মিডনাইট সান (২০১৮-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিডনাইট সান
মিডনাইট সান (২০১৮) চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালকস্কট স্পিয়ার
প্রযোজক
  • জেন গেটিয়েন
  • জন রিকার্ড
  • জ্যাক শাইলার
রচয়িতাএরিক কার্স্টেন
উৎসকেঞ্জি বান্দো কর্তৃক 
অ্যা সং টু দ্য সান
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারনেইট ওয়ালকট
চিত্রগ্রাহককার্স্টেন গোপীনাথ
সম্পাদক
  • মিশেল হ্যারিসন
  • টিয়া নোল্যান
প্রযোজনা
কোম্পানি
  • বয়েস / শাইলার ফিল্ম গ্রুপ
  • রিকার্ড পিকচার্স
পরিবেশকগ্লোবাল রোড এন্টারটেইনমেন্ট
মুক্তি
  • ২৩ মার্চ ২০১৮ (2018-03-23)
দৈর্ঘ্য৯১ মিনিট[১]
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়২.৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার[২]
আয়২৭.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার[৩]

মিডনাইট সান (মধ্যরাত্রির সূর্য) হলো ২০১৮ সালে ইংরেজি ভাষায় মুক্তিপ্রাপ্ত একটি মার্কিন প্রণয়ধর্মী নাট্য চলচ্চিত্র। ২০০৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত জাপানি চলচ্চিত্র অ্যা সং টু দ্য সান অবলম্বনে এটি নির্মিত হয়। চলচ্চিত্রটির পরিচালক হলেন স্কট পিয়ার এবং চিত্রনাট্যকার হলেন এরিক কার্স্টেন। এতে বেলা থোর্ন, প্যাট্রিক শোয়ার্জনেগাররব রিগল প্রমুখ অভিনয় করেন। চলচ্চিত্রের কাহিনি “জেরোডার্মা পিগমেন্টোসাম” নামক ব্যাধিতে আক্রান্ত এক মেয়ের জীবনের ঘটনাকে ঘিরে আবর্তিত হয়। এই ব্যাধির কারণে সে সরাসরি সূর্যালোকে যেতে পারে না। একটি ছেলের সাথে যখন তার পরিচয় হয়, তখন সে দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভোগে, সে কি তার আসল জীবনের ঘটনা তাকে বলবে, না কি স্বাভাবিক জীবনের অভিনয় করে যাবে। ২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া অঙ্গরাজ্যের ভ্যানকুভারে চলচ্চিত্রের প্রধান দৃশ্যধারণ শুরু হয়। ২০১৮ সালের ২৩ মার্চ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।

কাহিনিপট[সম্পাদনা]

ক্যাটি প্রাইস ছোটবেলা থেকে জেরোডার্মা পিগমেন্টোসাম নামের এক বিরল জিনগত ব্যাধিতে আক্রান্ত। ফলে সরাসরি সূর্যালোকে যেতে পারে না। দিনের বেলায় সে ঘরে বন্দি হয়ে সময় কাটায়। তার বাবা জ্যাক ও বন্ধু মরগ্যান এই সময়ে তার দেখাশোনা করে। সূর্যাস্তের পর প্রতিরাতে ক্যাটি ঘর থেকে বের হওয়ার অবকাশ পায়। একবার ক্যাটির অনেকদিনের “ক্রাশ” চার্লি তাকে রেলস্টেশনে গিটার বাজাতে দেখে। ক্যাটি তাকে দেখে তৎক্ষণাৎ ছুটে পালায়; কিন্তু ভুলবশত তার নোটবুক ফেলে যায়, যা চার্লি নিজের কাছে রেখে দেয়। পরদিন তা সে ক্যাটিকে ফেরত দেয়। তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে উঠলে চার্লি তাকে জানায় কীভাবে একটা চোটের জন্য সে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়, বার্কলিতে বৃত্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

