূর্তি৬:৩৬
৩."জিন্দেগী কি ইয়াহি রিত হে" (১ম অংশ)কিশোর কুমার৫:১৩
৪."হাওয়া হাওয়াই"কবিতা কৃষ্ণমূর্তি৭:০২
৫."জিন্দেগী কি ইয়াহি রিত হে" (২য় অংশ)কবিতা কৃষ্ণমূর্তি১:২৫
৬."প্যারোডি গান"সাব্বির কুমার, অনুরাধা পুডওয়াল৯:২৪
৭."জিন্দেগী কি ইয়াহি রিত হে" (৩য় অংশ)কিশোর কুমার১:২৯
মোট দৈর্ঘ্য:৩৮:৪৬

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kapur, Shekhar (২৫ মে ১৯৮৭)। Mr. India (Motion picture) (হিন্দি ভাষায়)। India: Narsimha Enterprises। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০২১ 
  2. Mukherjee, Madhureeta (২৯ মে ২০১৭)। "Boney Kapoor: People thought I was crazy to make 'Mr. India'"The Times of India। ১৮ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২১ 
  3. "Box Office 1987"Box Office India। ১২ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০২১ 
  4. Aravind, C. D. (৩১ জুলাই ১৯৮৭)। "Mixed fare"The Indian Express। পৃষ্ঠা 5। ১৮ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মার্চ ২০২১ 
  5. "Mr India Cast & Crew"Bollywood Hungama। ৬ মার্চ ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০২১ 
  6. Chaudhuri 2015, পৃ. 147–179।
  7. "25,00,000 Cassettes Sold!"The Indian Express। Madras, India। ২৪ জুলাই ১৯৮৭। পৃষ্ঠা 5। ১৭ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০২১ 
  8. Nair, Vipin (৯ নভেম্বর ২০১৭)। "Suitably mellow"The Hindu। ১৮ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০২১ 
  9. Dundoo, Sangeetha Devi (৭ মার্চ ২০১৮)। "Superstars Inc: When women rule the roost in Indian cinema"The Hindu। ১২ অক্টোবর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০২১ 
  10. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; iTunes নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি