মিরন বক্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মিরন বক্স
মিরন বক্স.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমালিক মিরন বক্স
জন্ম(১৯০৭-০৪-২০)২০ এপ্রিল ১৯০৭
রাওয়ালপিন্ডি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমানে - পাকিস্তান)
মৃত্যু৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১(1991-02-08) (বয়স ৮৩)
ঢোক রাতা, রাওয়ালপিন্ডি, পাকিস্তান
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২১)
২৯ জানুয়ারি ১৯৫৫ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট১৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৫ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৫
রানের সংখ্যা ৫৩
ব্যাটিং গড় ১.০০ ৩.৩১
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ১* ২৩
বল করেছে ৩৪৮ ২৮০৩
উইকেট ৪৮
বোলিং গড় ৫৭.৫০ ১৯.৪৩
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ২/৮২ ৬/১৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ২/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৭ অক্টোবর ২০১৯

মালিক মিরন বক্স (উর্দু: میران بخش‎‎; জন্ম: ২০ এপ্রিল, ১৯০৭ - মৃত্যু: ৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯১) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের রাওয়ালপিন্ডি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা পাকিস্তানী আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৫ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর পাকিস্তানী ক্রিকেটে রাওয়ালপিন্ডি দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি অফ ব্রেক বোলিং করতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন মিরন বক্স

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৪৯-৫০ মৌসুম থেকে ১৯৫৮-৫৯ মৌসুম পর্যন্ত মিরন বক্সের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। দীর্ঘদেহী অফ স্পিনার ছিলেন তিনি। ৫০ বছর বয়সে রেলওয়েজের বিপক্ষে ৫/৮১ পান।

১৯৪৮-৪৯ মৌসুমে সফররত ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশের বিপক্ষে দুইদিনের খেলায় পাঁচ-উইকেট লাভ করেছিলেন। কম্বাইন্ড সার্ভিসেসের বিপক্ষে পান ৪/৪১ ও ৫/৩১। এরপর, পরবর্তী শীতকালে কমনওয়েলথ একাদশের মুখোমুখি হন। ১৯৪৯-৫০ মৌসুমে কমনওয়েলথ একাদশের বিপক্ষে আরও একটি দুইদিনের খেলায় ১০ উইকেট পান।[১] তন্মধ্যে, জর্জ হ্যাডলিক্লাইড ওয়ালকট তার শিকারে পরিণত হয়েছিলেন।৫/১৯ নিয়ে সফরকারীদেরকে ৮১ রানে গুটিয়ে দেন। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ৫/৬৩ পান।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন মিরন বক্স। ২৯ জানুয়ারি, ১৯৫৫ তারিখে লাহোরে সফরকারী ভারত দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ১৯৫৫ তারিখে পেশাওয়ারে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি। দুই টেস্টে অংশ নিয়ে কেবলমাত্র দুই উইকেটের সন্ধান পেয়েছিলেন। তবে, প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ১৯ গড়ে উইকেট পেয়েছিলেন।

৪৭ বছর ২৮৪ দিন বয়সে লাহোরে বাগ ই জিন্নায় সফরকারী ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে অংশ নেন। এরফলে টেস্ট ক্রিকেটে দ্বিতীয় বয়োঃজ্যেষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে অভিষেক ঘটে মিরন বক্সের। কেবলমাত্র জেমস সাউদার্টন তার তুলনায় এগিয়ে রয়েছেন।[২] এ খেলাটি তার দ্বিতীয় প্রথম-শ্রেণীর খেলা ছিল। পাঁচ বছর পূর্বে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটলেও কোন উইকেট লাভে সক্ষমতা দেখাতে পারেননি।

দ্বিতীয় টেস্টে পানানমাল পাঞ্জাবীবিজয় মাঞ্জরেকারকে বোল্ড করেন। তন্মধ্যে, মাঞ্জরেকার শূন্য রানে বিদেয় নিয়েছিলেন।

অবসর[সম্পাদনা]

সংক্ষিপ্তভাবে টেস্ট খেলোয়াড়ী জীবন শেষ হবার পর ১৯৫৮-৫৯ মৌসুম পর্যন্ত পাকিস্তানে প্রথম-শ্রেণীর খেলা চালিয়ে যেতে থাকেন। এ পর্যায়ে তার বয়স ছিল ৫১ বছর। নিজস্ব শেষ খেলায় পেশাওয়ারের বিপক্ষে ৪/৪৫ পেয়েছিলেন।[৩] ১৯৫৬-৫৭ মৌসুমে কম্বাইন্ড সার্ভিসেসের সদস্যরূপে ব্যক্তিগত সেরা বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। ঢাকায় পূর্ব পাকিস্তান হোয়াইটসের বিপক্ষে ৬/১৫ পান।[৪] রাওয়ালপিন্ডি মাঠে কোচ ও মাঠ কর্মকর্তার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন।

৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯১ তারিখে ৮৪ বছর বয়সে রাওয়ালপিন্ডির ঢোক রাতা এলাকায় মিরন বক্সের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Wisden 1992, pp. 1263-64.
  2. "Fantastic Mr Fox"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৯ 
  3. Rawalpindi v Peshawar 1958-59
  4. East Pakistan Whites v Combined Services 1956-57

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]