তবে ক্যাটি তখনও চার্লিকে তার শরীরের অবস্থা জানায়নি, যদিও তার বাবা তাকে নিষেধ করছিলেন। একরাতে ক্যাটি চার্লির সাথে সিয়াটলে যায়, একটা লাইভ শো উপভোগ করে এবং শহরের রাস্তায় ক্যাটি চার্লির জন্য একটা গান গায়। সিয়াটল থেকে ফিরে তারা একটি হ্রদে সাঁতার কাটে এবং তীরে আগুন পোহায়। চার্লি একসাথে বসে সূর্যোদয় দেখার প্রস্তাব করতেই ক্যাটি ভয়ে সেখান থেকে দৌড়ে চলে যায়। চার্লি তাকে দ্রুতই বাসায় নিয়ে আসে, কিন্তু সময়মতো ক্যাটি ঘরে ঢুকতে পারে না। মাত্র কয়েক মুহূর্তের জন্য সরাসরি সূর্যালোক ক্যাটির শরীরে এসে পড়ে। ক্যাটি দ্রুতই ঘরে ঢোকে, জ্যাক আর মরগ্যান দ্রুতই বাড়ি ফিরে আসে। চার্লি বাড়ির দরজায় হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে আর মরগ্যান তাকে ক্যাটির অবস্থা বুঝিয়ে বলে। ডাক্তাররা কিছু পরীক্ষা করেন এবং সিদ্ধান্তে আসেন যে ক্যাটির মস্তিষ্ক পরিবর্তিত হতে শুরু করেছে এবং সে কেবল কয়েকদিনই বাঁচবে।

ক্যাটি তার আঙুলে অদ্ভুত অনুভব করে, যার কারণে সে গিটার বাজাতে পারে না। চার্লিকে কোনোভাবে আঘাত দিতে চায় না বলে সে তার পাঠানো খুদেবার্তারও উত্তর দেয় না। জ্যাক ধীরে ধীরে ক্যাটিকে চার্লির সাথে দেখা করতে সম্মত করে। চার্লি তখনও ক্যাটির সাথে থাকতে চায় আর সে ক্যাটির শরীরের কোনো অবস্থাকেই আমলে আনতে চায় না। ক্যাটি বার্কলি কোচে চার্লির সাথে দেখা করতে যায়, মরগ্যান ও জ্যাকের সাথে তার বাড়িতে সময় কাটায়। চার্লি ক্যাটিকে এক রাতে নিয়ে আসে এবং রেকর্ডিং সেশনের ব্যবস্থা করে তাকে চমকে দেয়। সেখানে সে চার্লির জন্য লেখা একটি গান রেকর্ড করে। শীঘ্রই চার্লিকে জানায় যে সে শেষবারের মতো একটি নৌকায় করে ঘুরে বেড়াতে চায়। পুরো গ্রীষ্মকালের জন্য তারা একটি নৌকাও ভাড়া করেছিল। ক্যাটির মনে পড়ে চার্লির একসাথে নৌকায় ভ্রমণ করতে চেয়েছিল, তাই সে মৃত্যুর ভয়কে পাশে সরিয়ে দিনের বেলায় বাইরে যেতে জ্যাককে রাজি করায়। ক্যাটি চার্লির সাথে নৌকাভ্রমণে বের হয়, সূর্যালোককে অনুভব করে এবং কিছুক্ষণের মধ্যে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ার পূর্ব পর্যন্ত চার্লির সাথে তার অন্তিম সময় কাটায়।

কিছু সময় পর, চার্লিকে ক্যাটির বাড়িতে গিয়ে জ্যাককে সাঁতারে যাওয়ার আগে বিদায় জানাতে দেখা যায়। জ্যাক ক্যাটির ইচ্ছানুসারে তার নোটবুক চার্লিকে দেয়। চার্লি ঘর থেকে বের হওয়ার সময় রেডিওতে ক্যাটির গান শোনে এবং নোটবুকে তার নামে লেখা ক্যাটির হৃদয়ছোঁয়া লেখা পড়ে। সেই লেখায় ক্যাটি চার্লিকে লিখেছে, সে যেন চলার পথে নতুন কিছুর সন্ধানে থাকে, আকাশের দিকে তাকিয়ে যেন তাকে স্মরণ করে আর যেন সবসময় মনে রাখে সে চার্লিকে ভালোবাসে।

