মিশন: ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিশন: ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল
মিশন- ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল.jpeg
থিয়েটারে মুক্তি পাওয়া পোস্টার
পরিচালকব্র্যাড বার্ড
প্রযোজক
রচয়িতা
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারমাইকেল গিয়াচিনো
চিত্রগ্রাহকরবার্ট এলসুইট
সম্পাদকপল হির্শ
পরিবেশকপ্যারামাউন্ট পিকচার[১]
মুক্তি
দৈর্ঘ্য১৩৩ মিনিট[২]
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র[১]
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়১৪৫ মিলিয়ন ডলার[৩]
আয়৬৯৪.৭ মিলিয়ন ডলার[৩]

মিশন: ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল ব্র্যাড বার্ড পরিচালিত এবং জোশ অ্যাপেলবাউম ও আন্দ্রে নিমেকের লেখা একটি আমেরিকান অ্যাকশন গুপ্তচর চলচ্চিত্র। এটি মিশন: ইম্পসিবল সিরিজের চতুর্থ কিস্তি এবং বার্ডের প্রথম লাইভ-অ্যাকশন চলচ্চিত্র।[৫] এতে অভিনয় করেছেন টম ক্রুজ, যিনি জেরেমি রেনার, সাইমন পেগ, পলা প্যাটন, মাইকেল নাইকভিস্ট, অনিল কাপুর এবং লায়া সিডউক্সের পাশাপাশি আইএমএফ এজেন্ট ইথান হান্টের ভূমিকাকে নতুন করে উপস্থাপন করেছেন। ঘোস্ট প্রোটোকল ক্রুজ, জে জে জে আব্রামস (তৃতীয় চলচ্চিত্রের পরিচালক) এবং ব্রায়ান বার্ক প্রযোজনা করেছিলেন। এটি প্রথম চলচ্চিত্র থেকে সম্পাদক পল হির্চ এবং ভিজ্যুয়াল এফেক্টের তত্ত্বাবধায়ক জন নোলের ফিরে আসা দেখেছিল এবং এটি প্রথম মিশন:ইম্পসিবল সিরিজের চলচ্চিত্র যা আইএমএক্স ক্যামেরা ব্যবহার করে ধারণ করা হয়েছে।

১ই ডিসেম্বর,২০১১ তারিখে চলচ্চিত্রটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্যারামাউন্ট পিকচারের মাধ্যমে মুক্তি পেয়েছে, চলচ্চিত্রটি ৬৯৪ মিলিয়ন ডলার দিয়ে সিরিজটির সর্বাধিক উপার্জনকারী ছবিতে পরিণত হয়েছিল, যতক্ষণ না এটিকে মিশন: ইম্পসিবল - ফলআউট এটিকে ছাড়িয়ে যায়।[৬] এটি ২০১১ সালের পঞ্চম সর্বোচ্চ উপার্জনকারী চলচ্চিত্র এবং ক্রুজ অভিনীত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উপার্জনকারী চলচ্চিত্র।[৭][৮][৯]

কাহিনী[সম্পাদনা]

গল্পটি শুরু হয় আইএমএফ এজেন্ট ট্রেভর হানাওকে বুদাপেস্টে খুনের মাধ্যমে,হত্যাকারী সাবিন মোরাউ। এরপর হত্যাকারী রাশিয়ান পারমাণবিক প্রবর্তন কোড সম্বলিত তার ফাইলটি গ্রহণ করেন যেটা ট্রেভর হানাওয়ের কাছে ছিল।হত্যাকারী "কোবাল্ট" নামে একজনের হয়ে কাজ করেন,যাকে তিনি কোডগুলো পৌঁছে দিবেন।

