মালিনী থান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চিত্র:Malimap.jpg
মালিনী থানের অবস্থিতি

মালিনী থান এক মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ থাকা একটি স্থান। প্রতি বছর এই পবিত্র স্থানে অনেক পর্যটকের ভিড় দেখা যায়৷ এই স্থানে অরুণাচল প্রদেশএর পশ্চিম সিয়াং জেলার দক্ষিণ সীমান্তের চিলাপথার নামক স্থান থেকে কয়েক মাইল উত্তর-পূর্বে অবস্থিত। এই থানের ধ্বংসাবশেষসমূহ একে ১৪-১৫ শতকের বলে প্রতীয়মান করে৷[১]

ঐতিহ্য[সম্পাদনা]

চিত্র:Malidurg.jpg
মালিনী থানের দুর্গার মূর্তি

মালিনী থানে প্রধানতঃ দেবী দুর্গাশিবএর নামে উপাসনা করা হয়৷ এই থানের সঙ্গে কৃষ্ণ ও রুক্মিণীর নামও জড়িত হয়ে থাকা দেখা যায়৷ কাহিনী অনুসারে, কৃষ্ণরুক্মিণী বিবাহএর পর এই স্থানে আসেন। তারপর পার্বতী এখানে মালিনীর রূপে তাদের সেবা করেন৷ তারপর থেকেই এই স্থানের নাম মালিনী হয়৷ অন্য মতে, এই স্থানটি এটি শক্তি পীঠ৷

ধ্বংসাবশেষের নিদর্শন[সম্পাদনা]

চিত্র:Malinithan Arunachal Pradesh.jpg
মালিনী থানের ধ্বংসাবশেষ

এই থানের নির্মাণ কার্যে উড়িষ্যার বিভিন্ন মন্দিরের সঙ্গে মিল দেখা যায়৷[১] মালিনী থানের ধ্বংসাবশেষের মধ্যে যে কয়টি হাতীর মূরের মূর্তি পাওয়া গিয়েছে, সেই মূর্তির চানেকীর সঙ্গে বর্মন বংশীয় রাজাদের রাজকীয় তামার ফলকসমূহের সীল-মোহরের সাদৃশ্য আছে। এই হাতীর মূর উরিষ্যা ও দাক্ষিণাত্যের মন্দিরের গায়ে দেখতে পাওয়া যায়। উড়িষ্যার বিখ্যাত কোনারক মন্দিরটিতে হাতী ও সিংহের ’মোটিফ’ দেখা যায়। মালিনী থানের ভাস্কর্যসমূহে খ্রিস্টীয় নবম-দশম শতকে নির্মিত অসমএর অন্যান্য স্থানে আবিষ্কৃত ভাস্কর্যসমূহের সঙ্গে মিল দেখা যায়।[২]

তথ্য সংগ্রহ[সম্পাদনা]

  1. "Malinithan Temple, Malinithan Temple Delhi, Malinithan Temple in India"। Indianmirror.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-২৩ 
  2. "সুগন্ধি পখিলা: মালিনী থান: লীলা গগিয়ে"। Networkedblogs.com। ২০১১-০৩-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৩-২৩ 

বাহ্যিক সংযোগ[সম্পাদনা]