কুশীলব[সম্পাদনা]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ২২ জুন এরিক কার্স্টেনের চিত্রনাট্যে স্কট স্পিয়ারের নতুন রোমান্টিক ড্রামা চলচ্চিত্র মিডনাইট সান পরিচালনার ঘোষণা দেওয়া হয়, যেখানে চার্লি হিসেবে প্যাট্রিক শোয়ার্জনেগার ও ক্যাটি হিসেবে বেলা থোর্ন অভিনয় করবেন।[৪] ২০০৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একই নামের জাপানি চলচ্চিত্র অনুসারে নতুন চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়। বয়েস / শাইলার ফিল্ম গ্রুপ এর অর্থায়ন করে[৪] এবং জন রিকার্ড ও জ্যাক শাইলার এর নির্মাণ করেন।[৪] ২০১৫ সালের ৯ অক্টোবর রব রিগল ক্যাটির বাবা জ্যাকের চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন।[৫]

চলচ্চিত্রায়ন[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের ১২ অক্টোবর কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া অঙ্গরাজ্যের ভ্যানকুভারে চলচ্চিত্রের প্রধান দৃশ্যধারণ শুরু হয়।[৬][৭]

সাউন্ডট্র‍্যাক[সম্পাদনা]

মিডনাইট সান (মূল মোশন পিকচার সাউন্ডট্র‍্যাক)
বিভিন্ন শিল্পী কর্তৃক সাউন্ডট্র‍্যাক
মুক্তির তারিখ১৬ মার্চ ২০১৮
শব্দধারণের সময়২০১৭
ঘরানাসাউন্ডট্র‍্যাক
দৈর্ঘ্য৪৬:২৯
সঙ্গীত প্রকাশনীলেকশোর
মিডনাইট সান থেকে একক গান
  1. "বার্ন সো ব্রাইট"
    মুক্তির তারিখ: ১৯ জানুয়ারি ২০১৮
  2. "ওয়াক উইথ মি"
    মুক্তির তারিখ: ২ মার্চ ২০১৮

মিডনাইট সান (মূল মোশন পিকচার সাউন্ডট্র‍্যাক) হলো চলচ্চিত্রটির সাউন্ডট্র‍্যাক অ্যালবামলেকশোর রেকর্ডসের মাধ্যমে ২০১৮ সালের ১৬ মার্চ অ্যালবামটি মুক্তি পায়।[৮]

এই অ্যালবামের পূর্বে দুইটি একক—“বার্ন সো ব্রাইট”[৯] ও “ওয়াক উইথ মি” মুক্তি পায়।[১০]

মিডনাইট সান (মূল মোশন পিকচার সাউন্ডট্র‍্যাক) ট্র‍্যাকের তালিকা
নং.শিরোনামলেখকশিল্পী(গণ)দৈর্ঘ্য
১."বার্ন সো ব্রাইট" বেলা থোর্ন৩:২২
২."রিচিং" থোর্ন২:৪৪
৩."ওয়ারশ" মরগান কিবি৩:৫২
৪."হোয়াট’স রিয়েল"
  • ভ্যাম পিয়ারৎসালোস্কি
  • ব্রায়ান ডিমার্ট
  • গ্রেগ সেলিন
  • অ্যান্ড্রু ওয়ালেস
  • সারা ডিমার্ট
ওয়াটার্স৩:২৭
৫."স্টকহোম" অ্যাড্রিয়েল৩:১৪
৬."সুইটেস্ট ফিলিং" থোর্ন২:০৭
৭."ওয়াক উইথ মি" থোর্ন৩:২৪
৮."হোয়্যার আই স্ট্যান্ড"মিয়া রেরে৩:২৩
৯."লেট দ্য লাইট ইন" থোর্ন৩:১৮
১০."ক্যাটি’স হাউজ" নেট ওয়ালকট২:১৬
১১."মম’স গিটার" ওয়ালকট১:৩৬
১২."আ’ম ওল্ড স্কুল টু" ওয়ালকট০:৫২
১৩."ফ্যাক্টস" ওয়ালকট০:৪২
১৪."চিলি পার্টি" ওয়ালকট০:৪০
১৫."বোট ডক টক" ওয়ালকট১:১৮
১৬."সেইলিং সাউন্ডস পারফেক্ট" ওয়ালকট১:১৫
১৭."ওয়ানা গো আউট অন অ্যা রিয়েল ডেট?" ওয়ালকট১:২৩
১৮."আ’ম নট সুইমিং" ওয়ালকট১:২২
১৯."স্কিনি ডিপ কিস" ওয়ালকট১:৫৮
২০."সানরাইজ" ওয়ালকট১:৫৮
২১."ট্রিগারিং ইভেন্ট" ওয়ালকট১:৩৫
২২."দ্যাট উড বি ফাইন" ওয়ালকট০:৫৪
মোট দৈর্ঘ্য:৪৬:২৯

