মাউন্টেন ডিউ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাউন্টেন ডিউ
Mountain Dew logo.svg
প্রকারলেবুবর্গ কোমল পানীয়
উৎপাদনকারীপেপসিকো
উৎপত্তিস্থলমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পরিচয়কাল১৯৪০; ৭৮ বছর আগে (1940)
প্রকারভেদনিচে দেখুন
সংশ্লিষ্ট পণ্য
  • মেল্লো য়েল্লো
  • সান ড্রপ
  • সার্জ (কোমল পানীয়)
Websitemountaindew.com

মাউন্টেন ডিউ (ধরন এমটিএন ডিউ) হলো কার্বোনেটেড কোমল পানীয় ব্র‍্যান্ড, এর প্রযোজক এবং মালিক পেপসিকো গ্রুপ। ১৯৪০ সালে এর মূল সূত্র আবিষ্কার করে টেন্নেসসেএ বেভারেজ বোট্টলেরস বারনিয় এবং আল্লি হার্টম্যান। ১৯৫৮ সালে এর সংশোধিত সূত্র তৈরি করেন বিল ব্রিদগফোরথ।[১] এই সূত্রটির মালিক হলো টিপ কর্পোরেশন অফ ম্যারিয়ন, ভার্জিনিয়া[২] উইলিয়াম এইচ. "বিল" জোন্স টিপ কর্পোরেশনের সূত্রটি পরিশ্রুত করে ১৯৬১ সালে মাউন্টেন ডিউ নামে বাজারে অবমুক্ত করেন।[৩] আগস্ট ১৯৬৪ সালে মাউন্টেন ডিউ ব্র‍্যান্ড এবং কোম্পানি টিপ কর্পোরেশনের এর কাছ থেকে পেপসি-কোলা কোম্পানি কিনে নেয় এবং এর বাজার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডায় প্রসারিত করে।[৪]

১৯৪০ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত মাউন্টেন ডিউ এর শুধু লেবুবর্গ স্বাদেই পাওয়া যেতো। ১৯৮৮ সালে ডায়েট মাউন্টেন ডিউ বাজাড়ে অবমুক্ত করা হয়,[৫] এরপর মাউন্টেন রেড প্রকাশ পায়,যা ১৯৮৮ সালেই আবার বন্ধ করে দেওয়া হয়।[৬] ২০০১ সালে চেরি স্বাদের নতুন এক মাউন্টেন সিরিজ অবমুক্ত করা হয়, যাকে কোড রেড নামেও ডাকা হয়। এটি বাজারে ছাড়বার সাথে সাথে জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করে।

১৯৯৬ সালে মাউন্টেন ডিউ ইংল্যান্ড এর বাজারে ছাড়া হলেও ১৯৯৮ সালে বন্ধ হয়ে যায়। এরপর ২০১০ সাল থেকে আবার ইংল্যান্ডে এটি "মাউন্টেন ডিউ এনার্জি" নামে অবমুক্ত করা হয় এবং একই নামে এটি আয়ারল্যান্ড এও অবমুক্ত করা হয়। এরপর ২০১৪ সালে এর নাম ইংল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড এর বাজারে আবার বদলিয়ে এর বৈশ্বিক নাম "মাউন্টেন ডিউ" করা হয়।[৭] ২০১৭ সাল থেকে মাউন্টেন ডিউ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এর ৬.৬% কোমল পানীয় এর বাজার দখল করেছে।[৮] এর প্রতিযোগিতা চলে কোকা কোলা কোম্পানির মেল্লো ইয়েল্লো এবং সার্জ এবং ডাঃ পিপার স্ন্যাপল গ্রুপ এর সান ড্রপ এর সাথে। মাউন্টেন ডিউ এর ৮০% লেবুবর্গের কোমল পানীয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এর বাজারে বিক্রি হয়।[৯]

উৎপত্তি[সম্পাদনা]

মাউন্টেন ডিউ

টেন্নেসসেএ বোটলেরস বারনি এবং আল্ল্য হার্টম্যান ১৯৪০ সালে মাউন্টেন ডিউকে মিক্সার হিসেবে উন্নতি করেন।[১০] কোমল পানীয় আঞ্চলিকভাবে ১৯৩০ সালে বিক্রি শুরু হয় এবং হার্টম্যান তাদের সোডাকে উন্নতি করে যাতে নেশা বিশেষ করে যাতে হুইস্কির সাথে মিক্স করা যায়।[১১] উৎপত্তিতে ১৯ শতকের স্ল্যাঙ্গ টার্ম।হুইস্কি, বিশেষ করে হাইল্যান্ড স্কচ হুইস্কি,[১২] মাউন্টেন ডিউ তাদের নাম কোমল পানীয় হিসেবে ট্রেডমার্ক করান ১৯৪৮ সালে।[১০]