আইএমএফ এজেন্ট ইথান হান্ট কোবাল্টের তথ্যের উৎস বোগদানকে ধরার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে মস্কোর একটি কারাগারে বন্দী হন। হানাওয়ের হ্যান্ডলার জেন কার্টার এবং সদ্য রোগ দেওয়া ফিল্ড এজেন্ট বেনজি ডানের সহয়তায় হান্ট এবং বোগদানকে পালাতে হবে। আইএমএফের উদ্দেশ কোবাল্ট সম্পর্কে আরও তথ্য পাওয়া। মিশনের সময়,একজন অভ্যন্তরীণ আইএমএফ দলকে একটি অনুমিত বিস্ফোরণ সম্পর্কে সম্প্রচার করে, যার ফলে ক্রেমলিন পুলিশকে সতর্ক করে দেয়।একটি বোমা ক্রেমলিনের অনেকাংশকে ধ্বংস করার সাথে সাথে হান্টের দলের মিশনটি বাতিল করে দেয়। কার্টার এবং ডান পালাতে পেরেছিলেন, কিন্তু হান্ট এসভিআর এজেন্ট আনাতোলি সিডোরভের হাতে ধরা পড়ে এবং ক্রেমলিনকে ধ্বংস করার অভিযোগে অভিযুক্ত হন।

পরে হান্ট পালিয়ে গিয়ে মস্কোয় আইএমএফ সচিবের সাথে অন্য ব্যবসায়ের বিষয়ে সাক্ষাত করেন। সচিব হান্টকে বলেছিলেন যে তারা আইএমএফকে অস্বীকার করে "ঘোস্ট প্রোটোকল" শুরু করতে হয়েছিল,তবে গোপনে হান্টকে কোবাল্টের অনুসরণ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন।সিডোরভের বাহিনী হান্টকে ধরে ফেলে এবং সচিব মারা যায়। হান্ট সচিবের সহযোগী এবং গোয়েন্দা বিশ্লেষক উইলিয়াম ব্র্যান্ডের সাথে পালিয়ে যান।

এরপর হান্ট ও তার দল কোড পুনরুদ্ধারের মিশন শুরু করে এবং এই কাজে দুবাই ভ্রমন করে। দুবাইয়ের বুর্জ খলিফা টাওয়ারে তারা কোবাল্টের খোঁজে মিশন শুরু করে এবং পারমাণবিক কোডটি উদ্ধারে সফল হয়। চলচ্চিত্রটির শেষের দিকে দেখা যায় ইথান হান্ট আরও নতুন একটি মিশন নিয়ে বের হয়েছেন।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

গান[সম্পাদনা]

মিশন: ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল: মোশন পিকচার থেকে সংগীত
মাইকেল গিয়াচিনো কর্তৃক সাউন্ডট্রেক
মুক্তির তারিখ১০ জানুয়ারি ২০১২ (2012-01-10)
ঘরানাচলচিত্র
দৈর্ঘ্য৭৬:২৮
সঙ্গীত প্রকাশনীবিভিন্ন সরবন্দে
প্রযোজকমাইকেল গিয়াচিনো[১১]
মাইকেল গিয়াচিনো কালক্রম
মন্টি কার্লো
(২০১১)
মিশন: ইম্পসিবল - ঘোস্ট প্রোটোকল: মোশন পিকচার থেকে সংগীত
(২০১২)
জন কার্টার
(২০১২)
টেমপ্লেট:অতিরিক্ত কালানুক্রম

সবগুলি গানের সুরকার মাইকেল গিয়াচিনো

নং.শিরোনামদৈর্ঘ্য
১."তাকে আমার বুদাপেস্ট দিন"১:৫৭
২."ফিউজ হালকা" (লালো শিফরিন দ্বারা মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)২:০১
৩."একটি বন্দুক যুদ্ধ ছুরি"৩:৪২
৪."রাশিয়ায়, ফোন ডায়াল ইউ" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)১:৪০
৫."প্রত্যাশার সাথে ক্রেমলিন" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৪:১২
৬."রাশিয়া থেকে শোভ দিয়ে" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৩:৩৭
৭."ঘোস্ট প্রটোকল" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৪:৫৮
৮."রেলকার রুনডাউন" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)১:১১
৯."হেন্ড্রিকসের ম্যানিফেস্টো" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৩:১৭
১০."একটি মানুষ, একটি পরিকল্পনা, একটি কোড, দুবাই" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)২:৪৪
১১."গ্লোভ ভালবাসি" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৩:৪৪
১২."এক্সপ্রেস এলিভেটর" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)২:৩১
১৩."মিশন ছদ্মবেশী"৩:৫৫
১৪."মরিউর ঝামেলা তার চেয়ে মূল্যবান"৬:৪৪
১৫."দৌড়ের বাহিরে"৩:৫৪
১৬."উইস্ট্রামের চোখ"১:০৫
১৭."মুড ইন্ডিয়া" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৪:২৮
১৮."মুম্বাই এর শব্দ"৭:১৪
১৯."হ্যান্ড্রিক্সে লঞ্চ চলছে"২:২২
২০."বিশ্বের সবচেয়ে খারাপ পার্কিং ভ্যালেট" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৫:০৩
২১."মিশন মিশনে রেখেছি" (লালো শিফরিন এর মিশন: ইম্পসিবল 'থিম রয়েছে)৫:১৯
২২." মিশন: ইম্পসিবল 'থিম (একটি ব্যাং সংস্করণ সহ)"০:৫৩