মুক্তির ইতিহাস[সম্পাদনা]

দেশ তারিখ বিন্যাস লেবেল
একাধিক ১৬ মার্চ ২০১৮ [৮]

মুক্তি[সম্পাদনা]

২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে ওপেন রোড ফিল্মস চলচ্চিত্রটির প্রচারসত্ত্ব লাভ করে। তারা ২০১৮ সালের ২৩ মার্চ তারিখ নির্ধারণের পূর্বে ২০১৭ সালের ১৪ জুলাই তারিখ নির্ধারণ করে।[১১]

বক্স অফিস[সম্পাদনা]

মিডনাইট সান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় ৯.৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে ১৭.৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, তথা বিশ্বব্যাপী ২৭.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভ করে।[৩]

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চলচ্চিত্রটি প্যাসিফিক রিম: আপরাইজিং, শার্লক নোমস, আনসেনপল, অ্যাপোসল অব ক্রাইস্ট প্রভৃতি চলচ্চিত্রের সাথে মুক্তি পায়। প্রথম সপ্তাহে ২,১৭৩টি থিয়েটারে মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্রটি ৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভ করবে বলে ধারণা করা হয়েছিল।[১২] কিন্তু এটি কেবল ৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভ করে এবং বক্স অফিসে ১০ম স্থানে থেকে সপ্তাহ শেষ করে।[১৩] দ্বিতীয় সপ্তাহে চলচ্চিত্রটি ৫৪% পড়ে ১.৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লাভ করে।[১৪]

চলচ্চিত্র সমালোচনা[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র মূল্যায়নকারী ওয়েবসাইট রটেন টম্যাটোস-এ চলচ্চিত্রটির গড় রেটিং ৪.২/১০ (জানুয়ারি ২০২২ অনুসারে)। ওয়েবসাইটটির সমালোচনামূলক পর্যালোচনায় বলা হয়েছে, “মিডনাইট সান হলো কিশোর প্রেমের একটি গড়পড়তা আকর্ষণী ও কল্পনানির্ভর চলচ্চিত্র, যা এতে থাকা বাস্তব রোগের অবাস্তব কল্পনার মাধ্যমে অন্য চলচ্চিত্র থেকে সহজে পৃথকযোগ্য।”[১৫] মেটাক্রিটিকে ১৪টি পর্যালোচনার ভিত্তিতে চলচ্চিত্রটির গড় স্কোর ১০০-এর মধ্যে ৩৮, যা “সাধারণ প্রতিকূল পর্যলোচনা” হিসেবে বিবেচ্য।[১৬] সিনেমাস্কোর পরিচালিত দর্শক জরিপে এ+ থেকে এফ-এর মধ্যে চলচ্চিত্রটির স্কোর “এ-”।[১৩]