চার্লস গর্ডন যিনি উইলিয়াম স্বারট্য এর পানীয় ডা. ইনাফ এর প্রচারে ছিলেন তিনি মাউন্টেন ডিউকে সামনে আনেন যখন তার হার্টম্যান ভাইদের সাথে ট্রেন এ আলাপ হয় এবং তারা তাদের পানীয়ের স্যাম্পল তাকে প্রদত্ত করেন। গর্ডন এবং হার্টম্যান ভ্রাতৃদ্বয় টেন্নেসসের ট্রিসিটিস বেভারেজ কর্পোরেশনের সাথে চুক্তি করেন।[১১][১৩]

হার্টম্যান ভ্রাতৃদ্বয় কোকা-কোলা কোম্পানিকেও তাদের সোডায় অর্থ লাগানোর কথা বলেছিলেন। কিন্তু কোকা-কোলা কোম্পানি তাদের সুযোগকে মানা করে দেয়।

মেরিয়ন, ভার্জিনিয়ার দ্যা টিপ কর্পোরেশন মাউন্টেন ডিউ এর সত্ত্ব কিনে নেয় এবং ফ্লেভারে নতুনত্ব যোগ করে ১৯৬১ সালে নতুনভাবে এটি বাজারে ছাড়ে।[৩] ১৯৬৪ সালে পেপসিকো কোম্পানি দ্যা টিপ কর্পোরেশনকে কিনে নেয় এবং মাউন্টেন ডিউ এর সত্ত্ব অর্জিত করে।[১৪] ১৯৯৯ সালে ভার্জিনিয়ার আইন সভায় বিল জন্স মাউন্টেন ডিউ এর ইতিহাস এবং এতে তাদের অবদান মনে করান।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Mason, Doug (সেপ্টেম্বর ১৬, ২০০৭)। "Drinking in History"Knoxville News Sentinel। ১০ অক্টোবর ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Maddry, Larry (১৯৯৪-০৮-০৬)। "Reprinted Article: Soft drink finally gets its Dew from small Virginia town"Virginian Pilot। Norfolk, VA। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১২-২৩ 
  3. Elledge, Glenna (২৭ জুলাই ১৯৯৪)। "Reprinted Article: Town of Marion recognizes 'Home of Mountain Dew"Smyth County News। Marion, VA। ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৪ – Michael "Fred" Fredericks's Web Site-এর মাধ্যমে। 
  4. Collins, Glenn (১৬ ডিসেম্বর ১৯৯৬)। "Coca-Cola, in Direct Attack on Pepsi, to Introduce Challenger to Mountain Dew"The New York Times। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০১১ 
  5. Smith, Andrew (২০০৬)। Encyclopedia of junk food and fast food। Westport, Conn: Greenwood Press। পৃষ্ঠা 188। আইএসবিএন 0-313-33527-3 
  6. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; dewhistbook নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  7. Kimberley, Sara (১৮ মে ২০১০)। "Mountain Dew returns (to UK) with social media push"Brand Republic (U.K.)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জানুয়ারি ২০১১ 
  8. "Market share of the Mountain Dew brand in the United States from 2004 to 2017"Statista। ২৬ মার্চ ২০১৯। 
  9. "Branded Entertainment Could Boost PepsiCo"Seeking Alpha। ২৩ জুন ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১১ 
  10. Stanford, Duane D. (২০১২-০৪-১৭)। "PepsiCo Aims to Bring Urban Cool to Mountain Dew Image: Retail"। Bloomberg। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১১-১৭ 
  11. Taylor, Tarah (১০ আগস্ট ২০১২)। "Who should claim Mountain Dew? An age-old debate for you to decide"WCYB-TV। ৫ এপ্রিল ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ আগস্ট ২০১২ 
  12. "Decisions of the Commissioner of Patents"। ১৯০৯। 
  13. "Charles O. Gordon"History of Virginia Tech। Virginia Polytechnic Institute and State University। সংগ্রহের তারিখ ২২ মে ২০১৩ 
  14. Byrd, Kimberly; Williams, Debra (২০০৫)। Smyth County, Virginia (Images of America Series)। Arcadia Publishing। আইএসবিএন 9780738517568 
  15. "House Joint Resolution No. 839"। House of Delegates of the State of Virginia। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-১২-২৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]