মুক্তি এবং প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

জুলাই ২০১১ সালে, ঘোস্ট প্রোটোকলের একটি টিজার ট্রেলার প্রকাশিত হয়।

৭ ডিসেম্বর, ২০১১-এ দুবাইয়ের ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ারের পরে, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১১, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আইএমএক্স এবং অন্যান্য বৃহৎ থিয়েটারে ছবিটি মুক্তি পায়। সাধারণভাবে সবার জন্য মুক্তি পায় ২১ ডিসেম্বর ২০১১।[১২][১৩]

প্রতিক্রিয়া[সম্পাদনা]

রোটেন টমাটোস এ চলচ্চিত্রটির ২৩৯ টি পর্যালোচনার ভিত্তিতে গড় ৭.৭/১০ এবং ৯৪% পজিটিভ অনুমোদন রেটিং রয়েছে।

ঘোস্ট প্রোটোকল উত্তর আমেরিকাতে ২০৯.৪ মিলিয়ন ডলার এবং অন্যান্য দেশে ৪৮৪.৩ মিলিয়ন ডলার অর্জন করেছে বিশ্বব্যাপী মোট ৬৯৪.৪ মিলিয়ন ডলার আয় করেছে।[১৪]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Mission: Impossible – Ghost Protocol"American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৭ 
  2. "MISSION: IMPOSSIBLE – GHOST PROTOCOL (12A)"British Board of Film Classification। ডিসেম্বর ৭, ২০১১। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২, ২০১৫ 
  3. "Mission:Impossible – Ghost Protocol Box Office Data"। Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৫, ২০১২ 
  4. "MISSION: IMPOSSIBLE – GHOST PROTOCOL (4K UHD REVIEW)"The Digital Bits। জুন ২৫, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ২, ২০১৮ 
  5. Peter Sciretta (মে ৭, ২০১০)। "Brad Bird Confirmed for Mission: Impossible 4"। /Film। জুলাই ১১, ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১০ 
  6. "Box office collections of "Mission: Impossible" films"। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩, ২০১৩ 
  7. "'Mission: Impossible 4' Becomes Tom Cruise's Top-Grossing Film"। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩, ২০১৩ 
  8. "Tom Cruise's Top 10 Highest Grossing Films Of All Time"। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩, ২০১৩ 
  9. "Around-the-World Roundup: 'M:I-4' Passes $600 Million Worldwide"। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ৩, ২০১৩ 
  10. Eisenberg, Eric (সেপ্টেম্বর ৬, ২০১২)। "Chris Evans And Michelle Monaghan Sign On For Anti-Romantic Comedy A Many Splintered Thing"। CinemaBlend.com। ডিসেম্বর ২৩, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। Monaghan, who last appeared in an uncredited role in Mission: Impossible – Ghost Protocol. ... 
  11. "Mission: Impossible – Ghost Protocol"Varèse Sarabande। জুন ২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১, ২০১৫ 
  12. "Mission: Impossible – Ghost Protocol to open 8th Dubai International Film Festival"Dubai International Film Festival। নভেম্বর ১৪, ২০১১। ডিসেম্বর ১৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৬, ২০১১ 
  13. McClintock, Pamela (সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১১)। "Paramount Opening 'Mission: Impossible – Ghost Protocol' Five Days Early in Imax"The Hollywood Reporter। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩, ২০১১ 
  14. "Mission: Impossible – Ghost Protocol (2011)"Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৩, ২০১২