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

বছর পুরস্কার শ্রেণী/বিভাগ মনোনয়ন ফলাফল তথ্যসূত্র
২০১৮ টিন চয়েজ পুরস্কার চয়েজ মুভি: ড্রামা মিডনাইট সান মনোনীত [১৭][১৮][১৯]
চয়েজ ড্রামা চলচ্চিত্র অভিনেতা প্যাট্রিক সোয়ার্জনেগার মনোনীত
চয়েজ ড্রামা চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বেলা থোর্ন মনোনীত
চয়েজ চলচ্চিত্র জুটি বেলা থোর্নপ্যাট্রিক সোয়ার্জনেগার মনোনীত
পিপল’স চয়েজ পুরস্কার সেরা নাটকীয় চলচ্চিত্র মিডনাইট সান মনোনীত [২০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Midnight Sun"AMC Theatres। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৮ 
  2. Levison, Louise (মার্চ ২০১৮)। "Indie B/O Rejusts, Holds Ground" (PDF)The Film Entrepreneur25 (3)। Business Strategies। এপ্রিল ২০, ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২১, ২০১৮ 
  3. "Midnight Sun (2018)"Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৪, ২০১৮ 
  4. Hipes, Patrick (জুন ২২, ২০১৫)। "Bella Thorne & Patrick Schwarzenegger To Star In YA Pic 'Midnight Sun'"Deadline HollywoodPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৫, ২০১৫ 
  5. Hipes, Patrick (অক্টোবর ৯, ২০১৫)। "Rob Riggle Takes On Drama With 'Midnight Sun' Pic"Deadline HollywoodPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৫, ২০১৫ 
  6. SSN Insider Staff (অক্টোবর ১৬, ২০১৫)। "On the Set for 10/16/15: 'Ab Fab: The Movie' & 'Planet of the Apes' Sequel Start Shooting While 'Star Trek Beyond' Wraps"SSN Insider। TTS News। জুন ১৩, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৫, ২০১৫ 
  7. Guglielmi, Jodi (অক্টোবর ১৪, ২০১৫)। "Arnold Is That You? Patrick Schwarzenegger Flashes His Muscles On Set – Just Like His Dad Once Did"PeopleTime। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৫, ২০১৫ 
  8. "Midnight Sun (Original Motion Picture Soundtrack) by Various Artists on Apple Music"Apple Music। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০২১ 
  9. "Exclusive! New song by Bella Thorne 'Burn So Bright' | 'Midnight Sun' soundtrack"Soundtracks Scores and More। জানুয়ারি ১৮, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০২১ 
  10. Boone, John (ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০১৮)। "Listen to Bella Thorne's new single, 'Walk With Me,' from the 'Midnight Sun' soundtrack (Exclusive)"ET Online। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৪, ২০২১ 
  11. Fleming, Mike Jr. (অক্টোবর ১৩, ২০১৬)। "Open Road Acquires 'Midnight Sun', Sets Wide Summer Release For Bella Thorne & Patrick Schwarzenegger Pic"Deadline HollywoodPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১২, ২০১৮ 
  12. Rubin, Rebecca (মার্চ ২১, ২০১৮)। "Box Office Preview: 'Pacific Rim Uprising' Set to Break 'Black Panther's' Five-Week Streak"VarietyPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২১, ২০১৮ 
  13. D'Alessandro, Anthony (মার্চ ২৫, ২০১৮)। "Does 'Pacific Rim: Uprising' Break Even At The Global B.O.?; 'Black Panther' Sets Marvel Record – Sunday Postmortem"Deadline HollywoodPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৫, ২০১৮ 
  14. D'Alessandro, Anthony (এপ্রিল ১, ২০১৮)। "How Warner Bros. Sold 'Ready Player One' On The Spielberg Spirit & Beat Tracking With $53M+ 4-Day – Sunday Postmortem"Deadline HollywoodPenske Business Media। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২, ২০১৮ 
  15. "Midnight Sun (2018)"Rotten TomatoesFandango। সংগ্রহের তারিখ ১৪ জানুয়ারি ২০২২ 
  16. "Midnight Sun Reviews"MetacriticCBS Interactive। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৯, ২০১৮ 
  17. Cohen, Jess (জুন ১৩, ২০১৮)। "Teen Choice Awards 2018: Avengers: Infinity War, Black Panther and Riverdale Among Top Nominees"E! News। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ 
  18. "Teen Choice Awards: Winners List"The Hollywood Reporter। আগস্ট ১২, ২০১৮। আগস্ট ১৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ 
  19. Douglas, Esme। "Teen Choice Awards 2018: See the full list of winners"EW। আগস্ট ১৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৮ 
  20. Macke, Johnni। "2018 People's Choice Awards: Complete List of Nominations"E!। সংগ্রহের তারিখ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]